মুরাদনগরের ছয়টি বেইলি ব্রিজের বেহাল অবস্থা
মুরাদনগরের ছয়টি বেইলি ব্রিজের বেহাল অবস্থা
কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা থেকে ঢাকা যাতায়াতের একমাত্র সড়কের উপর নির্মিত ছয়টি বেইলি ব্রিজ যাত্রীসাধারণের জন্য মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। মেয়াদোত্তীর্ণ ও মরিচাধরা পুরাতন এসব বেইলি ব্রিজের পাটাতন ভেঙে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

এলাকা ঘুরে জানা যায়, মুরাদনগর-ঢাকা সড়কের মুরাদনগর উপজেলা অংশের সড়কে অনেকগুলো সেতু ও বেইলি ব্রিজ রয়েছে। তবে ব্রিজগুলোর মধ্যে এ সড়কের উপজেলা সদরের অদূরে গোমতী নদীর উপর নির্মিত একটি, উপজেলার নেয়ামতকান্দি, সুবিলারচর, পাঁচপুকুরিয়া, বোরারচর, ছালিয়াকান্দিসহ ছয়টি বেইলি ব্রিজের অবস্থা একেবারেই নাজুক। এসব ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজের উপর দিয়ে দিনে-রাতে ঝুঁকি নিয়ে বিরতিহীন বাসসহ ছোট-বড় অসংখ্য যানবাহন ও পণ্যবাহী পরিবহন চলাচল করছে। জরাজীর্ণ এসব ব্রিজ দিয়ে এ সড়কপথে চলাচল করতে গিয়ে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

জানা যায়, মুরাদনগর থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ইলিয়টগঞ্জ পর্যন্ত সড়কের দূরত্ব প্রায় ১৮ কিলোমিটার। অপরদিকে মুরাদনগর থেকে কোম্পানীগঞ্জ-ক্যান্টনমেন্ট হয়ে বিকল্প সড়কে ইলিয়টগঞ্জ পর্যন্ত দূরত্ব ৪৫ কিলোমিটার। বেইলি ব্রিজগুলো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ায় অধিকাংশ যানবাহন ২৭ কিলোমিটার দূরত্ব পাড়ি দিয়ে ঢাকা-মুরাদনগর যাতায়াত করতে গিয়ে সময় ব্যয়সহ ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানায়, ইতোপূর্বে বেশ কয়েকবার এ সড়কের বোড়ারচর, ছালিয়ান্দি, পাঁচপুকুরিয়ায় বেইলি ব্রিজের পাটাতন ও রেলিং ভেঙে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এ বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইউছুফ আব্দুল্লাহ হারুন জানান, মুরাদনগর উপজেলা সদরের অদূরে ঢাকা-মুরাদনগর সড়কের গোমতী নদীর উপর নির্মিত জরাজীর্ণ বেইলি ব্রিজের পাশে বিকল্প একটি সেতু নির্মাণের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। অপর ব্রিজগুলো পর্যায়ক্রমে সংস্কার করা হবে।

কুমিল্লা সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন জানান, ঢাকা-মুরাদনগর সড়কের বেইলি ব্রিজগুলোর পাশে বিকল্প সেতু নির্মাণের জন্য মন্ত্রণালয়ে অর্থ বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। বরাদ্দ পাওয়া গেলে কাজ শুরু করা হবে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২১ এপ্রিল, ২০১৭ ইং
ফজর৪:১৪
যোহর১১:৫৮
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪১
সূর্যোদয় - ৫:৩৩সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন