আইটিতে প্রফেশনাল ডিপ্লোমা
মিজানুর রহমান১৮ জানুয়ারী, ২০১৭ ইং
আইটিতে প্রফেশনাল ডিপ্লোমা
বর্তমান সময়ে আইটি শিক্ষা তথা আইটি প্রফেশনালদের বেশ কদর রয়েছে। দেশের বুকে আইটি শিক্ষার সুযোগও রয়েছে অনেক। এরই লখ্যে আইটি সেক্টরের বিভিন্ন ধরনের বিশেষায়িত শাখা যেমন—হার্ডওয়্যার মেইনটেন্যান্স, নেটওয়ার্ক ম্যানেজমেন্ট, সিসিএনপি, উইন্ডোজ সার্ভার এইট, সফ্টওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট, এমআইএস, গ্রাফিক্স ডিজাইন, আউটসোর্সিং  প্রভৃতি সেক্টরই স্বপ্নময় সম্ভাবনা সমৃদ্ধ, কিন্তু দরকার বিশেষায়িত দক্ষতা ও জ্ঞানের গভীরতা এবং বাস্তবমুখী শিক্ষার প্রায়োগিক ক্ষমতা। কিন্তু আমাদের দেশে বাস্তবমুখী শিক্ষা গ্রহণের জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক দক্ষ ও মানসম্মত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অভাবই এক্ষেত্রে প্রধান অন্তরায় হয়ে দেখা দিয়েছে। এক্ষেত্রে ড্যাফোডিল ইনস্টিটিউট অব আইটির প্রয়াশকে ব্যতিক্রম বলা যেতে পারে। সাফল্যের সাথে হাজার হাজার শিক্ষার্থীকে প্রফেশনাল প্রশিক্ষণ প্রদান, আত্মকর্মসংস্থানে সহায়তা ও দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে যুগান্তকারী ভূমিকা পালন করার জন্যই ডিআইআইটি আজ দেশের সেরা প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত।

দেশের শীর্ষস্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ড্যাফোডিল ইনস্টিটিউট অব আইটি (ডিআইআইটি)-তে তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে প্রফেশনাল প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দেশের শিক্ষিত বেকার যুবসমাজকে দক্ষ জনবল তথা আত্মকর্মসংস্থানের উপযোগী হিসেবে গড়ে তুলতে এক বছর মেয়াদি নিম্নলিখিত প্রফেশনাল ডিপ্লোমা সমূহে সীমিত সংখ্যক আসনে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি চলছে। কোর্সগুলো হলো—হার্ডওয়্যার ও নেটওয়ার্ক ইঞ্জিনিয়ারিং, ওয়েব অ্যান্ড ই-কমার্স, সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং। প্রতি বছর ৪টি সেশনে (মার্চ, জুন, সেপ্টেম্বর ও ডিসেম্বর) এবং ৩টি শিফটে (সকাল /বিকাল/সান্ধ্যকালীন) এই ডিপ্লোমা প্রোগ্রামসমূহে ভর্তি নেওয়া হয়। সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্র ও শনিবার বিশেষ ব্যাচের ভর্তি নেওয়া হয়।

ডিআইআইটি পরিচালিত কোর্সগুলো সম্পূর্ণভাবে ব্যবহারিক ক্লাস ভিত্তিক যা সার্টিফাইড প্রফেশনাল প্রশিক্ষকদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হয়ে থাকে। কোর্সগুলোর অন্য একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য—কোর্স শেষে বাধ্যতামুলক রিয়েল লাইফ প্রজেক্ট ওয়ার্ক ও ১-৩ মাস মেয়াদি ইন্টার্নশিপ যা একজন শিক্ষার্থীকে হাতে-কলমে কাজ শিখতে সাহায্য করে। এছাড়াও রয়েছে প্রশিক্ষকদের সার্বক্ষনিক ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কোর্স সমাপ্তি, পরীক্ষা গ্রহণ ও ফলাফল মূল্যায়নের নিশ্চয়তা। নিয়মিত থিওরি ক্লাসের সাথে পর্যাপ্ত প্রাকটিক্যাল ক্লাস ও কঠোরভাবে মান নিয়ন্ত্রণের কারণে এখান থেকে পাসকৃত ছাত্র/ছাত্রীদের কর্মজীবনে সফলতার হার শতভাগ। এছাড়াও রয়েছে নিজস্ব জব পোর্টাল jobsbd.com এর মাধ্যমে চাকরির সহায়তা।

কর্মব্যস্তদের জন্য রয়েছে—শুক্র, শনি ও সান্ধ্যকালীন ক্লাসের ব্যবস্থা। ডিআইআইটি পরিচালিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কোর্সে দরিদ্র ও মেধাবী ছাত্র/ছাত্রীদেরকে ড্যাফোডিল ফাউন্ডেশন কর্তৃক বৃত্তি প্রদান করে থাকে। ন্যূনতম এসএসসি পাস যেকোনো বয়সের যে কেউ এই কোর্সগুলোতে ভর্তি হতে পারবে। প্রফেশনাল প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে ডিআইআইটি বিগত ২০ বছরে বহুসংখ্যক শিক্ষিত বেকার প্রশিক্ষনার্থীকে কর্মপোযোগী করে গড়ে তুলেছে যাদের অনেকেই এখন স্ব-স্ব ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত। বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন ড্যাফোডিল ইনস্টিটিউট অব আইটি, বাড়ি-২, রোড-১, সেক্টর-৬, হাউজবিল্ডিং, ঢাকা-১২৩০। ফোন :০১৭১-৩৪৯৩২৬২, ০১৭১৩৪৯৩২৯৬।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৮ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং
ফজর৫:২৩
যোহর১২:০৯
আসর৩:৫৯
মাগরিব৫:৩৮
এশা৬:৫৪
সূর্যোদয় - ৬:৪২সূর্যাস্ত - ০৫:৩৩
পড়ুন