ঢাকা শনিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫
২৩ °সে

শ্রীবরদীতে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে স্বাবলম্বী বহুমুখী প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

শ্রীবরদীতে শিক্ষার আলো ছড়াচ্ছে স্বাবলম্বী বহুমুখী প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়

শ্রীবরদী (শেরপুর) সংবাদদাতা

সামাজিক কুসংস্কার আর দারিদ্র্যের সঙ্গে যুদ্ধ করে আসছে শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার গোশাইপুর ইউনিয়নের দহেরপাড় গ্রামবাসী। স্বাধীনতার ৪৭টি বছরেও আলোর মুখ দেখেনি তারা। অবশেষে এ গ্রামে ২০১৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় স্বাবলম্বী বহুমুখী প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়। এখানে প্রতিবন্ধী ছাত্র-ছাত্রীসহ আশপাশের ছেলে-মেয়েরা পাচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষার সুযোগ। গত দুই বছরের মধ্যেই বিদ্যালয়ের অবকাঠামো ও উপকরণসহ পাঠদানে সুরক্ষিত করে গড়ে তুলেছে ম্যানেজিং কমিটি। বিদ্যালয়টি গতিশীল করতে কর্তৃপক্ষ নিয়েছে কার্যকরী নানা পদক্ষেপ।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সাইদুর রহমান জানান, উপজেলার গোসাইপুর ইউনিয়নের দহেড়পাড় গ্রামে প্রায় দুই হাজার লোকের বসবাস। এ গ্রামে নেই কোনো প্রাথমিক বিদ্যালয়। ফলে এ গ্রামের ছেলে-মেয়েরা ২/৩ কিলোমিটর হেঁটে অন্য গ্রামের বিদ্যালয়ে যেতে হয়। ফলে বেশিরভাগ শিশু প্রাথমিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হতো। এ জন্য ১০ জন শিক্ষক নিয়ে চালু করা হয় বিদ্যালয়টি। মাত্র দুই বছরে এ বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা শতাধিক। তবে এ বছর আরো বাড়বে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির অন্যতম সদস্য সংগ্রামী নারী জয়িতা জবেদা বেগম জানান, এ গ্রামটি ছিল শিক্ষা বঞ্চিত। এ জন্য অনেক কষ্ট করে আমরা এ গ্রামে প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় স্থাপন করার উদ্যোগ নেই। বেসরকারি সংস্থা স্বাবলম্বী সমিতির নির্বাহী পরিচলক আতাউর রহমান জানান, এ সংস্থার শিক্ষা প্রকল্পের আওতায় বিদ্যালয়টি স্থাপিত হয়। তবে সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী পরিচালিত হচ্ছে। এমনকি বিদ্যালয়টি সরকারিকরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে এ সংস্থা সার্বিক সহযোগিতা করবে।

স্থানীয় অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আলহাজ মোঃ আব্দুল মোতালেব বলেন, এ গ্রামে যাতায়াত ব্যবস্থা খুবই খারাপ। বিদ্যালয় স্থাপন এই গ্রামের জন্য একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এ বিদ্যালয়ের মাধ্যমে এলাকার ছেলে-মেয়েরা পড়ালেখার সুযোগ পেয়েছে। এতে করে শিক্ষার আলোয় আলোকিত হচ্ছে গ্রামবাসীরা।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৯ জানুয়ারি, ২০১৯
আর্কাইভ
 
বেটা
ভার্সন