আদালত | The Daily Ittefaq

ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় মেডিয়েশন পদ্ধতির ভূমিকা রয়েছে: বিচারপতি সোহেল

ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় মেডিয়েশন পদ্ধতির ভূমিকা রয়েছে: বিচারপতি সোহেল
ইত্তেফাক রিপোর্ট১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ১৮:৩২ মিঃ
ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় মেডিয়েশন পদ্ধতির ভূমিকা রয়েছে: বিচারপতি সোহেল
'ডেফিনেশন অব মেডিয়েশন' শীর্ষক বইয়ের প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বুধবার বইটির মোড়ক উম্মোচন করেন সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি আহমেদ সোহেল। 
 
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আইনমন্ত্রী সংসদে জানিয়েছেন বর্তমানে দেশে ৩০ লাখের অধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে। তাই এই মামলাজট নিরসনে বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তি পদ্ধতি, মেডিয়েশন এবং আরবিট্রেশনের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে।
 
মেডিয়েশন এবং আরবিট্রেশনই মামলাজট নিরসনের একমাত্র পথ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
 
বিচারপতি আহমেদ সোহেল বলেন, পৃথিবীর সর্বত্র মামলাজট নিরসন এবং দ্রুত ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠায় মেডিয়েশন পদ্ধতি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করছে। বাংলাদেশেও মামলাজট নিরসনে মেডিয়েশন-আরবিট্রেশনকে প্রাতিষ্ঠানিক রুপ দিতে গবেষণার ব্যবস্থা করা এবং উচ্চতর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান।
 
তিনি জানান, পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত বিচার ব্যবস্থায় মেডিয়েশন-আরবিট্রেশন পদ্ধতি সফল ভাবে প্রয়োগ করে এর সুফল পাচ্ছেন।
 
বিমসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডভোকেট সমরেন্দ্রনাথ গোস্বামীর সভাপতিত্বে চাটার্ড ইনস্টিটিউট অব আরবিট্রেটর্স (ইউকে)’রকোর্স ডিরেক্টর ইনবাভিজান, আন্তর্জাতিকমেডিয়েটর কে এস শর্মা এবং বিমসের রিজওনাল ডিরেক্টর অ্যাক্রিডিটেডমেডিয়েটর ইরাম মজিদ, বিমসের সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট হরিদাস পাল, মুখপাত্র অ্যাডভোকেট মো. আলমগীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।
 
রাজধানীর একটি হোটেলে এ মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল মেডিয়েশন সোসাইটি (বিমস)। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডভোকেট সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী ও ভারতের সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাক্রিডিটেড মেডিয়েটর রাম মজিদ যৌথভাবে বইটি লিখেছেন।
 
এর আগে বিমসের দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক মানের বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্ধোধন ঘোষণা করা হয়।
 
ইত্তেফাক/কেকে
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫০
মাগরিব৫:৩১
এশা৬:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৬