প্রবাস | The Daily Ittefaq

বাচ্চু হত্যার বিচারের দাবিতে নিউইয়র্কে মানববন্ধন

বাচ্চু হত্যার বিচারের দাবিতে নিউইয়র্কে মানববন্ধন
বিশেষ প্রতিনিধি, যুক্তরাষ্ট্র১৯ জুন, ২০১৮ ইং ১৩:১১ মিঃ
বাচ্চু হত্যার বিচারের দাবিতে নিউইয়র্কে মানববন্ধন
প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চু হত্যার বিচারের দাবিতে নিউইয়র্কে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছেন প্রবাসী নাগরিক সমাজ। স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় অনুষ্ঠিত এই মানববন্ধন ও সমাবেশ থেকে বক্তারা বলেন, যারাই অসাম্প্রদায়িক চেতনা ও মুক্তচিন্তার কথা বলছে উগ্রবাদীরা তাদেরই হত্যা করছে। সেই হত্যার মিছিল দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে।
 
কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট ও সাংবাদিক মুজাহিদ আনসারির সভাপতিত্বে এবং নাট্যকার ও সাংবাদিক তোফাজ্জল লিটনের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন সুশীল সাহা, জাকির আহমেদ রনি, গোপাল স্যান্যাল, এন্ড্রো ডেনিস ও স্বীকৃতি বড়ুয়া।
 
সমাবেশে বক্তারা প্রকাশক শাহজাহান বাচ্চু হত্যাকাণ্ডসহ সকল হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করে বিচার দাবিতে বলেন, ৩০ লাখ শহীদের রক্তে গড়া এই বাংলাদেশ কোনোদিন পরাজিত হতে পারে না। ১৯৭১ সালে পরাজিত শক্তিরা আবার নানা উপায়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ, প্রতিষ্ঠান এবং স্থাপনার ওপর হামলে পড়েছে। অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষদের হত্যা করছে উগ্রবাদীরা। এ অবস্থা চলতে পারে না।
 
বাংলাদেশ গণজাগরণ মঞ্চের প্রতিষ্ঠাতা সংগঠক জাকির আহমেদ রনি বলেন, যখন লালন ভাস্কর্য মৌলবাদীরা ভেঙে ফেলে দিল আমরা প্রতিবাদ করেছি। মুক্তমনা ব্লগারসহ ভিন্ন মতামতের জন্য নানা ধর্মের মানুষদের হত্যার পর আমরা বার বার প্রতিবাদ করেছি। কিন্তু সরকার কর্ণপাত করেনি। নগরে আগুন লাগলে দেবালয় রক্ষা পায় না। সরকারকে আমরা বলতে চাই, আপনারা আপনাদের মতামত আমাদের ওপর চাপিয়ে না দিয়ে জনগণ কী বলতে চায় শুনুন। প্রতিটি হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্ত করে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করুন।
 
নিউইয়র্ক সেক্যুলার আন্দোলনের সংগঠক এন্ড্রো ডেনিস বলেন, আমি এখানে না আসলে জানতেই পারতাম না তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলোতে ধর্মীয় উগ্রবাদিতা জালের মতো ছড়িয়ে পড়ছে। বাংলাদেশে অন্তত ২০জনকে হত্যা করা হয়েছে তাদের ভিন্নমত চর্চার জন্য। সরকার এ বিষয়ে উদাসীন না হলে এই হত্যার মিছিল এমন করে বাড়ত না। আমরা বাংলাদেশ সরকারকে এ বিষয়ে সহযোগিতা করতে চাই।
 
নিউইয়র্ক গণজাগরণ মঞ্চের অন্যতম সংগঠক গোপাল স্যান্যাল বলেন, গণজাগরণ মঞ্চ থেকে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবি জানানো হয়েছিল। সরকার তাদেরই ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে। সরকারের এই অবহেলা বাংলাদেশের জন্য ভয়ংকর পরিণতি ডেকে আনবে।
 
একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি নিউইয়র্ক চ্যাপ্টারের সাধারণ সম্পাদক স্বীকৃতি বড়ুয়া বলেন, বাংলাদেশ একটি অসাম্প্রদায়িক দেশ। অথচ এ দেশকে সাম্প্রদায়িক দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিত করার জন্য একটি মহল প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে যাচ্ছে। কিন্তু বাংলার আপামর জনগণ একাত্তরে পরাজিতদের ষড়যন্ত্র কখনো বাস্তবায়ন হতে দেবে না। বাংলার মানুষ কোনোদিন পরাজিত হতে পারে না।
 
ইত্তেফাক/আরকেজি
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৬
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬