ত্রিশালে ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার না করায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা
১৪ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং

g ফারুক আহমেদ, ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা

ঢাকা-ময়মনসিংহ চার লেন মহাসড়কের ময়মনসিংহের ত্রিশাল বাসস্ট্যান্ড এলাকায় প্রায় ৯০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে ফুটওভার ব্রিজ। সচেতনতার অভাবে তা ব্যবহারে অনিহা পথচারীদের। আর তাই ঝুঁকি নিয়েই পারাপার হচ্ছেন মহাসড়ক। সচেতনতা বৃদ্ধির জোগান দিতে এগিয়ে আসছে না কেউ। ফলে যেকোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

ফুট ওভারব্রিজ ফাঁকা পরে আছে অথচ নিচেই চলন্তগাড়ি রোধ করে রাস্তা পারাপার হচ্ছেন অসংখ্য মানুষ। আবাল বৃদ্ধ বণিতা, নারী, শিশু ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ সব শ্রেণিপেশার মানুষই কেউ তাড়াহুড়া কেউবা দৌড়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পার হতে চেষ্টা করছেন ব্যস্ততম ওই মহাসড়ক। নির্মাণের পর কিছুদিন শখের বশে এ ব্রিজটি ব্যবহার করলেও সচেতনতার অভাবে এখন তা ফাঁকা পড়ে থাকে সব সময়। ২০১৫ সালে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের চার লেন প্রকল্পের আওতায় ত্রিশাল বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ৯০ লাখ টাকা ব্যয়ে ফুট ওভারব্রিজটি নির্মিত হলেও তা ব্যবহারে সচেতনতাবোধ সৃষ্টি করতে এগিয়ে আসছে না কেউই।

দুর্ঘটনা থেকে শুরু করে নানা ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনারোধে পথচারীদের ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহারে উত্সাহিত করা অত্যন্ত জরুরি। জনসাধারণের মধ্যে যত বেশি সচেতনতাবোধ সৃষ্টি হবে, তত বেশি ইতিবাচক দিকগুলোই সামনে আসবে। বিশেষ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার্থীদের সচেতন করা খুবই জরুরি।

ত্রিশাল পৌরশহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, নজরুল ডিগ্রি কলেজ, মহিলা ডিগ্রি কলেজ, নজরুল একাডেমি, নজরুল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, আব্বাছিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, শুকতারা বিদ্যানিকেতন, রাহেলা হযরত মডেল স্কুলসহ অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষের কেউই ব্যবহার করে না ফুট ওভারব্রিজ। প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার করছে মহাসড়ক। দ্রুত সব শ্রেণি-পেশার মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি না হলে দুর্ঘটনা এড়ানো বা এ সংকট নিরসন সম্ভব নয়।

ফুট ওভারব্রিজ ব্যবহার না করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহাসড়ক পার হওয়ার কারণ জানতে চাইলে নজরুল ডিগ্রি কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মাসুদ রানা, জাহিদসহ কয়েক শিক্ষার্থী বলেন, ফুট ওভারব্রিজ কেউ ব্যবহার করে না। সবাই এর নিচ দিয়ে চলাচল করে, তাই আমরাও এভাবে রাস্তা পার হই।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবু জাফর রিপন বলেন, ‘অসচেতনতার জন্যই এমনটি ঘটছে। আমরা অতিদ্রুত সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে পদক্ষেপ গ্রহণ করব।’

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৪ জানুয়ারী, ২০১৮ ইং
ফজর৫:২৩
যোহর১২:০৮
আসর৩:৫৭
মাগরিব৫:৩৫
এশা৬:৫২
সূর্যোদয় - ৬:৪২সূর্যাস্ত - ০৫:৩০
পড়ুন