সংস্কৃতি | The Daily Ittefaq

বিজয় দিবস সম্মাননা পেলেন শিশুসাহিত্যিক অদ্বৈত মারুত

বিজয় দিবস সম্মাননা পেলেন শিশুসাহিত্যিক অদ্বৈত মারুত
অনলাইন ডেস্ক২৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং ১১:১৮ মিঃ
বিজয় দিবস সম্মাননা পেলেন শিশুসাহিত্যিক অদ্বৈত মারুত
 
ছড়াসাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ক্যানভাস অব বাংলাদেশের দেওয়া ‘বিজয় দিবস সম্মাননা-২০১৭’ সম্মাননা পেলেন শিশুসাহিত্যিক অদ্বৈত মারুত। গতকাল শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘বিজয় দিবসের ৪৬ বছরে আমাদের প্রাপ্তি ও প্রত্যাশা’ শীর্ষক আলোচনা সভা শেষে সৃজনশীল, স্বেচ্ছাসেবী, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ক্যানভাস অব বাংলাদেশ বিশেষ সম্মাননা জানান এই শিশুসাহিত্যিককে।
 
বিশিষ্ট চিকিৎসক ও ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডা. এম ইয়াছিন আলীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্সের চেয়ারম্যান শেখ কবির হোসেন। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গায়ক ও গবেষক প্রাকৃতজ শামিমরুমি টিটন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডা. মো হাফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- চিত্রশিল্পী শহীদুল ইসলাম শহীদ, চিত্রশিল্পী আবদুল মান্নান ও অ্যাডভোকেট মো. মহাসিন চৌধুরী।
 
শেখ কবির হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, দেশে এখন রাজাকাররা গাড়িতে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে চলতে পারে না। রাজাকার, দেশবিরোধীদের নির্মূল করে দেশকে সোনার বাংলায় পরিণত করতে হবে। বাংলাদেশের জন্মসহ দেশের যা অর্জন হয়েছে তার সবই বঙ্গবন্ধুর কল্যাণে। তার জন্ম না হলে বাংলাদেশ নামক দেশটির জন্ম হতো না। তিনি আরও বলেন, মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিচার হচ্ছে। এর পেছনে যারা ছিল তাদেরও বিচারের আওতায় আনতে হবে। জাতি সেইসব কুলাঙ্গারদের নাম-পরিচয় জানতে চায়। তাদের কেউ মরে গেলেও মরণোত্তর বিচার করতে হবে।
 
সভাপতির বক্তৃতায় ডা. এম ইয়াছিন আলী বলেন, আগামী প্রজন্মকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণ করতে হবে। সোনার বাংলা গড়তে হবে। তিনি অনুষ্ঠানে আসা সব অতিথিকে শুভেচ্ছা জানান।
 
সমাজ ও রাষ্ট্রে বিশেষ অবদান রাখায় শিশুসাহিত্যিক অদ্বৈত মারুতসহ আরও যাদের হাতে সম্মাননা ও ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয় তারা হলেন- বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা মো. শাহজাহান আলী, নারী উদ্যোক্তা নুরেন দুরদানা ইপা, শিক্ষায় আমল শাইন, সমাজ সেবায় আদম তমিজি হক, আইন পেশায় অ্যাডভোকেট এবিএম বায়োজিত, তরুণ উদ্যোক্তায় রিফাত হোসেন, লেখক হিসেবে অ্যাডভোকেট মহসীন চৌধুরী, চিকিৎসায় ডা. আজিজুর রহমান, সাংবাদিকতায় ফাহিম আহমেদ, শামসুল হক রাসেল, ফখরুদ্দীন আহম্মেদ জুয়েল, আইসিটি সেক্টরে আরিফুল হাসান অপু, ব্যাংক পেশায় আহসান উল্লাহ খান নিপু, সমাজ সেবায় লায়ন শাখায়েত উল্লাহ আজাদ, মো. মাহফুজুর রহমান রিটন, আবাসন শিল্পে রমাজানুল হক নিহাদ, সংগঠক হিসেবে আজাহার মাহমুদ, শিক্ষায় কেএম নুরুল্লাহ হাসান। পরে শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
 
ইত্তেফাক/আনিসুর
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৪
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৫:৪৭সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩