আবারও শুরু হচ্ছে ‘জিপি অ্যাকসেলারেটর’ প্রোগ্রাম
০১ মে, ২০১৬ ইং
আবারও শুরু হচ্ছে ‘জিপি অ্যাকসেলারেটর’ প্রোগ্রাম
নতুন উদ্যোক্তাদের জন্য এসডি এশিয়া এবং গ্রামীণফোনের উদ্যোগে আবারও শুরু হচ্ছে ‘জিপি অ্যাকসেলারেটর’ প্রোগ্রাম। শীঘ্রই শুরু হবে দ্বিতীয় পর্বের বাছাই কার্যক্রম। যেসব উদ্যোক্তা ব্যবসা শুরুর মাঝপথে এসে প্রয়োজনীয় ফান্ডের অভাবে পিছিয়ে যান কিংবা সঠিক দিক নির্দেশনার অভাবে ব্যবসা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হন, তাদের জন্যই সুযোগ থাকছে অ্যাকসেলারেটর প্রোগ্রামে। এ কার্যক্রম সম্পর্কে এসডি এশিয়ার সহপ্রতিষ্ঠাতা সামাদ মিরালি বলেন, ‘জিপি অ্যাকসেলারেটর টিম নতুন পাঁচটি স্টার্টআপ নিয়ে কাজ শুরু করার জন্য মুখিয়ে আছে। আশা করছি নতুন ব্যাচ আরও সুন্দর করে শুরু করতে পারব। নতুন স্টার্টআপদের সাথে কাজ করতে এখন আমরা পুরোপুরি প্রস্তুত’। জিপি অ্যাকসেলারেটর প্রোগ্রামের প্রোজেক্ট ডিরেক্টর ফয়সাল কবির বলেন, ‘সেরা দলের চেয়ে উপযুক্ত দলই বেছে নেয়ার লক্ষ্য আমাদের। প্রেজেন্টেশন পর্ব থেকে নতুন প্রোডাক্ট তৈরি পর্যায়ে নিয়ে আসছে এসব স্টার্টআপ। অনেক ভালো আইডিয়া হয়েও কাস্টমারদের সেরা সেবা দিতে পারছে কিনা সেটাও আমরা চিন্তা করে দেখছি। নতুন ব্যাচের ক্ষেত্রে সেসব দিকও বিবেচনা করা হবে’। নতুন সব টেক স্টার্টআকে সুযোগ করে দেবে জিপি অ্যাকসেলারেটর প্রোগ্রাম। দ্বিতীয় পর্বের জন্য সেরা ৫টি স্টার্টআপ বাছাই করা হবে। সেই প্রক্রিয়ার শেষে ডেমো ডে’তে তাদের প্রজেক্টগুলো বিনিয়োগকারীদের সামনে তুলে ধরা হবে। নির্বাচিত প্রকল্পগুলো তাদের প্রজেক্ট বাস্তবায়নের জন্য ১০ লক্ষ টাকা পাবেন। এ ছাড়াও তারা গ্রামীনফোনের প্রধান কার্যালয় ‘জিপি হাউজে’ তাদের প্রকল্প নিয়ে কাজ করার জন্য অফিস স্পেস পাবেন। এই প্রকল্পের প্রধান লক্ষ্য হবে সম্ভাবনাময় টেক স্টার্ট-আপ গুলো সঠিক মেন্টরশিপ এবং ফান্ডের মাধ্যমে এগিয়ে নেয়া। প্রযুক্তি নিয়ে যেকোনো স্টার্টআপই এই প্রোগ্রামে অংশ নিতে পারবেন। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সবচেয়ে সম্ভাবনাময় সেরা ৫টি স্টার্ট আপ খুঁজে নেবার দায়িত্ব যৌথভাবে পালন করবে এসডি এশিয়া এবং গ্রামীণফোন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১ মে, ২০১৭ ইং
ফজর৪:০৪
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩২
মাগরিব৬:৩০
এশা৭:৪৭
সূর্যোদয় - ৫:২৪সূর্যাস্ত - ০৬:২৫
পড়ুন