ব্রেন গেম
২১ জুন, ২০১৭ ইং
লিলিপুট আর ব্লেফুসকোর মধ্যে তখন তুমুল যুদ্ধ। লিলিপুট কমান্ডার-ইন-চিফ জেনারেল লিটলম্যান প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার এক মাস্টার প্ল্যান এঁটেছেন। সব আয়োজন শেষ হলে কোনো এক D-DAY-তে সেই মহাপরিকল্পনা অনুযায়ী শুরু হবে আক্রমণ।

লিলিপুট-মেজর বিভীষণ ব্লেফুসকোর গুপ্তচর। সে জানে জেনারেল লিটম্যানের মাস্টার প্ল্যানের কথা। এখন চেষ্টায় আছে কীভাবে সেই প্ল্যানটি চুরি করে পাচার করে দেওয়া যায়। প্ল্যানটি রাখা আছে জেনারেলের ঘরের একটি সিন্দুকে। সিন্দুকটির কম্বিনেশন লক ১, ২, ৩ ও ৪—এই চারটি অঙ্কের কম্বিনেশনে তৈরি একটি সংখ্যা দিয়ে খোলে। একই কম্বিনেশনে কোনো একটি অঙ্ক শুধুমাত্র একবারই ব্যবহূত হয়। সিন্দুকের তালাটি কম্পিউটারাইজড এবং প্রতিবার বন্ধ করার সময় কম্বিনেশনটি বদলে যায়। তালাটি খোলার জন্য পরপর চারবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টার জন্য সেটা আটকে থাকে। তালাটির পুশ-বাটন প্যানেলের পাশেই আছে একটি ডিসপ্লে প্যানেল। কোনো একটি সংখ্যা টেপার পর কতগুলো অঙ্ক সঠিক স্থানে আছে সেই সংখ্যাটি ডিসপ্লে প্যানেলে প্রদর্শিত হয়। যেমন যদি কম্বিনেশনটি হয় ১ ২ ৩ ও ৪ এবং কেউ ২ ১ ৩ ৪ টেপে তবে প্যানেলে দেখা যাবে ২; কেউ যদি ১ ৩ ৪ ২ টেপে তবে দেখা যাবে ১।

সেদিন রাতে মেজর লুকিয়ে ঢুকল জেনারেলের ঘরে। পুশ-বাটন প্যানেলে টিপল ৩ ১ ২ ৪, ডিসপ্লে প্যানেলে দেখা গেল ০, অর্থাত্ একটি অঙ্কও সঠিক স্থানে নেই। দ্বিতীয়বার টিপল ২ ৩ ৪ ১; এবারও ০।

মেজর বিভাষণ ছিল বুদ্ধিমান। এরপর সে এমন একটি সংখ্যা টিপল যার জন্য পাশের ডিসপ্লেতে শূন্য দেখেই সে সঠিক কম্বিনেশনটি জেনে গেল এবং চতুর্থবার সেই সংখ্যাটি টিপে খুলে ফেলল সিন্দুকটি।

প্রশ্ন হলো: মেজর চতুর্থবার কোন সংখ্যা টিপে সিন্দুকটি খুলতে পেরেছিল? সিন্দুকটি খুলতে পারলেও বিভীষণ অবশ্য প্ল্যানটি নিতে পারেনি। ধরা পড়ে গিয়েছিল সিকিউরিটি গার্ডের হাতে। আর যাদের কাছে সমস্যাটি কঠিন লাগছে তাদের জন্য বলে দিচ্ছি যে গুপ্তচরটি তৃতীয়বার টিপেছিল

উত্তর আগামীকাল

গতকালের ব্রেন গেমের উত্তর : 

সেলিনা জুতা পেয়েছিল। ঝরনা স্কার্ট, বর্ণা শাড়ি ও ইতি জামা পেয়েছে।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২১ জুন, ২০১৮ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
পড়ুন