ঢাকা শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২২ °সে

রেলস্টেশন না হাটবাজার?

রেলস্টেশন না হাটবাজার?
আত্রাই (নওগাঁ):রেলওয়ে পশ্চিম জোনের আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ (আত্রাইঘাট) রেলস্টেশনে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা দোকানপাট —ইত্তেফাক

রেলওয়ে পশ্চিম জোনের আত্রাই উপজেলার আহসানগঞ্জ (আত্রাইঘাট) রেলস্টেশনে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে অসংখ্য দোকানপাট। বর্তমানে প্লাটফর্মের বেশিরভাগ জায়গা চলে গেছে এসব দোকানির দখলে। এছাড়া দীর্ঘদিন স্টেশনটি সংস্কার না করায় যাত্রীদের দারুণ দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, প্লাটফর্মের টিকিট কাউন্টার থেকে শুরু করে অপরপ্রান্ত পর্যন্ত ঠাসাঠাসি করে দোকানপাট গড়ে ওঠায় যাত্রীরা প্লাটফর্মে ঠিকমতো দাঁড়াতেও পারেন না। বসার জন্য নেই কোনো জায়গা। সরকার দলীয় কোনো মন্ত্রী-এমপি অথবা রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা যখন স্টেশনে আসেন তখন রাতারাতি অবৈধ দোকানপাট উধাও হয়ে প্লাটফর্মটি ছিমছাম হয়ে যায়। আবার মন্ত্রী-এমপি অথবা রেলওয়ের কর্মকর্তারা চলে গেলে প্লাটফর্মটি আগের মতোই হাট-বাজারে পরিণত হয়। জানা গেছে, অনেক দোকানে গাঁজা-ফেনসিডিল বিক্রি হয়।

১৯২৭ সালে প্রতিষ্ঠিত এ স্টেশনে প্রথম শ্রেণির যাত্রীদের বসার কক্ষটি বহু বছর আগে থেকেই ব্যবহার অনুপযোগী। দ্বিতীয় শ্রেণির বিশ্রামাগারটি দখল করে আছে রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনী। স্টেশনে ব্যক্তি উদ্যোগে একটি শৌচাগার থাকলেও সেটি স্বাস্থ্যসম্মত নয়। স্টেশনে কোনো টিউবওয়েল না থাকায় যাত্রীরা পানীয় জল সংকটে ভোগেন। স্টেশনের টিনের ছাউনিতে বড় বড় ছিদ্র হয়ে গেছে। সামান্য বৃষ্টিতেই যাত্রীদের ভিজতে হয়। এছাড়া স্টেশনের বেশিরভাগ বৈদ্যুতিক বাল্ব নষ্ট, রাতে যাত্রীদের অন্ধকারে নিরাপত্তাহীনভাবে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে হয়। এতসব সমস্যা ও অভিযোগের ব্যাপারে স্টেশন মাস্টার মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘অবৈধ দোকানপাটের ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে বারবার বলা সত্ত্বেও কোনো ফল হয়নি।’

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮
আর্কাইভ
 
বেটা
ভার্সন