রাজনীতি | The Daily Ittefaq

সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন : ন্যাপ

সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন : ন্যাপ
অনলাইন ডেস্ক১১ অক্টোবর, ২০১৭ ইং ১৯:৩৫ মিঃ
সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকারের অধীনেই নির্বাচন : ন্যাপ
 
সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকারের অধীনেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালিত হবে। অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ) আজ বুধবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়ে স্বাধীনতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধী দল বা ব্যক্তি যেন কোনভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না পারে সেজন্য আইন সংস্কারের দাবিসহ ১৬ টি সুপারিশ করেছে। 
 
দলের কার্যকরী সভাপতি মিসেস আমেনা আহমেদ এমপি’র নেতৃত্বে ১৮ সদস্যের প্রতিনিধিদল সংলাপে অংশ নেয়।
 
আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংলাপে নির্বাচন কমিশনারবৃন্দ, ইসি সচিবালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ও সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
 
ন্যাপের লিখিত প্রস্তাবগুলো হলো- নির্বাচনে ‘স্ট্রাইকিং ফোর্স’ হিসেবে বিশেষ প্রয়োজনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা কমিশনের এখতিয়ার। এ বিষয়টি অহেতুক বিতর্ক জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াবে। সংরক্ষিত নারী আসনে সরাসরি ভোটের ব্যবস্থা এবং নারী আসন ৩৩ শতাংশে উন্নীত করা, ইসির উদ্যেগে প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণা, পোষ্টার, নির্বাচনী সভার তারিখ স্থান নির্ধারণ ও ভোটার স্লিপ বিতরণের ব্যবস্থা করা, মাস্তানির দৌরাত্ম্য এবং টাকার অপব্যবহার বন্ধে আইন সংস্কার, সম্ভব হলে সকল ভোট কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, নির্বাচনী জামানত ১০ টাকার মধ্যে সীমিত রাখা, নির্বাচনে ‘না’ ভোট রাখা, প্রার্থীদের হলফনামা এনবিআর ও দুদকের মধ্যেমে যাচাই-বাছাই করা, আগামী নির্বাচনের আগে সীমানা পুনর্নির্ধারণ না করা, অনলাইনে মনোনয়নপত্র জমার ব্যবস্থা করা, সংবাদকর্মী এবং ভোটারদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা, আচরণবিধি না মানলে প্রার্থিতা বাতিলসহ এক বছরের কারাদন্ডের বিধান করা এবং নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী প্রার্থীরা নির্বাচনী ব্যয় বাবদ নির্দিষ্ট অর্থ কমিশনে জমা দেয়া।
 
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে অংশীজনদের সঙ্গে সংলাপ শুরু করে নির্বাচন কমিশন। ৩১ জুলাই সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, ১৬ ও ১৭ আগস্ট গণমাধ্যম প্রতিনিধির সঙ্গে সংলাপ করেছে ইসি। ২৪ আগস্ট থেকে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে মতবিনিময় শুরু হয়েছে। আজ সকালে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সঙ্গে সংলাপে বসে কমিশন। কমিশন এ পর্যন্ত ৩০টি দলের সঙ্গে সংলাপে বসেছে।
 
আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি ও বিকেল ৩টায় গণতন্ত্রী পার্টির সাথে কমিশন সংলাপে বসবে। বাসস
 
ইত্তেফাক/কেকে
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১২ নভেম্বর, ২০১৭ ইং
ফজর৫:০৯
যোহর১১:৫২
আসর৩:৩৭
মাগরিব৫:১৬
এশা৬:৩৪
সূর্যোদয় - ৬:৩০সূর্যাস্ত - ০৫:১১