ঢাকা শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫
২৬ °সে

নিঃশ্বাস পরীক্ষায় ক্যান্সার শনাক্ত!

নিঃশ্বাস পরীক্ষায় ক্যান্সার শনাক্ত!
ছবি: সংগৃহীত

অনিয়ন্ত্রিত কোষ বিভাজন সংক্রান্ত রোগের সমষ্টি ক্যান্সার। ক্যান্সারে মৃত্যুর হার তুলনামূলকভাবে বেশি, কারণ এখন পর্যন্ত ক্যান্সার চিকিৎসায় কার্যকরী কোনো চিকিৎসা আবিষ্কৃত হয়নি। ক্যান্সার চিকিৎসার ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় ক্যান্সার শনাক্তকরণ। প্রাথমিক অবস্থায় ক্যান্সার শনাক্ত করতে পারলে রোগ থেকে মুক্তির সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

আশার কথা, বিজ্ঞানীরা ক্যান্সার শনাক্তের জন্য নিত্য-নতুন কৌশল আবিষ্কারের চেষ্টা করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় এবার যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজের ক্যান্সার গবেষকরা জানিয়েছেন, তারা এমন এক পদ্ধতি আবিষ্কারের চেষ্টা করছেন যার মাধ্যমে কেবল নিঃশ্বাস পরীক্ষা করেই ক্যান্সার শনাক্ত করা যাবে!

গবেষকরা জানিয়েছেন, প্রাথমিক অবস্থায় এখন পরীক্ষামূলকভাবে এর কার্যকারিতা যাচাই করে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। নিঃশ্বাসের অণুসমূহ পরীক্ষা করে কয়েক ধরনের ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ শনাক্তের চেষ্টা করছেন তারা। এ পদ্ধতি যদি সফল হয়, তা হলে চিকিৎসকরা শুরুতেই নির্ধারণ করতে পারবেন ঐ রোগীর আরো বিশদ পরীক্ষা-নিরীক্ষার দরকার আছে কি না। গবেষকরা এ জন্য ১ হাজার ৫শ মানুষের নিঃশ্বাসের নমুনা সংগ্রহ করবেন, এর মধ্যে ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীও রয়েছেন। এর ফলে ক্যান্সারে আক্রান্তদের মৃত্যুর হার অনেকটা কমে যাবে। তবে এ পরীক্ষার ফলাফল জানার জন্য দুই বছর অপেক্ষা করতে হবে। চিকিৎসকরা বলছেন, এ পরীক্ষা জেনারেল ফিজিসিয়ানের মতো সাধারণ জায়গায় হওয়ার সম্ভাবনা কম।

কীভাবে কাজ করবে এ পরীক্ষা : মানুষের শরীরের কোনো কোষে কোনো রকম প্রাণ-রাসায়নিক পরিবর্তন ঘটলে সেটি নিঃশ্বাসে ভোলাটাইল অরগ্যানিক কমপাউন্ডস নামে এক ধরনের অণু নিঃসৃত হয়। যদি তাতে ক্যান্সার বা অন্য কোনো রোগের আভাস থাকে, তা হলে কোষের স্বাভাবিক ধরনে পরিবর্তন আসে এবং ভিন্ন ধরনের অণু তৈরি করে এবং গন্ধের মাধ্যমে ভিন্ন বার্তা পাঠায় মস্তিষ্কে। নিঃশ্বাসের বায়োপসি করার মধ্যদিয়ে নিঃশ্বাস পরীক্ষা করে মুখের গন্ধের এ প্রক্রিয়াটি চিহ্নিত করার চেষ্টা করছেন গবেষক দলটি।

আরো পড়ুন: পেটের মেদ ঝরানোর যত উপায়

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, নতুন এ পদ্ধতি মাত্র পরীক্ষা করে দেখা শুরু হয়েছে। ফলে এর সফলতা নিয়ে নিশ্চিত কিছু বলতে হলে কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হবে। তবে যে পদ্ধতির মাধ্যমে এ পরীক্ষা করা হচ্ছে, সেটা চিকিৎসা বিজ্ঞানের জগতে নতুন নয়। কয়েক বছর যাবৎ পৃথিবীর অনেক গবেষকই বিশেষ করে ফুসফুসের ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ শনাক্ত করার জন্য এ পদ্ধতি ব্যবহার করছেন।

এর আগে গত বছর জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি দল, রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমেই বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সার শনাক্ত করে চিকিত্সা দেয়ার পদ্ধতি উদ্ভাবন করে। ঐ পরীক্ষায় ৫শ ডলারের মতো খরচ হবে। কিন্তু তার তুলনায় এ পরীক্ষাতে খরচ কম হবে কি না তা এখনো জানা যায়নি।—বিবিসি।

ইত্তেফাক/মোস্তাফিজ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৩ মার্চ, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন