জাতীয় | The Daily Ittefaq

রান্না ঘর এখনো ছাড়েননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

রান্না ঘর এখনো ছাড়েননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
বিশেষ প্রতিনিধি২১ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং ২০:০৮ মিঃ
রান্না ঘর এখনো ছাড়েননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখনোও রান্না ঘর ছাড়েননি। হাজার ব্যস্ততার মাঝেও হাতে কিছুটা সময় পেয়েই রান্না ঘরে ঢুকে রান্না করেন তিনি। শনিবার গণভবনে রান্না করার দুটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়। প্রশংসাসূচক বাক্য লিখে ছবি দুটি শেয়ার করতে থাকেন অনেকেই। এ ছবিই যেন প্রমাণ করে দেশ সেবার দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি নিজ ঘরেও কতটা সহজে অতি সাধারণ হয়ে উঠতে পারেন তিনি।
 
ওই দুই ছবিতে দেখা যায়, প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনের রান্নাঘরে রান্না করছেন শেখ হাসিনা। এর আগে ২০১৩ সালের জুলাই মাসের শেষ দিকে ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের জন্য রান্না ঘরে ঢুকে রান্না করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছেলের জন্মদিন উপলক্ষ্যে করা প্রধানমন্ত্রীর ওই রান্নার ছবিও তখন ভাইরাল হয় ফেসবুকে। সেই সময় জন্মদিনে মায়ের হাতের পোলাও নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিয়েছিলেন সজীব ওয়াজেদ। সেখানে তিনি লিখেছিলে, ‘প্রধানমন্ত্রী আমার জন্য মোরগ-পোলাও রান্না করছেন। আমি যত পোলাও খেয়েছি, তার রান্নাই সবচেয়ে সেরা।’ 
 
 
পুরনো ছবিতে দেখা গিয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী রান্নাঘরে রান্না করছেন। তিনি একহাতে কাঠের খুন্তি দিয়ে একটিপাতিলে মাংস নাড়ছেন, অন্যহাতে ওই পাতিলের আরেকটি অংশ ধওে রেখেছেন। সাদা শাড়ির ওপর একটি রান্নার অ্যাপ্রোন গায়ে জড়ানো প্রধানমন্ত্রী খোঁপা করা চুল আটকে রেখেছেন দুটি ক্লিপ দিয়ে। 
 
নতুন ছবিতে দেখা গেছে, সাদা-ছাই রঙ্গা শাড়ির উপর বেগুনী রঙের অ্যাপ্রোন জড়িয়ে নিবিষ্ট মনে দুটো পাতিলে কাঠের খুন্তি দিয়ে নাড়ছেন শেখ হাসিনা। একটি ছবিতে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে হাসছেন আরেকটি ছবিতে দেখা গেছে, শেখ হাসিনা খুব মনোযোগ দিয়ে রান্না করছেন। 
 
 
প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সময় পেলেই পরিবারের সঙ্গে সময় কাটান প্রধানমন্ত্রী। শনিবার সাপ্তাহিক ছুটির দিনে কিছুটা সময় পেয়ে তিনি ঢুকে পড়েন রান্নাঘরে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, পৃথিবীর অন্যতম প্রভাবশালী এবং ব্যস্ত নারী শেখ হাসিনা। কাজের অসীম ব্যস্ততা; কিন্তু সুযোগ পেলেই হয়ে উঠেন একজন সাধারণ বাঙালি নারী; ঢুকে যান রান্না ঘরে।
 
অসাধারণ শেখ হাসিনা প্রায়ই সাধারণ হয়ে উঠতে ভলোবাসেন। নিরাপত্তার কঠোর বেড়াও তিনি মানেন না কখনও কখনও। এর আগে বাবার বাড়ি গোপালগঞ্জের  টুঙ্গিপাড়ায় নাতি-পুতিসহ ইমাম শেখ নামে এক ভ্যানওয়ালার ভ্যানে চড়ে গ্রাম বেড়িয়ে আলোচনার ঝড় তোলেন শেখ হাসিনা। পরিবারের সদস্যদের সাথে নিবিড় সম্পর্ক কাটানোর সময় খুব বেশি পান না শেখ হাসিনা। তবে সুযোগ পেলে কী পরিমাণ আবেগি হয়ে উঠেন তার প্রমাণ রেখেছেন গত বছর সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে একমাত্র বোন শেখ রেহানার সাথে তুষারপাত থেকে সৃষ্ট বরফ টুকরো নিয়ে বড় বোন সুলভ দুষ্টুমি করে।
 
 
তখন ছবিতে দেখা গিয়েছিল, শেখ হাসিনা বোনের মাথায় নরম বরফ টুকরো ঢেলে দিচ্ছেন। পৃথিবীর দীর্ঘতম সাগর সৈকত কক্সবাজারে সাগরের নীলজলে হেঁটে বেড়ানোর ছবিও ফেসবুক সহ নানা মাধ্যমে দারুণ সব সংবাদ আর ফিচারের জন্ম দিয়েছিল। যখন শেখ হাসিনা ছিলেন একেবারেই সাধারণ একজন মানুষ, সেই সময়ে তার শিল পাটায় মশলা বাটার সাদাকালো ছবিটা এখনও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ায়।
 
ইত্তেফাক/ রেজা আকাশ
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩১
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৫
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪