রায়পুর সরকারি কলেজে নয়টি পদ শূন্য শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত
২১ এপ্রিল, ২০১৭ ইং
রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা

ষাটের দশকে চারজন শিক্ষক ও ১শ’ ২০জন শিক্ষার্থী নিয়ে উপজেলার রায়পুর সরকারি কলেজ পাঠদান শুরু হয়। বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা দুই সহস্রাধিক। ১৭টি বিষয় পড়ানোর জন্য শিক্ষকের অনুমোদিত পদের মধ্যে অধ্যক্ষসহ রয়েছেন মাত্র আটজন। এ অবস্থায় শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

বর্তমানে বাংলা বিভাগে একজন প্রভাষক, রাষ্ট্রবিজ্ঞান প্রভাষক একজন, ইসলামের ইতিহাসে একজন, ব্যবস্থাপনায় দু’জন এবং হিসাব বিজ্ঞান বিভাগে একজন করে নেই। অর্থনীতি, পদার্থ বিজ্ঞান ও কৃষি শিক্ষা বিভাগে প্রভাষক পদগুলো দীর্ঘদিন ধরেই মোট নয়জন শিক্ষকের পনদ শূন্য রয়েছে। 

কলেজ সূত্রে জানা গেছে, সমাজ সেবক তত্কালীন জমিদার মিয়া বংশের মৌ. আলী আহম্মদ চৌধুরী রায়পুর পৌরসভার কেরোয়া গ্রামে সাড়ে ১৪ একর জমিতে এলাকার কয়েকজন শিক্ষানুরাগী নিয়ে ১৯৭০ সালে কলেজটি একাদশ ও ১৯৮০ সালে স্নাতক(পাস) শ্রেণির পাঠদান কার্যক্রম শুরু করে। পরে ১৯৮৭ সালের ২৮ মার্চ প্রতিষ্ঠানটি সরকারিকরণ করা হয়। এছাড়াও জেনারেল বিষয়ের পাশাপাশি উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের এইচএসসি ও স্নাতক(পাস) পর্যায়ে রায়পুর ছাড়াও পার্শ্ববর্তী চাঁদপুরের হাইমচর, ফরিদগঞ্জের গৃদকালিন্দিয়া ও রামগঞ্জ থেকে শিক্ষার্থীরা এসে এই কলেজে লেখাপড়া করছেন। গত পাঁচ/ছয় বছর ধরে শিক্ষক সংকট প্রকট হওয়ায় শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করতে বেগ পেতে হচ্ছে কর্তৃপক্ষকে।

কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আব্দুল কাদের শিক্ষক সংকটের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিক্ষার্থীদের পাঠদানে আমাদের শিক্ষকরা যথেষ্ট আন্তরিক। কলেজে ১৭টির মধ্যে নয়টি শিক্ষকের পদ শূন্য থাকায় বেশ কয়েকটি বিভাগে পাঠদান কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে। একের পর এক আবেদন নিবেদন করেও কোনো লাভ হচ্ছে না। যে শিক্ষকরা আছেন, তারা দিন-রাত কষ্ট করে শ্রেণিতে কোনোরকম সিলেবাস শেষ করছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২১ এপ্রিল, ২০১৭ ইং
ফজর৪:১৪
যোহর১১:৫৮
আসর৪:৩১
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪১
সূর্যোদয় - ৫:৩৩সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন