ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৯ ফাল্গুন ১৪২৫
২৭ °সে

ঝিনাইদহে ভারতের কাশ্মিরি জাতের আপেল কুল চাষ শুরু

ঝিনাইদহে ভারতের কাশ্মিরি  জাতের আপেল কুল চাষ শুরু

ঝিনাইদহ জেলায় ভারতের কাশ্মিরি জাতের আপেল কুল চাষ শুরু হয়েছে। ভারত থেকে কুল গাছের কচি ডগা এনে চারা তৈরি করে এ জাতের কুলের চাষ করেছেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না গ্রামের তিন ভাই আনিসুর রহমান, রবিউল ইসলাম ও আলাউদ্দিন আহমেদ। কুলগুলো দেখতে আপলের মতো ও আকর্ষণীয়।

চাষি আনিসুর রহমাম জানান, ইন্টার নেটে ছবি দেখে কাশ্মিরি জাতের আপেল কুল সম্পর্কে জানাতে পারি। ভাতিজাকে পাসপোর্ট করে ভারতে পাঠাই। উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বনগাঁ থানার চৌবাড়িয়া গ্রামে এ কুলের সন্ধান পায়। সেখান থেকে কাশ্মিরি আপেল কুল গাছের আড়াই হাজার কচি ডগা কিনে আনেন। এ ডগা দেশে এনে দেশি কুল গাছের সাথে কলম করে চারা তৈরি করা হয়। গত বছরের জ্যৈষ্ঠ মাসে চারাগুলো জমিতে লাগান হয়। তিন ভাইয়ের সাত বিঘা জমিতে চারা লাগানো হয়েছে। এরমধ্যে আগাম লাগানো সাড়ে তিন বিঘার গাছে কুল ধরছে।

সরেজমিনে কুল বাগান ঘুরে দেখা যায়। বাগান জুড়ে গাছগুলো কুলে পরিপূর্ণ। কুলের ভারে ডাল নুয়ে পড়ছে। এ জাতের কুল বাউ কুলের চেয়ে আকারে বড়। দেখতে অনেকটা আপেলের মতো। একেকটি গাছে ৩০ কেজি থেকে এক মণ কুল ধরেছে। একেকটি কুলের ওজন ৫০ গ্রাম থেকে ৭০ গ্রাম। কয়েক দিনের মধ্যে কুল পাকতে শুরু করবে। এ জাতের কুল অন্য জাতের কুলের চেয়ে সুমিষ্ট ও ভাল স্বাদের। ইতোমধ্যে কুলের ব্যাপারি আসতে শুরু করেছে। তারা তিন বিঘা বাগানের কুলের ৬ লাখ ৭৫ হাজার টাকা দাম দিয়েছে বলে আনিসুর রহমান জানান। নিজেরা বিক্রি করলে কমপক্ষে ১০ লাখ টাকা হবে বলে আশা তাদের। ঢাকায় কুল ব্যসায়ীদের সাথে যোগাযোগ করেছেন। তারা বলেছেন প্রতি কেজি কুলের দাম একশ টাকার বেশি হবে।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মোফাক্খারুল ইসলাম জানান, এ জাতের কুলের চাষ আমাদের দেশে প্রথম। দেশে প্রচলিত কুলের থেকে এ কুলের জাত ভিন্ন। এটি একটি সম্ভাবনাময় ফল হবে। পুষ্টিমানও বেশি বলে তিনি জানান।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন