প্রবাস | The Daily Ittefaq

'বাংলাদেশ বিশ্বের উদীয়মান বিনিয়োগ গন্তব্য'

'বাংলাদেশ বিশ্বের উদীয়মান বিনিয়োগ গন্তব্য'
ইত্তেফাক রিপোর্ট১৮ মে, ২০১৮ ইং ১৪:৫৪ মিঃ
'বাংলাদেশ বিশ্বের উদীয়মান বিনিয়োগ গন্তব্য'
জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেছেন, বাংলাদেশ বর্তমান বিশ্বের একটি অন্যতম বিনিয়োগ গন্তব্য। তিনি বৃহস্পতিবার বিকেলে জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অর্গানাইজেশন (জেট্রো) সদর দপ্তরে বাংলাদেশ দূতাবাস ও বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) কর্তৃক আয়োজিত এক সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য প্রদানকালে একথা বলেন।
 
রাষ্ট্রদূত সেমিনার আয়োজনে সহযোগিতা করার জন্য বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, জেট্রো, জাইকা ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ জানান। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলামের নেতৃত্বে বাংলাদেশের একটি প্রতিনিধি দল এই সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। এর আগে গত ১৫ মে জাপানের ওসাকা শহরেও একটি বিনিয়োগ সেমিনারে তারা যোগ দেন।
 
রাষ্ট্রদূত বলেন, জাপান-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের ভিত আরো মজবুত করতে ২০১৪ সালে একমত হন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে ও শেখ হাসিনা। রাবাব ফাতিমা জানান, সম্প্রতি জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আমন্ত্রণে জাপান সফর করেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং তারা দুই দেশের অর্থনৈতিক ও বন্ধুত্বপ্রতিম সম্পর্ক আরো গভীর করার উপর গুরুত্ব প্রদান করেন।রাষ্ট্রদূতবলেন“আজকের সেমিনারে পরিপূর্ণ উপস্থিতিও তাই প্রমাণ করে ।বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রার বর্ণনা দিয়ে তিনি জাপানি উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহবান জানান এবং দূতাবাস থেকে সব সময় সকল রকমের সহায়তা প্রদানের আশ্বাস প্রদান করেন।
 
সেমিনারে মূল আলোচনা করেন বিডা চেয়ারম্যান। তিনি বাংলাদেশকে অন্য যে কোন উন্নত দেশ থেকে নিরাপদ দাবি করেন এবং বাংলাদেশের বর্তমান উন্নয়ন প্রেক্ষাপট বর্ণনা করেন।বিডা চেয়ারম্যান বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের স্বীকৃতি ও বর্তমান আধুনিক বাংলাদেশের উন্নয়নে জাপানের ভূমিকা অনস্বীকার্য। বাংলাদেশের বিশাল জনগোষ্ঠী জাপানি ব্যবসায়ীদের জন্য বিরাট বাজার হতে পারে উল্লেখ করে তিনি সরকারের ব্যবসা সহজীকরণ নীতি ও প্রণোদনাগুলো সেমিনারে উপস্থিত জাপানি ব্যবসায়ীদের কাছে তুলে ধরেন। তিনি বাংলাদেশে বিনিয়োগে সর্বাত্মক সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন এবং ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর প্রদান করেন।
 
সেমিনারে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জেট্রোর এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট নাওয়োশি নোগুচি। তিনি সেমিনারে অংশ নেয়ায় সকলকে শুভেচ্ছা জানান এবং জাপানি ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশের উপর আস্থা রাখার অনুরোধ করেন। এছাড়া পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান আবুল মুনসুর মোহাম্মদ ফয়জুল্লাহ বাংলাদেশের গ্যাস ও এল.এন.জি ব্যবস্থাপনা নিয়ে উপস্থাপনা করেন। বেসরকারি খাতের প্রতিনিধি হিসাবে এনারজিপ্যাকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হুমায়ুন রশিদ বলেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পেয়েও বাংলাদেশের সম্ভাবনায় আস্থা রেখে দেশে ফিরে আসেন এবং নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেন যেখানে প্রায় দশ হাজার কর্মী কাজ করছেন।
 
জাইকার পরিচালক আকিতো তাকাহাশি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং জাইকার ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি বাংলাদেশের সাথে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের তুলনামূলক চিত্র উপস্থাপন করেন এবং বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুন্দর পরিবেশ বিদ্যমান বলে মন্তব্য করেন।অন্যদিকে জেট্রো ঢাকার প্রতিনিধি তাইকি কোগা তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও ব্যবসা পরিচালনা করার কিছু নিয়ম, সুবিধা, সমস্যা ইত্যাদি তুলে ধরেন।অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে ব্যবসার অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন সিবিসি কোম্পানির হিতোশি টয়োটা।
 
সেমিনারের আগে জেট্রোর সাথে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের একটি দ্বিপাক্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে বাংলাদেশে জাপানি বিনিয়োগ বৃদ্ধির সম্ভাবনা ও উদ্যোগ নিয়ে আলোচনা করেন জেট্রোর এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট নাওয়োশি নোগুচি, বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী আমিনুল ইসলাম, রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা,কমার্শিয়াল কাউন্সিলর হাসান আরিফ এবং অন্যান্য প্রতিনিধিগণ।সভায় বাংলাদেশের স্টার্ট আপ ব্যবসার সাথে জাপানের এস.এম.ই সমূহের ব্যবসায়িক ম্যাচিং আয়োজনের প্রস্তাব করেন নাওয়োশি নোগুচি।
সেমিনার শেষে দুই দেশের ব্যবসায়ী ও প্রতিনিধিগণ নিজেদের মধ্যে নেটওয়ার্কিং ও কুশল বিনিময় করেন। এসময় সেমিনারে অংশগ্রহণকারী কোম্পানিসমূহ বাংলাদেশে বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।
 
ইত্তেফাক/এসএস
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৬
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬