রাজনীতি | The Daily Ittefaq

আঘাত এলে পাল্টা আঘাত করবে আওয়ামী লীগ: খালিদ

আঘাত এলে পাল্টা আঘাত করবে আওয়ামী লীগ: খালিদ
অনলাইন ডেস্ক১১ আগষ্ট, ২০১৮ ইং ২০:৫২ মিঃ
আঘাত এলে পাল্টা আঘাত করবে আওয়ামী লীগ: খালিদ
আওয়ামী লীগের ওপর কোন আঘাত এলে তারা পাল্টা আঘাত করতে বাধ্য হবে বলে জানিয়েছেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠার পর থেকে আওয়ামী লীগকে অনেক রক্তদান আর নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ এখন আর নির্যাতন সহ্য করবে না। দলের ওপর কোনো আঘাত এলে পাল্টা আঘাত করতে বাধ্য হবে।
 
শনিবার দুপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে ডি-ডব্লিউ কলেজ মাঠে এক আলোচনা সভায় তিনি এ সব কথা বলেন।
 
খালিদ মাহমুদ বলেন, পঁচাত্তরে কালো রাতে খুনীরা একটি দেহকে হত্যা করতে চায়নি; তারা একটি আদর্শকে হত্যা করতে চেয়েছিল। কিন্তু তা পারেনি। সারা বিশ্বে আজ পৌঁছে গেছে জাতির পিতার আদর্শ। বিশ্বের সব শোষিত মানুষের নেতার নাম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।
 
খালিদ বলেন, একাত্তরের পরাজিত শক্তি প্রতিশোধ নেয় পঁচাত্তরের হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে। তারা দেশকে নেতৃত্বহীন করে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিল। সেই খুনীদের একই ধারায় দেশকে পেছনে নিয়ে যেতে চেয়েছিল জিয়া-এরশাদ ও খালেদা। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশে আজ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পুনঃস্থাপিত হয়েছে। এক সময় মানুষ নিজের মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিতে ভয় পেত। আজকে সে ভয় কেটে গেছে। 
 
তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বিএনপি-জামায়াত ভয় পায়। তাই তারা বিভিন্ন কুৎসা রটায়, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। বিএনপি-জামায়াতের এজেন্ডা নিয়ে তথাকথিত সুশীল সমাজের কিছু পরিত্যাক্ত মানুষ মাঠ গরম করতে চাচ্ছে। তাদের হাত থেকে সাবধান থাকতে হবে।
 
খালিদ মাহমুদ বলেন, সুন্দরগঞ্জে অনেক ষড়যন্ত্র আর রক্তপাত হয়েছে। এখনও সুন্দরগঞ্জে নানাভাবে সংখ্যালঘুদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। কিন্তু এসব রক্তপাত ও ষড়যন্ত্র আর সহ্য করা হবে না। কোন রক্তপাত ঘটলে সেই সব ষড়যন্ত্রকারীদের হাত শুধু ভেঙেই দেওয়া হবে না, তাদের হাত চিরদিনের জন্য নির্মূল করা হবে। 
 
সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক টিআইএম মকবুল হোসেন প্রামাণিক। বক্তব্য রাখেন- আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, গাইবান্ধা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ শামস্-উল আলম হিরু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সূর্য বখশী, আওয়ামী লীগ নেত্রী আফরুজা বারী, গাইবান্ধা পৌর মেয়র শাহ সুলতান জাহাঙ্গীর, সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল্লাহ আল মামুন।
 
ইত্তেফাক/এমআই
 
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৩০
যোহর১১:৫৩
আসর৪:১৭
মাগরিব৬:০২
এশা৭:১৫
সূর্যোদয় - ৫:৪৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৭