রাজনীতি | The Daily Ittefaq

‌'সংসদে থাকা দলগুলোকে নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার হতে হবে'

‌'সংসদে থাকা দলগুলোকে নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার হতে হবে'
ইত্তেফাক রিপোর্ট২৪ মার্চ, ২০১৮ ইং ১৮:৪২ মিঃ
‌'সংসদে থাকা দলগুলোকে নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার হতে হবে'
বর্তমান সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী দলগুলোকে নিয়ে আগামী জাতীয় নির্বাচনকালীন সরকার গঠনের দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ। সঙ্গে এটাও বললেন, ‘নির্বাচন কমিশন (ইসি) থাকবে স্বাধীন, কেউ হস্তক্ষেপ করতে পারবে না, এমনিতে নির্বাচন সুষ্ঠু হয় না। আমরা চাই জনগণ ভোট দিতে পারুক। নির্বাচন সুষ্ঠু হতে হবে, সরকার সুষ্ঠু নির্বাচন দিতে বাধ্য হবে।’ 
 
শনিবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাপা আয়োজিত মহাসমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে এই দু'টি দাবি জানিয়ে তিনি বলেছেন, ‘সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে জাপা ইতিহাস সৃষ্টি করবে, এটাই আমার প্রথম বার্তা।’ এসময় উপস্থিত নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি ইংরেজিতে বলেন, ‘উই আর রেডি অর নট? উই আর রেডি, এটাই আমার শেষ বার্তা।’ 
 
দুপুর ১২টা ১০ মিনিটের দিকে শুরু করে মিনিট দশেকের বক্তব্যে এরশাদ বলেন, ২৫ বছরের বেশি আমরা ক্ষমতায় ছিলাম না। দুই দল ক্ষমতায় ছিল। তারা জনগণকে কী দিয়েছে? অন্যায়-অবিচার, নারীদের লাঞ্ছনা,  বেকারত্ব। জনগণকে তারা কিছু দিতে পারেনি। শুধু বড় বড় কথা। দেশ নাকি উন্নয়নশীল দেশ হয়েছে। ঢাকায় অনেক চাকচিক্য, অনেক লাইট, অনেক আতসবাজি করা হলো। ঢাকার বাইরে গিয়ে দেখুন, দেশের মানুষের কী অবস্থা, মানুষ দুইবেলা খেতে পারে না। তখন বুঝবেন, কতটুকু উন্নতি করেছেন, কতটা কাজ করেছেন। তিনি বলেন, খবরের কাগজ খুললেই খুন, নারী ধর্ষণ, শিশু হত্যা। শুধু হত্যা আর রক্ত। কোথাও শান্তি নেই। মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নেই। শান্তি শুধু ঢাকায়। ঢাকার বাইরে শান্তি নেই। আমরা ক্ষমতায় আসলে প্রতিটি গ্রামে, প্রতিটি ইউনিয়নে মানুষকে শান্তি দেব।
 
এরশাদ বলেন, শিক্ষার পচন ধরেছে, শিক্ষা গোল্লায় গেছে। আগে পাস করা কঠিন ছিল, এখন ফেল করা কঠিন।  যেখানে শিক্ষামন্ত্রী বলেন- সহনশীল পর্যায়ে ঘুষ খান, আমরা সবাই ঘুষ খাই। এ শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তন আনতে হবে। তিনি বলেন, সমাজে এখন শুধু মাদক আর ইয়াবা। দেশ ধ্বংসের দিকে চলে যাচ্ছে। এভাবে দেশ চলতে পারে না। দরকার পরিবর্তন। আমরা ক্ষমতায় গেলে দেশে সুশাসন নিশ্চিত করব। দেশের মানুষ শান্তিতে ও নিরাপদে থাকবে।
 
জাপা চেয়ারম্যান বলেন, সমাজের সর্বত্র আজ অবক্ষয়। মানুষের চাকরি নেই, সুখ ও শান্তি নেই। ব্যাংকে টাকা নেই। ব্যাংক ও শেয়ারবাজার লুট হয়ে গেছে। কোথাও কোনো সুখবর নেই। জাপা ক্ষমতায় গেলে লুটেরাদের শাস্তি দেব, জেলে পাঠাবো।
 
এরশাদ যখন বক্তব্য দিতে দাঁড়ান তখন মঞ্চে থাকা জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ দাঁড়িয়ে এরশাদের হাত ধরে দলীয় সঙ্গীত গেয়ে ওঠেন, ‘নতুন বাংলাদেশ গড়ব মোরা,  নতুন করে আজ শপথ নিলাম...।’ এর আগে রওশন তার বক্তব্যে বলেন, ‘আজকের এ মহাসমাবেশে মনে হচ্ছে, আমরা আগামীতে আর কারও ক্ষমতায় যাওয়ার সিঁড়ি হব না। জাপা যথেষ্ট একটি শক্তিশালী দল। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশকে স্বাধীন করেছেন। এরশাদ জনগণকে স্বাধীনতার স্বাদ দিয়েছিলেন। মানুষ এখন পরিবর্তন চায়। এরজন্য জাপাকে ক্ষমতায় আসতে হবে।’ রওশন তার বক্তব্যে শেষে ‘চল চল চল...’ নজরুলের এই রণকবিতা পাঠ করেন।
 
ইত্তেফাক/এমআই
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৪
আসর৩:৫০
মাগরিব৫:৩১
এশা৬:৪৩
সূর্যোদয় - ৫:৫৮সূর্যাস্ত - ০৫:২৬