ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠানের পদক্ষেপ না নেওয়ায় ভিসির বিরুদ্ধে মামলা
ইত্তেফাক রিপোর্ট১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠানের পদক্ষেপ না নেওয়ায় ভিসির বিরুদ্ধে মামলা
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন আয়োজন না করায় হাইকোর্টে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ সংক্রান্ত আইনি নোটিশের যথাযথ জবাব না দেওয়ায় গতকাল বুধবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, প্রক্টর, কোষাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে আগামী সপ্তাহে এ আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।

ডাকসু নির্বাচন ছয় মাসের মধ্যে অনুষ্ঠানের জন্য ঢাবি কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। ওই আদেশে নির্বাচনের সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহায়তা দরকার হলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সে বিষয়ে ‘যথাযথ সহযোগিতা’ দিতেও বলেন আদালত। গত জানুয়ারি মাসে দেয়া ওই রায়ের পর প্রায় আট মাস পেরিয়ে গেলেও এ বিষয়ে কার্যকর পদক্ষেপ না নেওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মো. আখতারুজ্জামান, প্রক্টর ড. একেএম গোলাম রাব্বানি ও কোষাধ্যক্ষ ড. কামাল উদ্দিনকে গত ৪ সেপ্টেম্বর উকিল নোটিশ দেন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। কিন্তু যথাযথ জবাব না পেয়ে হাইকোর্টে মামলা করেন তিনি। মনজিল মোরসেদ বলেন, ভিসির পক্ষে একজন আইনজীবী একটা জবাব দিয়েছেন। সেটা যথাযথ নয়। ডাকসু নির্বাচনের ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া বলতে তফসিল ঘোষণার বিষয়টিকেই বুঝিয়েছি। কিন্তু এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

১৯৯০ সালে সর্বশেষ ডাকসু নির্বাচন হয়েছিল। বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন দাবি জানালেও এরপর থেকে আর কোনো ডাকসু নির্বাচন হয়নি। ২০১২ সালে আলী আশিক শাওনসহ ৩১ জন শিক্ষার্থী ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন। ওই রিটের শুনানি নিয়ে গত ১৭ জানুয়ারি বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেনের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ ৬ মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠানের নির্দেশ দিয়ে রায় ঘোষণা করেন।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:২৮
যোহর১১:৫৫
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০৮
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৫:৪৪সূর্যাস্ত - ০৬:০৩
পড়ুন