সংবাদ সম্মেলনে মেয়ের বাল্য বিয়ের খবর অস্বীকার করলেন এমপি
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি২০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
এমপি সালাহউদ্দিন আহম্মেদ মুক্তি নিজে মুক্তাগাছা উপজেলাকে বাল্যবিয়ে মুক্ত ঘোষণা করে ১৫ দিনের মধ্যেই নিজের মেয়েকে শুক্রবার বাল্যবিয়ে দিয়ে ব্যাপক আলোচিত ও সমালোচিত হয়েছেন। বাল্যবিয়ের পাত্র হচ্ছেন পুলিশের এসআই ওবায়দুর রহমান কায়সার। এ নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। এরই প্রতিবাদে রবিবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহের একটি হোটেলে এমপি সালাহউদ্দিন আহম্মেদ মুক্তি সংবাদ সম্মেলন করেন।

গত ৩১ জানুয়ারি মুক্তাগাছা উপজেলা পরিষদ মাঠে ঢাকঢোল পিটিয়ে এমপি নিজেই মুক্তাগাছা উপজেলাকে বাল্যবিয়ে মুক্ত ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে ১৭ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার একই মঞ্চে তার দুই মেয়ে মাসকুরা মীম পায়েল ও অপ্রাপ্ত বয়স্কা আফসানা মীম প্রিয়ন্তীকে জামজমকপূর্ণভাবে বিয়ে দেন। আলোচিত এ দুই বিয়ের পাত্র হচ্ছেন পুলিশের এসআই ওবায়দুর রহমান কায়সার ও দুদক এর উপ-সহকারী পরিচালক সাইদুজ্জামান নন্দন। এ অনুষ্ঠানে বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদসহ বিভাগ ও জেলা পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা যোগাদান করেন।

এদিকে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ময়মনসিংহ ৫ আসন থেকে জাতীয় পার্টির এমপি সালাহউদ্দিন আহম্মেদ মুক্তি সংবাদ সম্মেলন করে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য একটি স্বার্থান্বেষী মহল এ চক্রান্ত করছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি দাবি করেন তার বড় মেয়ে মাসকুরা মীম পায়েলের বয়স ২০ বছর ৬ মাস ও ছোট মেয়ে আফসানা মীম প্রিয়ন্তীর বয়স ১৯ বছর ১৮ দিন। কাজেই বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত সংবাদকে তিনি মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর দাবি করে নিন্দা জানিয়েছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
ফজর৫:১২
যোহর১২:১৩
আসর৪:২০
মাগরিব৬:০০
এশা৭:১৩
সূর্যোদয় - ৬:২৮সূর্যাস্ত - ০৫:৫৫
পড়ুন