ঢাকা শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২২ °সে

কুমিল্লার ছয়টি আসনে মনোনয়ন লড়াইয়ে স্বামী-স্ত্রী, বাবা-ছেলে ও ভাই-বোন

কুমিল্লার ছয়টি আসনে মনোনয়ন লড়াইয়ে  স্বামী-স্ত্রী, বাবা-ছেলে ও ভাই-বোন

মোঃ লুত্ফুর রহমান, কুমিল্লা প্রতিনিধি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রাচীন জেলা কুমিল্লার ১১টি আসনে জোট ও মহাজোটের তরুণ ও হেভিওয়েট নেতাসহ মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ব্যাপক তত্পরতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এরমধ্যে জেলার ছয়টি আসনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পেতে লড়াইয়ে নেমেছেন স্বামী-স্ত্রী, বাবা-ছেলে ও ভাই-বোন। এ ছাড়া দুই দলের সাবেক এমপি-মন্ত্রীসহ নতুন মুখের মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যাও অনেক বেশি। তারা দল কিংবা জোট-মহাজোটের মনোনয়ন পেতে হাইকমান্ডে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন। সবমিলিয়ে জেলাজুড়ে বিরাজ করছে নির্বাচনী আমেজ।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ অন্য দলগুলো মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করে। এ নির্বাচনে দল কিংবা জোট-মহাজোটের প্রার্থী হতে জেলার ৬টি সংসদীয় আসন এলাকার একই পরিবারের একাধিক সদস্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে আলোচনার ঝড় সৃষ্টি করেছেন। এদের মধ্যে রয়েছেন বাবা-ছেলে, স্বামী-স্ত্রী, ভাই-বোন ও সহোদর। পরিবার কেন্দ্রিক এসব মনোনয়নপত্র সংগ্রহের মাধ্যমে তারা নির্বাচনী মাঠে নতুনমাত্রা যোগ করেছেন। এ ছাড়া আসন্ন এ নির্বাচনে তরুণ ও নতুন মুখের মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যাও অনেক বেশি।

সূত্র জানায়, জেলার কুমিল্লা-১ (দাউদকান্দি-মেঘনা) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন বর্তমান এমপি মেজর জেনারেল (অব.) সুবিদ আলী ভুঁইয়া ও তার ছেলে দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন। এ আসনে বিএনপি থেকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন ও তার ছেলে দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মারুফ হোসেন মনোনয়নপত্র কিনেছেন। কুমিল্লা-৩ (মুরাদনগর) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার এবং তার ছেলে কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব ড. আহসানুল আলম সরকার (কিশোর) দলের মনোনয়নপত্র কিনেছেন। এ আসনে বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন সাবেক মন্ত্রী ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিঞা ও তার স্ত্রী দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ড. শাহিদা রফিক এবং সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও দলের ভাইস-চেয়ারম্যান কাজী শাহ মোফাজ্জল হোসেইন কায়কোবাদ, তার ভাই কাজী মুজিবুল হক ও কাজী জুন্নুন বশরী।

কুমিল্লা-৪ (দেবিদ্বার) আসনে বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন দলের কুমিল্লা উত্তর জেলা কমিটির সভাপতি ও সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল আহসান মুন্সি, তার স্ত্রী কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মাজেদা আহসান মুন্সি এবং ছেলে কুমিল্লা উত্তর জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রিজবিউল আহসান মুন্সি।

কুমিলা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনেও মনোনয়নপত্র কিনেছেন স্বামী-স্ত্রী। এখানে বিএনপি থেকে দলের বুড়িচং উপজেলা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এটিএম মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী বুড়িচং উপজেলা বিএনপির সদস্য খাদিজা রহমান দোলা।

কুমিল্লা-৬ (আদর্শ সদর ও কুমিল্লা সিটি করপোরেশন) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে দলের প্রবীণ নেতা অধ্যক্ষ আফজল খানের ছেলে এফবিসিসিআই’র পরিচালক মাসুদ পারভেজ খান ইমরান সিআইপি এবং মেয়ে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের সাবেক প্যানেল মেয়র আঞ্জুম সুলতানা সীমা মনোনয়নপত্র কিনেছেন।

কুমিল্লা-৭ (চান্দিনা) আসনে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র কিনেছেন বর্তমান এমপি ও সাবেক ডেপুটি স্পিকার অধ্যাপক আলী আশরাফ এবং তার ছেলে এফবিসিসিআই পরিচালক মুনতাকিম আশরাফ।

কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সরকার ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া বলেন, ‘বড় দলে অধিক নেতা, তাই মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যাও অধিক হবে এটাই স্বাভাবিক। এ ছাড়া পরিবারের একাধিক সদস্যের মনোনয়নপত্র সংগ্রহের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট পরিবারের একজনের দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত করার একটি কৌশল বলে মনে করা যেতে পারে। তবে দল যাকে মনোনয়ন দেবে তার পক্ষেই সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবে।’

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮
আর্কাইভ
 
বেটা
ভার্সন