এবার নাম প্রত্যাহার করলেন ট্রাম্প মনোনীত শ্রমমন্ত্রী
নতুন প্রশাসনে বড় ধাক্কা
বিবিসি১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
আবারো ধাক্কা খেলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এবার প্রেসিডেন্টের মনোনীত শ্রমমন্ত্রীর পদ থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন বিলিওয়ানার ফাস্টফুড ব্যবসায়ী অ্যান্ডি পুজডার। ধারণা করা হচ্ছে, সিনেটে অনুমোদন না পাওয়ার সম্ভাবনা আঁঁচ করতে পেরে আগেভাগেই সরে গেছেন তিনি।

‘সতর্ক বিবেচনা ও পরিবারের সঙ্গে আলোচনার’ পর বুধবার এক বিবৃতিতে নাম প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন পুজডার। এর আগে শ্রমমন্ত্রী পদে অনুমোদন পেতে মার্কিন সিনেটের দীর্ঘ শুনানিতে অংশ নেন তিনি। এসময় গৃহপরিচারক হিসেবে একজন অবৈধ অভিবাসীকে নিয়োগ দেয়ার কথা স্বীকার করে বেশ সমালোচিত হন তিনি। একই সঙ্গে বিখ্যাত টিভি রিয়েলিটি শো অপেরা উইনফ্রেতে অংশ নিয়ে পুজডারের সাবেক স্ত্রী লিসা ফিয়েরস্টেইন তার বিরুদ্ধে শারীরিক নির্যাতনের অভিযোগ তুললে আরেক দফা সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। এসবের প্রেক্ষিতে বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী রিপাবলিকান সিনেটর তার ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে নেন। ‘শ্রমিকবান্ধব নয়’ বলে যুক্তরাষ্ট্রে পুজডারের বেশ সমালোচনা রয়েছে। তিনি দেশটির জনপ্রিয় সি কে ই রেস্টুরেন্টের প্রধান নির্বাহী। ৪০ লাখের বেশি শ্রমিকের ওভারটাইমের মজুরি বৃদ্ধির একটি সরকারি প্রস্তাবের তীব্র সমালোচক ছিলেন। তিনি ফাস্টফুড রেস্টুরেন্টগুলোর কর্মীদের ন্যূনতম মজুরি প্রতি ঘন্টায় ১৫ ডলার নির্ধারণের ঘোর বিরোধী।

ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যে পুজডারই প্রথম ব্যক্তি যিনি নিয়োগের আগেই নিজের নাম প্রত্যাহার করলেন। এটা নতুন প্রেসিডেন্টের প্রশাসন সাজানোর ক্ষেত্রে আরেকটি বড় ধাক্কা বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন। এখন পর্যন্ত একাধিক শীর্ষ পদে পরিবর্তন আনতে হয়েছে তাকে। এর আগে রাশিয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথিত অভিযোগের জেরে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন পদত্যাগ করেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং
ফজর৫:১৪
যোহর১২:১৩
আসর৪:১৮
মাগরিব৫:৫৮
এশা৭:১১
সূর্যোদয় - ৬:৩০সূর্যাস্ত - ০৫:৫৩
পড়ুন