জনগণ উন্নয়ন না দেখলে করদানে উত্সাহী হবে না
স্থানীয় সরকার বিষয়ে ব্র্যাক ভার্সিটির সেমিনার
g ইত্তেফাক রিপোর্ট৩১ জুলাই, ২০১৬ ইং
স্থানীয় সরকারের সদস্যগণ সত্যিকার অর্থে ক্ষমতায়িত নন। তারা সরকারি কর্মকর্তাদের বার্ষিক পারফরম্যান্স প্রতিবেদন লিখেন না, বেতন প্রদানে তাদের এখতিয়ার নেই, তাদের কাছে সরকারি কর্মকর্তাদের দায়বদ্ধতা নেই এবং উপজেলা পরিষদের তহবিল নিয়ন্ত্রণেও তাদের কোনো ক্ষমতা নেই। সংসদ সদস্যগণ স্থানীয় সরকারের সকল বিষয়ে নাক গলান, এতথ্য প্রকাশ পায় স্থানীয় সরকার বিষয়ে ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব গভর্ন্যান্স এন্ড ডেভলপমেন্ট (বিআইজিডি), ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত সেমিনারে। তাই অবস্থা পরিবর্তনে রাজনৈতিক সদিচ্ছা, গণতান্ত্রিক রীতি-নীতি, জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার রক্ষার তাগিদ দেন বক্তারা।

গতকাল শনিবার নগরীর বনানীতে একটি হোটেলে এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়। বিআইজিডির নির্বাহী পরিচালক ড. সুলতান হাফিজ রহমানের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, বিশেষ অতিথি ছিলেন সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত ক্রিশ্চিয়ান ফচ। এতে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ ড. বদিউল আলম মজুমদার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের সভাপতি, অধ্যাপক ড. আখতার হোসেন, মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডা. মালেকা বানু এবং দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার ড. নাসির উদ্দিন আহমেদ, বিআইজিডির গবেষক সিমিন মাহমুদ এবং সুইজারল্যান্ডের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা (এসডিসি)-এর কর্মকর্তা মেলিনা ত্রিপোলিনী। সেমিনারে ইউনিয়ন পরিষদের রাজস্ব আহরণ, নারীর প্রতিনিধিত্ব এবং উপজেলা পরিষদে হস্তান্তরিত দপ্তরসমূহের জবাবদিহিতা বিষয়ে তিনটি পৃথক গবেষণা প্রতিবেদনের সারসংক্ষেপ উপস্থাপন করেন ড. সুলতান হাফিজ রহমান, মাহিন সুলতান এবং ড. মির্জা হাসান।

অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেন, মহান মুক্তিসংগ্রামের মাধ্যমে অর্জিত সংবিধানে যে রাজনৈতিক সদিচ্ছা, গণতান্ত্রিক রীতি-নীতি এবং সকল ক্ষেত্রে জবাবদিহিতা প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার ব্যক্ত হয়েছিল তা রক্ষা করতে হবে। আমরা নিজেরাই আমাদের অঙ্গীকার রক্ষা করছি না। স্থানীয় সরকারের রাজস্ব আহরণ সম্পর্কে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক এই উপদেষ্টা বলেন, করদানের সঙ্গে উন্নয়নের সরাসরি সম্পর্ক থাকা সঙ্গত। কারণ, জনগণ উন্নয়ন না দেখলে কর দিতে উত্সাহিত হবেন না।

ক্রিশ্চিয়ান ফচ বলেন, বাংলাদেশে দারিদ্র্য বিমোচনের জন্য আমরা স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহের সক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা দিচ্ছি। তিনি এসডিসি-এর ২০১৩ থেকে ২০১৫ সনে বাংলাদেশে ২৭৭টি ইউনিয়ন পরিষদে সহযোগিতার উল্লেখ করে বলেন, যেখানে ইউনিয়ন পরিষদের সক্ষমতা এবং জনগণের সচেতনতা বাড়ানো গেছে সেখানে শতকরা ১৮ ভাগ হারে রাজস্ব আহরণ বেড়েছে। সংরক্ষিত আসনের নারী প্রতিনিধিরা সাধারণ আসনের পুরুষ জনপ্রতিনিধিদের সমান ক্ষমতা ভোগ করছে না এবং সংরক্ষিত আসনে নারীরা আবদ্ধ হয়ে পড়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।   

ড. সুলতান হাফিজ কর মূল্যায়ন প্রশিক্ষণসহ স্থানীয় সরকারের জনবল ও কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক বিভিন্ন প্রশিক্ষণের উপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বিভিন্ন আয়োজনের মাধ্যমে জনগণের সচেতনতা বৃদ্ধি এবং কর আদায়ে স্থানীয় সরকারের সৃজনশীল উদ্যোগ গ্রহণের পক্ষে মত দেন।

ড. মির্জা হাসান স্থানীয় সরকারে স্থানীয় সংসদ সদস্যের উপদেষ্টা হিসেবে অন্তর্ভুক্তিকে সকল সমস্যার মা বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, স্থানীয় সরকারের সদস্যগণ সত্যিকার অর্থে ক্ষমতায়িত নন।

ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, বাংলাদেশে স্থানীয় সরকারে আসন সংরক্ষণ পদ্ধতিটিই ত্রুটিপূর্ণ। এবং গত কয়েকটি নির্বাচনে নারীর অংশগ্রহণ ক্রমাগত কমছে। এক্ষেত্রে তিনি ভারতের ঘূর্ণায়মান পদ্ধতি চালুর পক্ষে মত দেন, যে পদ্ধতিতে নারীরা সাধারণ আসনের সমান ক্ষমতা ও মর্যাদা ভোগ করেন।

ড. আখতার হোসেন উপজেলা পরিষদে হস্তান্তরিত দপ্তর প্রসঙ্গে বলেন, কার্যকর অর্থে কোনো দপ্তরই হস্তান্তরিত হয়নি। হস্তান্তর এবং জনপ্রতিনিধিদের ক্ষমতায়িত করার প্রচেষ্টা চালু রাখতে হবে। তিনি জনপ্রতিনিধিদের কাছে নিয়োগদানের কর্তৃত্ব রাখা এবং স্থানীয় সরকারের একটি সার্ভিস ব্যবস্থা চালু করার পক্ষে মত দেন।

ডা. মালেকা বানু বলেন, বাংলাদেশের নারীসমাজ এবং মহিলা পরিষদ বহু বছর ধরে সামগ্রিকভাবে তৃণমূল থেকে সংসদ— সকল পর্যায়ে নীতি নির্ধারণে নারীর সম অংশগ্রহণের জন্য কাজ করছে। এক্ষেত্রে তিনি রাজনৈতিক দলসহ সকলের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করার আহ্বান জানান।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩১ জুলাই, ২০১৭ ইং
ফজর৪:০৪
যোহর১২:০৫
আসর৪:৪৩
মাগরিব৬:৪৫
এশা৮:০৫
সূর্যোদয় - ৫:২৭সূর্যাস্ত - ০৬:৪০
পড়ুন