শিক্ষাঙ্গন | The Daily Ittefaq

সিটি ইউনিভার্সিটিতে অনুমোদনহীন বিভাগে ভর্তি, শঙ্কায় ছাত্ররা

সিটি ইউনিভার্সিটিতে অনুমোদনহীন বিভাগে ভর্তি, শঙ্কায় ছাত্ররা
নিজামুল হক২৯ মার্চ, ২০১৭ ইং ১০:১৪ মিঃ
সিটি ইউনিভার্সিটিতে অনুমোদনহীন বিভাগে ভর্তি, শঙ্কায় ছাত্ররা
 
অনুমোদন নেই, অথচ বিএসসি ইন মেকানিক্যাল প্রোগ্রামে পুরোদমে শিক্ষার্থী ভর্তি চলছে। স্প্রিং সেমিস্টারে শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ভর্তি বাবদ আদায় করা হয়েছে ১০ হাজার ৫শ টাকা। অতিশিগগিরই ক্লাস শুরু হবে জানিয়ে দেয়া হয়েছে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের। কিন্তু শিক্ষার্থীরা পরে জানতে পারেন এই প্রোগ্রামের অনুমোদন না থাকার কথা। এ কারণেই শঙ্কায় পড়েছে শিক্ষার্থীরা। আশুলিয়ার সিটি ইউনিভার্সিটির চিত্র এটি। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) জানিয়েছে, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো বিভাগ/প্রোগ্রাম বা কোর্স চালু করতে হলে ইউজিসির অনুমোদন প্রয়োজন হবে। অনুমোদন ছাড়া শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে না।
 
ইউজিসির বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সিনিয়র সহকারী পরিচালক গোলাম মোস্তফা জানান, সিটি ইউনিভার্সিটির মেকানিক্যাল বিভাগের অনুমোদন নেই। কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন কোন বিভাগের অনুমোদন রয়েছে তার তালিকা ইউজিসির ওয়েবসাইটে দেয়া আছে। সিটি ইউনিভার্সিটি মেকানিক্যাল বিভাগ চালুর আবেদন করেছে কিনা, এমন তথ্য জানতে কমিশনের চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগের পরামর্শ দেন ইউজিসির এই কর্মকর্তা।
 
সিটি ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, বিষয়টি আশুলিয়া ক্যাম্পাসের ঘটনা। মেকানিক্যাল প্রোগ্রামের অনুমোদন নেই। তবে আবেদন করা হয়েছে এবং অতিদ্রুতই অনুমোদন পেয়ে যাবো। তিনি আরো বলেন, প্রতিযোগিতার মার্কেট। শিক্ষার্থীদের তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। অনুমোদনের পরে এদের ক্লাস শুরু হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।
 
আর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার ফারুক আহমেদ বলেন, যারা দূরের শিক্ষার্থী এবং অতি উত্সাহী হয়ে তারা তালিকাভুক্ত করেছে। দুএকজন শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারে। তিনি বলেন, এটি স্থায়ী সনদপ্রাপ্ত বিশ্ববিদ্যালয়। তাই কোনো অনিয়ম করবে না। 
 
অননুমোদিত প্রোগ্রাম বা কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তি না করা প্রসঙ্গে গত ২১ মার্চ একটি গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে ইউজিসি। ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিকট অতীতে কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কমিশনের অনুমোদন ছাড়াই বিভিন্ন প্রোগ্রাম/কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তির লক্ষ্যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করছে যা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন ২০১০ এর সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। কমিশনের অনুমোদন ছাড়া কোনো প্রোগ্রাম/কোর্সে শিক্ষার্থী ভর্তির লক্ষে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হলে কমিশন থেকে ওই প্রোগ্রামে/কোর্সের অনুমোদন দেয়া হবে না এবং ভর্তিকৃত কোনো শিক্ষার্থী দায় দায়িত্ব নেবে না। কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের এরূপ কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ততা জড়িত হলে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অননুমোদিত প্রোগ্রাম/কোর্সের নাম পত্রিকায় বিজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করা হবে এবং বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।
 
কমিশনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, অনুমোদন নেই, আবার বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেনি। কিন্তু গোপনে শিক্ষার্থী ভর্তি করেছে, এসবের ক্ষেত্রেও একই ধরনের অপরাধ হবে।
 
এ বিষয়ে ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নানের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
 
ইত্তেফাক/রাফাত
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৯
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪