সৈয়দপুরে চলতি মাসে ট্রেন থেকে তিন লাখ টাকার ভারতীয় মালামাল জব্দ
২১ জুন, ২০১৭ ইং
g মো. আমিরুজ্জামান, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা

নীলফামারীর সৈয়দপুর রেলওয়ে থানা পুলিশ (জিআরপি) চলতি জুন মাসের গত ১৫ দিনে তিন লাখ ১১ হাজার দুইশ টাকার অবৈধ ভারতীয় বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করেছে। আন্তঃনগর, মেইল ও লোকাল বিভিন্ন ট্রেন থেকে ওই মালামাল উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত মালামালের মধ্যে রয়েছে মাদক (ফেন্সিডিল), নেশা জাতীয় ইনজেকশন, ভারতীয় শাড়ি, থ্রী-পিস, ওড়না ও পে­ইং কার্ড। এ সব ভারতীয় মালামাল উদ্ধারের ঘটনায় সৈয়দপুর জিআরপি থানায় তিনটি চোরাচালান, একটি মাদকদ্রব্য ও একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) হয়েছে।

সৈয়দপুর রেলওয়ে থানা সূত্রে জানা গেছে, উত্তরাঞ্চলের রেলওয়ে শহর সৈয়দপুর। আর ঢাকা-সৈয়দপুর, সৈয়দপুর-খুলনা, সৈয়দপুর-রাজশাহী রুটে বেশ কয়েকটি যাত্রীবাহী আন্তঃনগর, মেইল ও লোকাল ট্রেন চলাচল করে প্রতিদিন। আর উল্লিখিত রুটগুলোতে চলাচলকারী ট্রেনগুলোতে চোরাকারবারি সীমান্ত পেরিয়ে ভারত থেকে অবৈধভাবে নিয়ে আসা মালামাল বহন করে গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করে। কিন্তু রেলওয়ে পুলিশের কড়া নজরদারির কারণে সে সব ভারতীয় অবৈধ মালামাল মাঝে-মধ্যে ধরা পড়ছে। চলতি জুন মাসের গেল ১৫ দিনে জিআরপি সদস্যরা বিভিন্ন আন্তঃনগর, মেইল ও লোকাল ট্রেন থেকে তিন লাখ ১১ হাজার দুইশ টাকার বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করছে।

উদ্ধারকৃত মালামালের মধ্যে রয়েছে দুই লাখ ৭৩ হাজার টাকার মূল্যের ৭২ পিস শাড়ি, ২২ হাজার টাকা মূল্যের ২২ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল, দুই হাজার চারশ টাকা মূল্যের ১২ পিস নেশা জাতীয় ইনজেকশন, ছয় হাজার টাকার মূল্যের তিন পিস ভারতীয় থ্রী-পিস, তিন হাজার টাকা দামের ছয় পিস ভারতীয় ওড়না এবং চার হাজার আটশ টাকার ৬০ সেট পে­ইং কার্ড। উল্লি­খিত ভারতীয় অবৈধ পথে আসা মালামাল ট্রেন থেকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন সৈয়দপুর রেলওয়ে থানার ওসি এ কে এম লুত্ফর রহমান। তিনি জানান, সকল প্রকার চোরাচালানি বন্ধে রেলওয়ে পুলিশ সার্বক্ষণিক তাদের দায়িত্ব-কর্তব্য করছেন।  

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২১ জুন, ২০১৮ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
পড়ুন