রাজনীতি | The Daily Ittefaq

নির্বাচনকালীন সরকার সংবিধানে নেই: মওদুদ

নির্বাচনকালীন সরকার সংবিধানে নেই: মওদুদ
ইত্তেফাক রিপোর্ট১৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং ১৯:০৪ মিঃ
নির্বাচনকালীন সরকার সংবিধানে নেই: মওদুদ
ফাইল ছবি
সরকারের চার বছর পূর্তিতে জাতির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সমালোচনা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, সংবিধান অনুযায়ী ভোটের কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনকালীন সরকার গঠনের বিষয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন সেটি সংবিধানে নেই। তার দাবি, প্রধানমন্ত্রী বিএনপির নির্বাচনকালীন নির্দলীয় দাবি নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াতেই এই কৌশল নিয়েছেন। 
 
প্রধানমন্ত্রী শুক্রবার তার ভাষণে বলেছেন, নির্বাচনকালীন সময়ে একটি সরকার গঠন করা হবে। কিন্তু নির্বাচনকালীন সময়ের জন্য কোনো সরকার গঠন করার কোনো ব্যবস্থা এই সংবিধানে নাই। এ কথাটা বলে তিনি জনগণকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করেছেন। মূল কথা হলো যে, এই দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে, সেটাই তিনি বলার চেষ্টা করেছেন।
 
শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট আয়োজিত ‘বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা ও গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক প্রতিবাদী আলোচনা সভায় তিনি এসব বলেন।
 
মওদুদ বলেন, নির্বাচনের জন্য যে পরিবেশের প্রয়োজন, সে কথা প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে বলেন নাই। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমরা প্রত্যাশা করি, সকল কিছুর উর্ধ্বে উঠে জনগণের যে ইচ্ছা তার প্রতিফলন ঘটাবেন। তিনি সকল মানুষের জন্য এমন পরিবেশন তৈরি করবেন যাতে সবাই তাকে বাহবা দিতে পারে। আমরা আজকে তাকে অভিনন্দন জানাতাম। যদি তিনি তার ভাষণে একটি নির্দলীয় ও একটি নিরপেক্ষ সরকারের রূপরেখা দিতেন। কি করে নির্বাচন হবে-এমন প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, একটি দল নির্বাচনী প্রচারণায় নেমে গেছে। আর আমাদের গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। কোনো সভা-সমাবেশ করতে দেওয়া হয় না।
 
মওদুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার ভাষণে যদি নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকারের রূপরেখা দিতেন আমরাও বাহবা দিতাম। কাজেই তার জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণ জনগণের গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেননি। তিনি বলেন, মাজদার হোসেন মামলার রায়ের মাধ্যমে বিচারবিভাগ পৃথকীকরণের মৃত্যু হয়েছে, তা বলেননি। দেশের গণতন্ত্র, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নেই তাও বলেননি। বর্তমান সংসদে অনির্বাচিত সংসদ সদস্য বেশি। কী করে তারা নির্বাচিত হলেন জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী তা বলতেও ভুলে গেছেন।
 
এলডিপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিমের সভাপতিত্বে আলোচনায় বিএনপি নেতা মুজিবুর রহমান সারোয়ার, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, খালেদা ইয়াসমিন, ন্যাপ মহাসচিব এম গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, এনডিপি নেতা মঞ্জুর হোসেন ঈসা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
 
ইত্তেফাক/এমআই
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৯ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং
ফজর৫:২৩
যোহর১২:১০
আসর৪:০০
মাগরিব৫:৩৯
এশা৬:৫৫
সূর্যোদয় - ৬:৪২সূর্যাস্ত - ০৫:৩৪