রাজনীতি | The Daily Ittefaq

তথাকথিত ঐক্যের নামধারীরা খড়কুটার মতো উড়ে যাবে: নাসিম

তথাকথিত ঐক্যের নামধারীরা খড়কুটার মতো উড়ে যাবে: নাসিম
সাঁথিয়া (পাবনা) সংবাদদাতা২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ০১:২৪ মিঃ
তথাকথিত ঐক্যের নামধারীরা খড়কুটার মতো উড়ে যাবে: নাসিম
আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, জনবিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা আবারও তথাকথিত ঐক্যের মহড়া দিয়েছেন। তবে আগামী নির্বাচনে তারা খড়কুটার মতো উড়ে যাবে। গতকাল শনিবার পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার সোনাতলা স্কুল মাঠে ১৪ দলের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশে নির্বাচনী লড়াইয়ের জন্য আমরা যখন মাঠে-ময়দানে জনগণের ঘরে ঘরে যাচ্ছি, তখন তথাকথিত ঐক্যের নামধারী কিছু ব্যক্তি বিএনপি-জামায়াতের ভুত ঘাড়ে নিয়ে ঢাকার ড্রয়িং ও হলরুমে বসে নির্বাচন ভণ্ডুল করার চক্রান্ত করছে। ওয়ান ইলেভেনের সময়ের ষড়যন্ত্রকারী মুখচেনা এসব ব্যক্তি আবার সক্রিয় হচ্ছে। এরা আবারও ওয়ান ইলেভেনের দুঃস্বপ্ন দেখছে।
 
স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, তারা নির্বাচনে আসলে ভালো, তবে নির্বাচন ভণ্ডুলের চেষ্টা করলে বাংলার প্রতি ইঞ্চি জমিতে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে তাদের চূড়ান্তভাবে পরাজিত করবে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ১৪ দলের নেতাকর্মীরা। তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে এবং নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান থাকবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জনগণের ভোটে আওয়ামী লীগ আবারও বিজয়ী হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
 
মন্ত্রী বলেন, ড. কামাল হোসেনরা নির্বাচন ব্যবস্থা নষ্ট করার জন্য পরিকল্পনা করছে। তারা জোট করুক অসুবিধা নেই, কিন্তু এবার নির্বাচনের নামে ষড়যন্ত্র করলে জনগণ ছাড় দিবে না। তিনি বলেন, এমপি, মন্ত্রী ভুল করলে শেখ হাসিনা তাদের শাস্তি দিয়েছেন। আপনারা জনগণ যদি বড় ভুল করেন তাহলে দেশ আবার জঙ্গি ও সন্ত্রাসে ভরে যাবে।   বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে নাসিম বলেন, মাঠে খেলা হবে। নির্বাচনী মাঠের রেফারির দায়িত্ব পালন করবেন নির্বাচন কমিশন। আপনাদের ভয় কিসের? যদি খেলায় ভুল করেন তাহলে জনগণ লাল কার্ড দেখাবে। এবার নির্বাচনে না আসলে বিএনপিকে বাটি চালান দিয়েও পাওয়া যাবে না। মন্ত্রী নৌকা মার্কায় ভোট দিতে জনগণকে আহ্বান জানান।
 
সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু এমপির সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, গণআজাদী লীগের সভাপতি এসকে সিনহা, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের যুগ্ম আহ্বায়ক ডা. অসিত বরণ রায়, পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল, উত্তরা মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজের চেয়ারম্যান মিসেস লায়লা আরজুমান বানু প্রমুখ বক্তৃতা করেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সোনাতলায় শ্বশুর মরহুম খোরশেদ আলমের নামে ১০ শয্যাবিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন।          
 
এর আগে শুক্রবার সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, জনগণ ভোট না দিলে বিদেশে নালিশ করে কোনো লাভ নেই। কোনো জোট করেও লাভ নেই। ভোট দেবার মালিক জনগণ। কোনো চক্রান্ত করে জনগণকে বিভ্রান্ত করা যাবে না।
 
বহুলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এসএম মঞ্জুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে জনসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও সাবেক এমপি তানভীর শাকিল জয়, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য্য প্রমুখ।
 
ইত্তেফাক/নূহু
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৯
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪