ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ১২ চৈত্র ১৪২৫
২৫ °সে

রাকসুর গঠনতন্ত্র সংশোধনের প্রস্তাব ছাত্র মৈত্রীর

রাকসুর গঠনতন্ত্র সংশোধনের প্রস্তাব ছাত্র মৈত্রীর
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মেইন গেট।(ফাইল ছবি)

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (রাকসু) গঠনতন্ত্র সংশোধন ও সংযোজনের প্রস্তাব করেছে বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর নেতাকর্মীরা। গতকাল রবিবার বিকেলে রাকসু সংলাপ কমিটির সঙ্গে অনুষ্ঠিত আলোচনায় তারা এই প্রস্তাবনাসহ দশটি দাবি নিয়ে কথা বলেন।

প্রস্তাবনায় তারা বলেন, রাকসুর ২নম্বর ধারায় বর্ণিত লক্ষ্য-উদ্দেশ্যে শিক্ষার্থীদের অধিকার, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ এবং রাজনৈতিক বিকাশ সম্পর্কিত ধারা যুক্ত করতে হবে এবং ধারা- ৬ এ বর্ণিত বিভিন্ন পদের নাম পরিবর্তনের পাশাপাশি পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক, আদিবাসী ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক, মুক্তিযুদ্ধ সম্পাদক, আন্তর্জাতিক সম্পাদক এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক যুক্ত করতে হবে।

এছাড়া তাদের দাবিগুলো হল- সুষ্ঠু, প্রভাবমুক্ত রাকসু নির্বাচনের লক্ষ্যে কার্যকরি ছাত্র সংসদ করতে সভাপতি ও কার্যনির্বাহী সদস্যের মধ্যে ক্ষমতার ভারসাম্য আনতে হবে, ভোটকেন্দ্র একাডেমিক ভবনসমূহে স্থাপন করতে হবে, নির্বাচনের লক্ষ্যে দ্রুত ভোটার তালিকা হালনাগাদ করতে হবে, নির্বাচনের আচরণবিধি ও তফসিল ঘোষণা করতে হবে, তফসিল ঘোষণার আগেই রাকসু ও হল সংসদ নিয়মিত ফি প্রদানকারী শিক্ষার্থীদের ভোটার ও প্রার্থী হওয়ার অধিকার নিশ্চিত করতে হবে, রাজনৈতিক সহাবস্থান ও গণতান্ত্রিক ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য সকল ত্রিুয়াশীল সংগঠনকে নিয়ে পরিবেশ পরিষদ গঠন করতে হবে, নির্বাচন উপলক্ষ্যে ক্রিয়াশীল সকল ছাত্র সংগঠনের পরামর্শক্রমে শিক্ষকদের মধ্যে থেকে নিরপেক্ষ্য পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে।

রাবি বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ফিদেল মনির বলেন, রাকসুর গঠনতন্ত্র ১৯৬০ এর দশকে রচনা হয়েছিলো। বর্তমানে গঠনতন্ত্রকে যুগোপযোগী করতে সংশোধন ও সংযোজন দরকার। যা নির্বাচনে গণতান্ত্রিক পরিবেশ, শিক্ষার্থীদের ভোটাধিকার নিশ্চিত ও কার্যকর ছাত্র সংসদ গঠনে ভূমিকা রাখবে বলে আমি মনে করি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান বলেন, ‘বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর প্রস্তাবনা ও দাবিগুলো যৌক্তিক। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে পরামর্শ সাপেক্ষে আমরা পদক্ষেপ নেবো।’

আরও পড়ুন: জামায়াতের সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ

সভায় সংলাপ কমিটির আহ্বায়ক প্রক্টর অধ্যাপক মো. লুৎফর রহমান, কমিটির সদস্য সচিব সহকারী প্রক্টর আবু সাঈদ মো. নাজমুল হায়দার, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ফিদেল মনির, সাধারণ সম্পাদক রনজু হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌল টুডু, সদস্য ফরিদা ইয়াসমিন, সুমন হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। আগামী ২০ ফেব্রুয়ারি রাবি ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের সঙ্গে সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৬ মার্চ, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন