শিক্ষাঙ্গন | The Daily Ittefaq

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে উত্তপ্ত জাবি

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে উত্তপ্ত জাবি
জাবি সংবাদদাতা১৭ জুলাই, ২০১৭ ইং ১৯:২৮ মিঃ
শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচিতে উত্তপ্ত জাবি
 
ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) ক্যাম্পাস। পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুরের অভিযোগে ৫৬ শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার দাবিতে টানা তিন দিন অনশন অব্যাহত রেখেছে শিক্ষার্থীরা। 
 
অন্যদিকে তাদের শাস্তির দাবিতে মৌন মিছিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরা। এই মিছিলের ব্যানার নিয়েও শুরু হয়েছে আরেক বিতর্ক। ব্যানারের নিচের দিকে পায়ের কাছের অংশে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি থাকায় তীব্র সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে সাধারণ শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে। 
 
জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গত শনিবার বেলা ২টার দিকে সর্দার জাহিদ নামে এক শিক্ষার্থী অনশনে বসেন। পরে বিকাল ৪ টার দিকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পূজা বিশ্বাস (৪০ তম আবর্তন) তার সঙ্গে যোগ দেন। রাত ১২ টায় যোগ দেন ইংরেজি বিভাগের তাহমিনা জাহান তুলি (৪২ তম আবর্তন)। রবিবার সকাল ৮টার দিকে যোগ দেন আইন ও বিচার বিভাগের খান মুনতাসির আরমান (৪৩ তম আবর্তন)। এরপর রাত ১১ টার দিকে যোগ দেন ফয়সাল আহমেদ রুদ্র। সোমবার যোগ দেন নাঈমুল আলম মিশু, তাসনুভা তাজিন ইভা ও রাতুল খালিদ। 
 
ইতোমধ্যে শনিবার থেকে আমরণ অনশনে যাওয়া ৩ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদেরকে এ পর্যন্ত কয়েকবার স্যালাইন দেওয়া হয়েছে।
 
কর্তব্যরত বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেলের চিকিৎসক ডা. বীরেন্দ্র কুমার বিশ্বাস বলেন, ‌‘অনশনকারী সবাই বেশ ক্লান্ত হয়ে পড়েছে। এদের মধ্যে পূজা এবং জাহিদের শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে। তাদেরকে যত দ্রুত সম্ভব হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে।’
 
এদিকে গত রবিবার বিকালে এক জরুরি সিন্ডিকেট সভায় অনশন প্রত্যাহারের আহ্বান জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 
 
এ বিষয়ে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আমির হোসেন বলেন, মামলা আদালতের অধীনে চলে যাওয়ায় এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে তুলে নেয়া সম্ভব নয়। তবে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে সমঝোতার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হতে পারে।’
 
শিক্ষার্থীদের শাস্তির দাবিতে শিক্ষকদের মিছিল সম্পর্কে প্রো-ভিসি অধ্যাপক আবুল হোসেন বলেন, মিছিল হয়েছে শুনেছি। কিন্তু ক্যম্পাসের বাহিরে থাকায় ব্যানারের মধ্যে কি ছিলো এ বিষয়ে বলতে পারবো না। 
 
প্রসঙ্গত, গত ২৬ মে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় প্রায় ৬ ঘণ্টা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরে বিকালে পুলিশ রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ছুড়ে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। পরে পুলিশি হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসভবনে গিয়ে ভাঙচুর ও কয়েকজন শিক্ষককে লাঞ্ছিত করেন বলে অভিযোগ উঠে। এ ঘটনায় ৩১ শিক্ষার্থীর নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামাসহ মোট ৫৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। 
 
ইত্তেফাক/কেকে
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ফজর৪:৫৮
যোহর১১:৪৫
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:১৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০