শিবগঞ্জে গৃহবধূকে নির্যাতন
উপজেলার বাবুপুর গ্রামে পরকীয়া প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের পর গাছের সঙ্গে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গত বৃহস্পতিবার শিবগঞ্জ থানায় দায়েরকৃত ঐ গৃহবধূর স্বাক্ষর করা একটি অভিযোগপত্র ও সরাসরি ঐ গৃহবধূ সূত্রে জানা গেছে, পাঁকা ইউনিয়নের বাবুপুর গ্রামের তাজিবুলের ছেলে আব্দুল করিম প্রথমে পরকীয়া প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ের প্রলোভন দেখায়। পরে গত ১৯ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে করিমের বন্ধু ও একই গ্রামের ডালিম ও সৈবুরের সহযোগিতায় ঐ গৃহবধূকে আম বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে তাদের বাড়ি নিয়ে যায়। এ সময় করিমের পিতা তাজিবুল হক, ভাই রহিম, মাতা মোসতারা বেগম ঐ গৃহবধূর হাত পা বেঁধে মুখে গামছা ভরে কয়েক ঘণ্টা ধরে শারীরিকভাবে নির্যাতন চালায়। পরে রাত ৩টার দিকে তার স্বামীর বাড়িতে ফেলে যায়।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, এ ঘটনায় রহিমকে আটক করা হয়েছে এবং বাকী আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২২ এপ্রিল, ২০১৮ ইং
ফজর৪:১৩
যোহর১১:৫৮
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২৬
এশা৭:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৩২সূর্যাস্ত - ০৬:২১
পড়ুন