জাতীয় | The Daily Ittefaq

গণপরিবহন এখনো বেপরোয়া

গণপরিবহন এখনো বেপরোয়া
ইত্তেফাক ডেস্ক৩০ আগষ্ট, ২০১৮ ইং ০১:২৪ মিঃ
গণপরিবহন এখনো বেপরোয়া
সড়ক নিরাপত্তায় ব্যাপক আন্দোলনের পরও দেশে সড়ক ব্যবস্থাপনায় শৃঙ্খলা ফিরেনি। গণপরিবহন চালকদের বেপরোয়া দৌরাত্ম্য একটুও কমেনি। প্রতিদিনই সড়কে ঝরছে নিরীহ প্রাণ। গত ২৪ ঘন্টায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ১৩ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু ঘটেছে। আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক।
 
রাজধানীর মোহাম্মদপুরে গাড়িচাপায় এক শিশু ও নাখালপাড়া ক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় এক যুবক নিহত হয়েছে। কক্সবাজারের চকরিয়ায় এক আওয়ামী লীগ নেতার জীপের ধাক্কায় ছাত্রলীগ নেতা, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এনা পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে তিনজন, নরসিংদীর শিবপুরে একই পরিবহনের বাসের চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এছাড়া বরিশাল, সিরাজগঞ্জ, গাইবান্ধা ও মাগুরায় ৫ জন  নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। 
 
জিপচাপায় শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু :ইত্তেফাক রিপোর্টার জানান, গতকাল বুধবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরে বাবর রোডের ১৯/৬ নম্বর বাড়ির সামনে পার্কিংয়ে গাড়িচাপায় পায়েল নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে গাড়ি পার্কিং এলাকায় পায়েলকে রেখে তার মা পাঁচতলার ফ্ল্যাটে কাজ করতে যান। পায়েল পার্কিং এলাকায় একা একা খেলছিল। এরই মধ্যে একটি জিপ গাড়ি পার্কিং করতে সেখানে প্রবেশ করে। জিপ গাড়িটি পিছনে ঘুরাতে গেলে চাকায় পিস্ট হয় পায়েল। ওই ভবনের কেয়ারটেকার পায়েলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই মর্মান্তিক ঘটনার পর পায়েলের মা সোনালী রায় বার বার মূর্চ্ছা যান। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠিয়েছে। টয়োটা কোম্পানির হ্যারিয়ার মডেলের গাড়িটির মালিক আনোয়ার হোসেন। তিনি ওই বাড়ির একটি ফ্ল্যাটের বাসিন্দা।
 
মোহাম্মদপুর থানার এসআই অপূর্ব কুমার বর্মন জানান, পায়েলের বাবার নাম প্রদীপ চন্দ্র। পরিবারের সঙ্গে মোহাম্মদপুর জেনেভা ক্যাম্পে থাকতো পায়েল। বাবর রোডের ওই বাড়ির পাঁচতলায় শশীর ফ্ল্যাটে গৃহপরিচারিকার কাজ করেন সোনালী। সকালে পায়েলকে নিয়ে ওই বাসায় কাজে গেলে এই দুর্ঘটনা ঘটে। শিশুটিকে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিত্সকরা জানান যে আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।
 
মোহাম্মদপুর থানার ওসি জালাল উদ্দিন মীর বলেন, ঘটনার পর ওই জিপ গাড়িসহ চালক আবুল হোসেনকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হবে বলে তিনি জানান।
 
এদিকে একইদিন বিকালে তেজগাঁওয়ের নাখালপাড়ায় ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত এক যুবকের (২৫) মৃত্যু হয়েছে। তার পরনে ছিল ট্রাউজার ও একটি হাফ হাতা গেঞ্জি। প্রত্যক্ষদর্শী রিয়াদ জানান, কমলাপুর থেকে ছেড়ে আসা একটি ট্রেন নাখালপাড়ার কাছে একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে ওই রিকশায় থাকা ওই যুবক গুরুতর আহত হন। অটোরিকশা চালক লাফ দিয়ে প্রাণে রক্ষা পান। দ্রুত যুবককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিত্সক মৃত ঘোষণা করেন।
 
আওয়ামী লীগ নেতার জিপের ধাক্কায় ছাত্রলীগ নেতা নিহত
 
চকরিয়া (কক্সবাজার) সংবাদদাতা জানান,  চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়া উপজেলার মালুমঘাট ছগির শাহকাটা দরগাহ গেট এলাকায় গতকাল  বেলা ১২টার দিকে চকরিয়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম লিটুর পাজেরো জিপের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী ছাত্রলীগ নেতা পাবেল রহমান সবুজ (১৮) নিহত হয়েছেন। অপর আরোহী নাবিউল আরাফাতকে গুরুতর অবস্থায় চমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত পাবেল চকরিয়া পৌরসভার পশ্চিম দিগরপানখালী এলাকার জানে আলমের ছেলে ও ৯ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। আহত নাবিউল একই এলাকার মৃত শাহ আলমের ছেলে ও একই ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি। মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ পরিদর্শক আলমগীর হোসেন জানান, ঘাতক গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে।
 
বাস খাদে, মা-মেয়ে ও এক শিশুর মৃত্যু
 
ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে মহাসড়কের শাহবাজপুর ইউনিয়নের বৈশামুড়া এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে এনা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে তিনজন নিহত ও ৩০ জন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, বাসের যাত্রী রোবিনা নূর (৫০), তার মেয়ে সাবিনা নূর (৩২) ও  ইয়াছিন নামের ৭ মাসের এক শিশু। পুলিশ জানায়, নিহতদের বাড়ি মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায়। আহতরা হলেন, বাবুল, সাকির,  হাফিজ, মনোয়ারা, ফয়সাল, রেহেনা, রাশেদ, হোসেন, গিয়াস, বাবুল,  সালাউদ্দিন,  জাহাঙ্গীর, সুমন ও খায়ের। অন্যদের পরিচয় জানা যায়নি। খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হোসেন সরকার জানান, সিলেটগামী এনা পরিবহনের বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈশ্বামুড়া এলাকায় মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে  গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
 
বাসচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
 
নরসিংদী প্রতিনিধি জানান, নরসিংদীর শিবপুরে এনা পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসের চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের আমতলায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, গাজীপুরের কাপাসিয়া এলাকার খিড়াটি গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে মেহেদী হাসান (২৫) ও একই গ্রামের কফিলউদ্দিনের ছেলে রোমান (২৪)। ঘটনার পরপরই উত্তেজিত জনতা সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বাস ভাঙচুরের চেষ্টা করেন। সৃষ্টিগড় থেকে বাসটি আটক করেছে হাইওয়ে পুলিশ।
 
ইটাখোলা হাইওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান জানান, এনা পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি আরেকটা গাড়িকে ওভারটেক করার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেলের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। মোটরসাইকেলটি বাসের নিচে চলে গেলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।
 
বরিশাল অফিস জানায়, সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে শেবাচিম হাসপাতালে চিকিত্সাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন, বরগুনার বেতাগী উপজেলার চান্দুখালীর বকুলতলী গ্রামের আবু হানিফের পুত্র লিটন মিয়া (৩৫) ও বরিশালের বন্দর থানাধীন সাহেবেরহাট এলাকার বাচ্চু হাওলাদারের পুত্র কবির হোসেন (৭)।
 
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ সড়কের কড্ডায় মঙ্গলবার রাত ১১ টার দিকে যাত্রীবাহী বাস ও ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে একজন নিহত ও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। নিহত শাহদাত হোসেন (৩৬) সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার মাহমুদপুর মহল্লার হাবিবুর রহমানের ছেলে। আহতদের মধ্যে পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার বড় গুয়াখারা গ্রামের গোলজার হোসেনের ছেলে আরিফুর রহমান, একই গ্রামের আতিকুর রহমানের মেয়ে রাজিয়া খাতুন ও নাটোর জেলার গুরুদাস পুরের আবুসামার ছেলে মিলনকে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
 
শ্রীপুর (মাগুরা) সংবাদদাতা জানান, শ্রীপুর উপজেলার নলখোলা গ্রামের শাহীনুর জোয়াদ্দার সোহান (২৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহত যুবক ওই গ্রামের আজমল জোয়াদ্দারের পুত্র। তারাউজিয়াল গ্রামে সড়কের গতিরোধক অতিক্রম করতে গিয়ে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাকা সড়কে উপর ছিটকে পড়লে তিনি গুরুতর আহত হন। মাগুরা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু ঘটে।
 
গাইবান্ধা প্রতিনিধি জানান, সাদুল্লাপুরে ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সার ধাক্কায় তারা বাণু বেওয়া (৫০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। গতকাল সকালে গাইবান্ধা-সাদুল্লাপুর সড়কের সাদুল্লাপুর পাবলিক লাইব্রেরি সংলগ্ন অটোস্ট্যান্ড এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তারা বাণু বেওয়া উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের বসনিয়াপাড়ার মৃত মনছুর প্রামাণিকের স্ত্রী।  
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩২
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৬
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬