সংস্কৃতি | The Daily Ittefaq

কণ্ঠশীলনের নতুন প্রণয়াখ্যান আবৃত্তি প্রযোজনা ‘কঙ্ক ও লীলা’

কণ্ঠশীলনের নতুন প্রণয়াখ্যান আবৃত্তি প্রযোজনা ‘কঙ্ক ও লীলা’
অনলাইন ডেস্ক০৭ অক্টোবর, ২০১৭ ইং ১০:৫৭ মিঃ
কণ্ঠশীলনের নতুন প্রণয়াখ্যান আবৃত্তি প্রযোজনা ‘কঙ্ক ও লীলা’
 
দর্শকে টইটুম্বর পাবলিক লাইব্রেরীর শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তন। তিল ধারণের ঠাই যেন নাই। মঞ্চায়ন হচ্ছে কঙ্ক আর লীলার অমর গাঁথা। প্রণয় কথাটাতে কেমন একটা অজানার ডাক পাওয়া যায়। এখানে আছে লুকোচুরি, মাদকতা, পৌরাণিকতার গন্ধ। তার সঙ্গে যদি যুক্ত হয় সুরের মূর্ছনা তাহলে তো একশতে একশ। আখ্যানের সপ্তরসের সবকটি রসকেই ধরতে পেরেছেন পাত্র-পাত্রীগন।
 
এ সার্থকতার ভাগ যেমন আছে চরিত্রদানকারী পাত্র-পাত্রীদের তেমনি এই আখ্যানের নির্দেশকেরও। সুর ছারা আখ্যান হয় না, বাংলার সব লোক আখ্যানে আছে কথার পরে কথা গেঁথে সেখানে সুরের বুননি। সঙ্গীত নির্দেশনা ও প্রণয়নে কাজ করেছেন অনামী ইসলাম কণক। 
 
মনে হয়েছে ময়মনসিংহ গীতিকার আদি রসের পুকুরে অবগাহন করে এসে, সুরারোপে মনোনিবেশ করেছন সংগীতকার। ইলা রহমানের পোশাক পরিকল্পনা আখ্যানের বিশ্বস্ততা বাড়িয়ে দিয়েছে বহুগুণ। আলোক নিয়ন্ত্রণের কাজটি নির্দেশক নিজের হাতেই রেখে দিয়েছিলেন, এতে করে নিজের চিন্তার পুরোটাই কাজে লাগাতে পেরেছেন বলে মনে হয়েছে। সব মিলিয়ে গানের দেশের গানের প্রযোজনা, ভাল লেগেছে এক ঘণ্টার পরিবেশনা কঙ্ক ও লীলা।
 
বাংলা সাহিত্যে ময়মনসিংহ গীতিকার আছে বিশেষ স্থান। ময়মনসিংহ গীতিকা বললেই দীনেশ চন্দ্র সেনের নাম আসে। দীনেশ চন্দ্র সেন সম্পাদিত ময়মনসিংহ গীতিকার কঙ্ক ও লীলা একটি অল্প পরিচিত আখ্যান। বিরহের রসে আঁকা আখ্যানটি বেছে নিয়েছেন তরুণ নির্দেশক লিটন বারুরি। লিটন এক দূর্বার যোদ্ধা, যিনি অসমাপ্তির প্রান্তিক থেকে বিজয়ী বীর। সুস্থ জনের জরাকে ধিক্কার দিয়ে নিজের অসম্পূর্ণতাকে সম্পূর্ণতায় পূর্ণ করে এগিয়ে চলেছেন। কঙ্গ ও লীলার নিদের্শনাকর্ম সেই এগিয়ে চলার আরো একটি মাইল ফলক। এই গাথার রচক চারিজন, দামোদও, রঘুসুত, নয়ানচাঁদ ও নাথ বেনিয়া। এর সংগ্রহ কাজটি করেছিলেন চন্দ্র কুমার দে। সম্পাদকের কথা তো আগেই বলেছি দীনেশ চন্দ্র সেন। এতগুলো মানুষের কর্ম একাই কাঁধে তুলে নিয়ে সফল হয়েছেন লিটন। 
 
অবশ্য এই কর্মের ভার যারা তার হাতে অর্পণ করেছেন তারাও সম্মানের ভাগিদার। কন্ঠশীলন অধ্যক্ষ মীর বরকত, গোলাম সারোয়ার আর যত কন্ঠশীলন সৈনিক। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত হয় কণ্ঠশীলন প্রযোজিত নতুন আবৃত্তি প্রযোজনা ‘কঙ্ক ও লীলা’র উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হয়।
 
ইত্তেফাক/আনিসুর
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩