প্রবাস | The Daily Ittefaq

নেদারল্যান্ডে রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী উদযাপিত

নেদারল্যান্ডে রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী উদযাপিত
অনলাইন ডেস্ক২৯ এপ্রিল, ২০১৮ ইং ১৯:৪৪ মিঃ
নেদারল্যান্ডে রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী উদযাপিত
বিশ্ব কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৭তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে নেদারল্যান্ডের  দি হেগে বাংলাদেশ দূতাবাস 'রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী' আয়োজন করে। 
 
দি হেগস্থ গান্ধী সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই জয়ন্তীতে প্রখ্যাত রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী কাদেরী কিবরিয়া এবং নেদারল্যানন্ড  ভিত্তিক সঙ্গীত স্কুল 'সংগীতী' এর  প্রতিষ্ঠাতা  ও বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী প্রজ্ঞা ভট্টাচার্য সঙ্গীত পরিবেশন করেন। এছাড়া দূতাবাস পরিবারের সদস্য, স্থানীয় সঙ্গীত শিল্পী ও শিশু শিল্পীরা  অংশগহণ করেন। দূতাবাস কর্মকর্তা, প্রবাসী  বাংলাদেশি এবং শিক্ষার্থীসহ  শতাধিক দর্শক-শ্রোতা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 
 
স্বাগত বক্তব্যে নেদারল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শেখ মুহম্মদ বেলাল, রবীন্দ্রনাথ ও নজরুলকে বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল নক্ষত্র হিসেবে উল্লেখ করেছেন। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও কাজী নজরুল ইসলাম বাংলা সাহিত্য, নাটক এবং সঙ্গীতকে এক উচ্চতর স্থানে  আসীন করেছেন, তারা বাংলা সংস্কৃতি ও সাহিত্যে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছেন। শান্তি, মানবতা, মানবাধিকার, ধর্ম নিরপেক্ষতা, ভালবাসা ও প্রকৃতির নির্ভর তাদের প্রশংসনীয় লেখনী যুগে যুগে বাংলার তরুণ প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। এই দুই মহান সাহিত্যিক বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতির একাধিক ধারায় তাদের চির অম্লান পদাঙ্ক রেখে গিয়েছেন। তাদের বুদ্ধিবৃত্তিক দক্ষতা এবং সৃজনশীলতা কেবল বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেনি, তাদের বিশাল কর্ম নিয়ে গবেষণামূলক বিভিন্ন সুযোগ সৃষ্টি করেছেন। 
রাষ্ট্রদূত বেলাল, কাজী নজরুলের সাহিত্যকর্মের সূত্র ধরে, তিনি উপস্থিত সকলকে আহ্বান জানান বিরাজমান আর্থ-সামাজিক সংকুচিত করার ক্ষেত্রে নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসার জন্য। একই সাথে রাষ্ট্রদূত বেলাল  বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নের দৃষ্টান্তমূলক অগ্রগামী অবস্থানের এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নারীর ক্ষমতায়নে গৃহীত বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তামূলক উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। এর ফলশ্রুতিতে, আর্থ-সামাজিক প্রেক্ষাপটে বৈষম্য কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশের তুলনায় বাংলাদেশ এগিয়ে আছে। 
 
একদিকে শিল্পী কাদেরী কিবরিয়ার কণ্ঠে রবীন্দ্র সংগীতের ঐন্দ্রজালিক উপস্থাপনা শ্রোতাদের বিমোহিত করে, অন্যদিকে প্রজ্ঞা ভট্টাচার্য, রাষ্ট্রদূতের সহধর্মিনী ডা. দিলরুবা নাসরিন এবং অন্যান্য স্থানীয় শিল্পীদের নজরুল গীতির সুরের মূর্ছনা সকলকে আবেশিত করে।
 
ইত্তেফাক/ইউবি

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩