গঙ্গাচড়ায় তিস্তা সংযোগ সড়কে ধস
গঙ্গাচড়া (রংপুর) সংবাদদাতা১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
গঙ্গাচড়ায় তিস্তা সংযোগ সড়কে ধস

উদ্বোধনের আগেই গঙ্গাচড়ায় আবারো ধসে গেছে তিস্তা সংযোগ সড়কের সেতু ও কালভার্টের ব্লক পিচিং। ফলে ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে মহিপুর-কাকিনা সংযোগ সড়ক।

জানা যায়, উজান থেকে নেমে আসা ঢলে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নদীর গতিপথ পরিবর্তন হয়ে পানি তীব্র বেগে মহিপুর-কাকিনা তিস্তা সংযোগ সেতুর সংযোগস্থলে আঘাত হানায় সদ্যনির্মিত ব্লক পিচিং ধসে পড়েছে। সংযোগ সড়কের ভাঙন ঠেকাতে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর, কালিগঞ্জ লালমনিরহাট এর লোকজন সেতুর সামনে জরুরি ভিত্তিতে বালির বস্তা ডাম্পিং করছেন।

স্থানীয় লোকজন বলছেন, পানি মূল তিস্তায় না গিয়ে কোলকোন্দ ইউনিয়নের বিনবিনা নামক স্থান দিয়ে গতিপথ পরিবর্তন করে আর একটি চ্যানেল তৈরি করেছে। আর মূল তিস্তার চেয়ে নতুন চ্যানেলের পানির স্রোত ও তীব্রতা অনেক বেশি। গত বছরও পানির আঘাতে সংযোগ সেতুর পিচিং ব্লক ধসে যায়। সেই অংশে আবারো ভাঙন দেখা দিয়েছে। 

 সরেজমিনে দেখা যায়, পানি তীব্রবেগে এসে আঘাত করছে সেরাজুল মার্কেট এলাকায় নির্মিত ব্রিজের দুই কোনায়। ব্রিজের দক্ষিণ পাশের সংযোগস্থলে সাম্প্রতিককালের ব্লক-পিচিং ধসে গেছে। তাছাড়া ইচলি এলাকায় একটি কালভার্টের দুই পাশে ভাঙন দেখা দিয়েছে। লোকজন ভাঙন ঠেকাতে বালির বস্তা দিচ্ছে। এসময় স্থানীয় লোকজন বলেন, উজানে বাঁধ না দিলে এই ব্রিজ ও কালভার্ট রক্ষা করা যাবে না। সেই সাথে রাস্তাঘাট-ঘরবাড়ি ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সবই ভেঙে যাবে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি) কালীগঞ্জের উপ-সহকারী প্রকৌশলী তারিকুজ্জামান কাজ পরিদর্শনকালে ভাঙনের কথা স্বীকার করে বলেন, ভাঙন রোধে বালির বস্তা ডাম্পিং করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মহিপুর-কাকিনা তিস্তা সড়ক সেতুর উদ্বোধন করবেন বলে এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:২৮
যোহর১১:৫৫
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০৮
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৫:৪৪সূর্যাস্ত - ০৬:০৩
পড়ুন