জাতীয় | The Daily Ittefaq

১৫ আগস্ট দিনটি লজ্জার ও কলঙ্কের: দুদক চেয়ারম্যান

১৫ আগস্ট দিনটি লজ্জার ও কলঙ্কের: দুদক চেয়ারম্যান
ইত্তেফাক রিপোর্ট১৫ আগষ্ট, ২০১৮ ইং ১৯:১৭ মিঃ
১৫ আগস্ট দিনটি লজ্জার ও কলঙ্কের: দুদক চেয়ারম্যান
ফাইল ছবি
দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস যেমন সত্য, তেমনি এই দিনটি লজ্জার এবং কলঙ্কেরও দিন। কারণ আমি এমন একটি দেশের নাগরিক যে দেশের মানুষের জন্য বঙ্গবন্ধু জীবনের সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ করেছেন, সেই দেশেরই কতিপয় বিপথগামী সেনা সদস্য তাকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। বঙ্গবন্ধুকে আমরা রক্ষা করতে পারিনি, এই কলঙ্ক জাতি হিসেবে মোচন করা সম্ভব নয়। এমনকি এ কলঙ্ক ভবিষ্যতে হাজার বছর পরের প্রজন্মকেও বহন করতে হতে পারে। দেশের মানুষের দারিদ্র্য, ক্ষুধা ও অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধু যে সংগ্রাম শুরু করেছিলেন সেই সংগ্রামে নিজেদের আত্মনিয়োগ করতে পারলে জাতির এই লজ্জা বা কলঙ্ক কিঞ্চিৎ পরিমাণ হলেও লাঘব হবে। 
 
বুধবার দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।
 
৭৫ সালের ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দুদক চেয়ারম্যান আরও বলেন, ১৫ আগস্ট আত্মোপলব্ধির দিন, আজ আমাদের নিজেকে নিজেদের জিজ্ঞাসা করতে হবে গত ১৫ আগস্ট থেকে আজকের ১৫ আগস্ট অর্থাৎ গত ১ বছরে মানুষের অর্থনৈতিক মুক্তি, সামাজিক বৈষম্য থেকে মুক্তি, অর্থনৈতিক বৈষম্যহীন দেশ গড়ার জন্য আমরা কতটুকু করেছি। এই প্রশ্নের জবাবের মাধ্যমেই নিজের মূল্যায়নের উত্তর পাবেন।
 
তিনি বলেন, আমাকে আশার আলো দেখায় নতুন প্রজন্মের শিশু, কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণীর উজ্জল মুখ,  যারা আমাদের ব্যর্থতা দেখিয়ে দেয়। এই প্রজন্মই সত্যিকারার্থে জাতির পিতার আদর্শকে হৃদয়ে ধারণ করে। সত্যিই আমি এই প্রজন্মের শিশু-কিশোরদের দেখে আশাবাদী। এরাই জাতির পিতার স্বপ্নের অর্থনৈতিক, সামাজিক বৈষম্য মুক্তির সংগ্রামকে আদর্শ হিসেবে লালন করে, বৈষম্যহীন সমাজ বিনির্মাণ করবে।
 
দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আজকে শপথ নেওয়ার দিন, শোককে শক্তিতে পরিণত করে দুর্নীতি নামক অশুভ শক্তির লাগাম টেনে ধরতে হবে। আমরা যে যেখানে যে অবস্থাতেই থাকিনা কেন আগামী প্রজন্মের সোনালী ভবিষ্যৎ এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে একই সুতায় গেঁথে দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুঁখে দাঁড়াই।
 
শোকসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দুদক কমিশনার এ এফ এম আমিনুল ইসলাম, মহাপরিচালক মোহাম্মদ জয়নুল বারী, পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন, উপপরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী প্রমুখ।
 
আলোচনাসভা শেষে  জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালো রাত্রে পরিবারের যে সকল সদস্য ও আত্মীয়-স্বজন শহীদ হয়েছেন তাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন দুদকের উপপরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম।
 
ইত্তেফাক/এমআই
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩১
যোহর১১:৫২
আসর৪:১৫
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪