ঢাকা মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫
২৮ °সে

প্রতিবন্ধীদের অধিকার সুরক্ষা

প্রতিবন্ধীদের অধিকার সুরক্ষা

সরকারি চাকুরিতে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি, সংখ্যালঘু নৃ-গোষ্ঠীসহ অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর অধিকার নিশ্চিত করিতে সরকার নীতিমালা প্রণয়ন করিতেছে। প্রতিবন্ধী, সংখ্যালঘু নৃ-গোষ্ঠী বা অনগ্রসর জাতিগোষ্ঠী যেন যথাযথভাবে চাকুরি পায় এবং চাকুরিতে তাহাদের অধিকার নিশ্চিত হয়, নীতিমালায় সেই ব্যবস্থা করা হইবে। সোমবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২৭তম আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস এবং ২০তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ঘোষণা দেন। প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে আমরা স্বাগত জানাই। তাঁহার ঘোষণার মাধ্যমে কোটা সংস্কার আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে কোটা বাতিল করিবার যেই সিদ্ধান্ত সরকার গ্রহণ করিয়াছে, তাহার ফলে প্রতিবন্ধী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর মানুষের মধ্যে যে বঞ্চিতের অনুভূতির জন্ম হইয়াছিল, তাহা দূর হইবে।

প্রধানমন্ত্রী বলিয়াছেন, ১৯৯৬ সালে সরকারে আসার পর হইতেই প্রতিবন্ধীদের অধিকার সুরক্ষায় তাঁহার সরকার কাজ করিয়া যাইতেছে। আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন-২০১৩’ এবং ‘নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্ট আইন-২০১৩’ নামক দুইটি আইন পাস হয়। ইতোমধ্যে ইহার বিধিমালাও প্রণয়ন করা হইয়াছে। নির্দেশনা দেওয়া হইয়াছে যত স্থাপনা হইবে প্রতিটি জায়গায় প্রতিবন্ধীদের যাতায়াতের এবং অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা যেন থাকে। প্রদত্ত নির্দেশনায় বিশেষ টয়লেটের ব্যবস্থাসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য সকল স্থানে তাহাদের জন্য যেন যথাযথ সুযোগ-সুবিধা থাকে সেই কথাও বলা হইয়াছে সুস্পষ্টভাবে। বর্তমানে ১৬ লাখ প্রতিবন্ধীকে নিয়মিত ভাতা দেওয়া হইতেছে। এইভাবে সরকার সংবেদনশীলতার সহিত প্রতিবন্ধীদের নানান সমস্যাকে বিবেচনা করিতেছে এবং প্রয়োজনীয় সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি করিতেছে। ইহা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়। বস্তুত একটি দেশ কতটুকু সভ্য ও উন্নত হইয়াছে তাহা বোঝা যায়, তাহার অনগ্রসর জনগোষ্ঠী এবং প্রতিবন্ধীদের জন্য কীরকম সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি করিতেছে তাহার উপর। বাংলাদেশ সেই দিকে ধীরে ধীরে অগ্রসর হইতেছে। আমাদের সংবিধানেও অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর জন্য সকল পর্যায়ে সমান অধিকার নিশ্চিত করিবার পাশাপাশি বিশেষ সুযোগ সৃষ্টির নির্দেশনা দেওয়া হইয়াছে। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে প্রত্যাশিতভাবে সেই অঙ্গীকারেরই প্রতিফলন ঘটিয়াছে জোরালোভাবে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১১ ডিসেম্বর, ২০১৮
আর্কাইভ
 
বেটা
ভার্সন