অপরাজিতা সিম নিতে ভিড়
নারীদের মাঝে বিনামূল্যে ২০ লাখ সিম বিতরণ চলছে
মোরশেদা ইয়াসমিন পিউ০৫ নভেম্বর, ২০১৭ ইং
অপরাজিতা সিম নিতে ভিড়

বেলা ১১টা। শ্যামলী ৩ নম্বর সড়কের মুখে ঢুকতেই চোখে পড়ে নারীদের ভিড়। একটু কাছে গেলে সহজে বোঝা যায়, এটা সরকার থেকে দেওয়া নারীদের জন্যে বিনামূল্যে টেলিটকের সিম নেওয়ার ভিড়। শতাধিক নারী ভিড় করেছেন অপরাজিতা সিম নিতে। এখানে কেউ ব্যস্ত ফর্ম পূরণ করতে, কেউ বা ছবি লাগাচ্ছেন, কেউ ভোটার আইডি কার্ডের নম্বর লিখছেন যত্ন করে। জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপিসহ পূরণ করা ফর্ম হাতে বসে আছেন অনেকে। কারো ফর্ম জমা দেওয়া শেষ, কখন ডাক পড়বে ‘অপরাজিতা’ নিতে। কাঙ্ক্ষিত সেই সিমের অপেক্ষায় বসে আছেন অনেকে। সেন্টারগুলোতে জায়গার স্বল্পতার কারণে সেন্টারের বাইরে ছাতা ও টেবিল পেতে বসেছেন ডিলাররা। সিমের জন্যে এনআইডি নম্বর চেক করতে চাপ বাড়ছে সার্ভারে। এজন্যে দ্রুত সিম ডেলিভারিও দিতে পারছেন না বলে জানান কাস্টমার কেয়ারের কর্মকর্তারা।

সিম নিতে আসা লাইলী বেগম বলেন, ‘আমি শুনেছি অপরাজিতা সিমে কম পয়সায় সুযোগ-সুবিধা বেশি’ তাই নিতে এসেছি। নরসিংদীর মেয়ে লাইলী বেগম বলেন, আমি গার্মেন্টসে কাটিং-এর কাজ করি, এই সিম নিয়ে বাড়িতে কাপড়ের ব্যবসা করবো। আমার কাছে একটা সিম থাকবে, অন্যটা থাকবে আমার মায়ের কাছে।

‘অপরাজিতা’ নামটি এখন সব নারীর মুখে মুখে। বিশেষ করে স্বল্প আয়ের নারীদের জন্যে এটা একটা বিশেষ সুযোগ। তাই অপরাজিতা সিম নিতে ছুটছেন নারীরা। প্রতিটি টেলিটকের বুথের সামনে লম্বা লাইন। কি আছে এই সিমে জানতে চাইলে বলেন, ‘কম পয়সায় কথা বলা ও ইন্টারনেটের সুযোগ পাওয়া যাবে।’

রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে টেলিটক কাস্টমার কেয়ার সেন্টারের সামনে নারীরা ফুটপাতে বসে আছেন, সকলের হাতে অপরাজিতা সিম নেওয়ার ফর্ম।

শ্যামলী, মোহাম্মদপুর, ধানমন্ডি, ইডেন কলেজের সামনে, নীলক্ষেত ঘুরে দেখা যায় ডিস্ট্রিবিউটরদের ব্যস্ততা। তারা সার্ভারের ঝামেলার কারণে দ্রুত কাজ করতে পারছেন না বলে জানান। টেলিটকের ডিস্ট্রিবিউশন কর্মকর্তা কামাল হোসেন বলেন, সকাল থেকে ১২টা পর্যন্ত প্রায় ৫শ ফর্ম জমা পড়েছে; কিন্তু সিম দিতে পেরেছি মাত্র ৫০টির মতো।

শ্যামলীতে কথা হয় শিক্ষার্থী জিনিয়া আফরোজের সঙ্গে। তিনি বলেন, ক্যাম্পাসে রোকেয়া হলের সামনে টেলিটকের সিমের জন্যে বুথ বসানো হয়েছে। তবে সেখানে অনেক বেশি ভিড়। যার কারণে এখানে ফুপির বাসার কাছ থেকে অপরাজিতা সিম কিনছি। কেন এই সিম কেনা, জানতে চাইলে জিনিয়া বলেন, এখন চাকরির ফর্ম, ভর্তি ফর্ম পূরণ করাসহ সরকারি অনেক কাজে এই টেলিটকের সিম ব্যবহার করা হচ্ছে, সে কারণে এই সিম নিতে এসেছি। তাছাড়া কম রেট, ইন্টারনেট সুবিধা অনেক বেশি।

২২ অক্টোবর টেলিটকের নতুন প্যাকেজ ‘অপরাজিতা’ সিমের উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। সাশ্রয়ী মূল্যে ভয়েস ও ভিডিও কল এবং ইন্টারনেট ডাটা ব্যবহারের সুবিধার মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে এ সিম বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন তিনি। নারীরা বায়োমেট্রিক নিবন্ধন করে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে সর্বোচ্চ দুইটা সিম নিতে পারবেন একজন নারী। সারা দেশের টেলিটকের কাস্টমার কেয়ার সেন্টার থেকে এই সিম পাওয়া যাবে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৫ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৫০
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪২
মাগরিব৫:২১
এশা৬:৩৫
সূর্যোদয় - ৬:০৭সূর্যাস্ত - ০৫:১৬
পড়ুন