মেলায় রাজনীতি বিষয়ক বই
ইত্তেফাক রিপোর্ট১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
মেলায় রাজনীতি বিষয়ক বই
গল্প-উপন্যাস, ছড়া বা কবিতার বই বিক্রির শীর্ষে থাকে। বইমেলায় গল্পের বাইরে এখন বিষয়ভিত্তিক বইয়ের চাহিদা বাড়ছে। বিজ্ঞানের বই, ইতিহাসভিত্তিক বই, অনুবাদ গল্পের বইয়ের চাহিদাও কম নয়। তবে এসবের পাশাপাশি রাজনীতি বিষয়ক বইয়ের রয়েছে আলাদা কদর। রাজনীতির মারপ্যাচ, ফেলে আসা সময়ে রাজনীতির খেলার কথা পড়বার আগ্রহ দেখা যাচ্ছে পাঠকের কাছে। তবে বামপন্থি ভাবনা, সাম্যের সমাজ ভাবনার বইয়ের কদর সবচেয়ে বেশি। এর বাইরেও বাংলাদেশের রাজনীতি, বিএনপি, আওয়ামী লীগের নেতাদের রাজনৈতিক নিবন্ধের চাহিদাও কম নয় তাদের অনুসারীদের কাছে। পাঠকের আগ্রহ থাকায় এ ধরনের বই বেশ গুরুত্ব দিয়েই প্রকাশ করেন প্রকাশকরা।

এবারের বইমেলায় রাজনীতি বিষয়ক বেশ কিছু বই প্রকাশ হয়েছে। পাশাপাশি রাজনীতিবিদরাও লিখেছেন রাজনীতিসহ নানা বিষয় নিয়ে। মেলার প্রথম দিনেই প্রকাশ হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লেখা ‘নির্বাচিত প্রবন্ধ’ বইটি। এটি প্রকাশ করেছে আগামী প্রকাশনী। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের লেখা বেশ কয়েকটি বই মেলায় এসেছে। চন্দ্রাবতী একাডেমি থেকে প্রকাশ হয়েছে তার লেখা ‘স্মৃতিময় কর্মজীবন’, সময় প্রকাশন থেকে এসেছে ‘আমাদের জাতীয় সংসদ ও নির্বাচন’ ও ‘আমাদের বিপন্ন পরিবেশ’। মিজান পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ‘রচনাসমগ্র’। চারুলিপি থেকে প্রকাশ হয়েছে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের ‘রুখে দাঁড়াবার সময়’। আর সময় প্রকাশন থেকে প্রকাশের অপেক্ষায় আছে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের ‘বেলা অবেলা সারাবেলা ৩য় খণ্ড’ বইটি। আহমদ পাবলিশিং হাউজ থেকে প্রকাশ হয়েছে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের লেখা ‘জরুরি আইনের সরকারের দুই বছর (২০০৭-২০০৮) বইটি।

রাজনীতি বিষয়ক বইয়ের মধ্যে আরো প্রকাশ হয়েছে মুক্তধারা থেকে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর লেখা ‘তাজউদ্দীন আহমদের রাজনৈতিক জীবন’, দি ইউনিভার্সেল একাডেমি প্রকাশ করেছে অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ রচিত ‘গণতন্ত্র এখন’ ও ‘গণতন্ত্রের শত্রুমিত্র’ বই দুটি, অনিন্দ্য প্রকাশ থেকে আহমদ রফিকের ‘সংঘাতময় বিশ্বরাজনীতি’, মুক্তচিন্তা থেকে প্রকাশ হয়েছে আ ন ম আবদুস সোবহানের ‘রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তন’, ভাষাচিত্র থেকে আহমেদ আমিনুল ইসলামের রাজনৈতিক কলাম ‘জন্ম স্মারক ৭০: রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা’, হাতেখড়ি থেকে মাহমুদ শামসুল হকের ‘যুদ্ধাপরাধের বিচার’, ঐতিহ্য থেকে আলতাফ পারভেজের আঞ্চলিক রাজনীতির বই ‘শ্রী লঙ্কার তামিল ইলম’, শোভা প্রকাশ থেকে তারেক শামসুর রেহমানের ‘নয়া বিশ্বব্যবস্থা ও সমকালীন আন্তর্জাতিক রাজনীতি’, শ্রাবণ প্রকাশনী থেকে সুদীপ্ত সালামের ‘গুলশান ট্রাজেডি ও আল কায়দা নেটওয়ার্ক’, একই প্রকাশনী থেকে সাইদুর রহামানের ‘নাইন ইলেভেন সৌদি আরব’, বাংলা একাডেমি থেকে ড. হারুন-অর-রশিদের রাজনৈতিক ইতিহাস বিষয়ক গ্রন্থ ‘মূলধারার রাজনীতি: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাউন্সিল ১৯৪৯-২০১৬’, তপন পালিত রচিত ‘মানবতাবিরোধী অপরাধ বিচার আন্দোলন ১৯৭১-২০১৩’, অন্বেষা থেকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের ‘আন্দোলন-সংগ্রামে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ’ প্রভৃতি।

গতকাল ছিল শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন। আর শিশুপ্রহর থাকায় বইমেলা প্রাঙ্গণ ভরে উঠেছিল সকাল থেকেই। আর বরাবর যা হয় মানুষের স্রোত এসে প্রকাশকদের আনন্দে ভাসিয়ে নিয়ে যায়। গতকালও তার ব্যতিক্রম হয়নি। মানুষ এসেছে স্রোতের মত। কেনাবেচাও হয়েছে খুব ভাল।

মেলা প্রাঙ্গণে

শিশুদের প্রতিযোগিতা

অমর একুশে উদযাপন উপলক্ষে সকালে গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় ‘শিশু-কিশোর সঙ্গীত প্রতিযোগিতা’র প্রাথমিক পর্ব। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সঙ্গীতশিল্পী সুবীর নন্দী। বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী ইয়াকুব আলী খান, আবু বকর সিদ্দিক এবং সাগরিকা জামালী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন শিশুকিশোর সংগীত প্রতিযোগিতা ২০১৭’র আহ্বায়ক রহিমা আখতার কল্পনা। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। ক শাখায় অনুভা হালদার, মিনহাজ জামান শান এবং মানহা মারনিয়া জামান। খ শাখায় তাসনিম সুলতান মহীয়সী, ফারহাত লামিসা, অতন্দ্রীলা পদ্য দে। গ শাখায় আর্ণিকা তাহসীন, নাহিয়ান মাইশা অয়মী এবং কানিজ ফাতেমা। আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি তাদের হাতে পুরস্কার প্রদান করা হবে।

গতকাল একসঙ্গে তরুণ লেখক পরিষদ সদস্যদের পাঁচটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন তরুণ লেখক পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা সাব্বাহ্ আলী খান কলিন্স। এসব বইয়ের মাধ্যমে তরুণ লেখক পরিষদ থেকে ২৭ জন লেখক অংশ নিচ্ছেন।

আজ শনিবার মেলা চলবে সকাল ১১টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত। সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলবে শিশুপ্রহর।

নতুন বই

একাডেমির তথ্যকেন্দ্র থেকে জানা যায় গতকাল মেলায় ২৪১টি নতুন বই এসেছে। এর মধ্যে রয়েছে-চপল মাহমুদের ‘বার্তাবাহক’ (দেশ পাবলিকেশন্স), মোশতাক আহমেদের ‘নরেন্দ্র জমিদারের যুগে’ (পাঞ্জেরী), ইমদাদুল হক মিলনের ‘হাতি গিয়েছিলো মানুষ দেখতে’ (পাঞ্জেরী), আনিসুল হকের ‘গুড্ডু বুড়োর চোরধরা’ (শুভ্র প্রকাশ), ব্রি. জে. এম শাখাওয়াত হোসেনের ‘সন্ত্রাস: দক্ষিণ এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্য’ (পালক), শাকুর মজিদের ‘পৃথিবীর পথে পথে’ (গ্রন্থ কুটির), বদিউল আলম মজুমদারের ‘রাজনৈতিক সংকট উত্তরণে করণীয়’ (আগামী), আনোয়ার হোসেইন মঞ্জুর ‘খুশবন্ত সিংয়ের জোকস’ (নালন্দা), রাসেল আশেকীর ‘পোশাকে লুকানো দুঃখগুলো’ (শান্তির প্রবেশ প্রকাশনা), কালিকলম প্রকাশনী এনেছে ফিরোজা সামাদের ‘ হেমন্তে ঝরা শিউলি’, লেখা প্রকাশনী এনেছে সালেহ আহমেদের ‘গল্প সমগ্র’, বিজ্ঞান একাডেমি এনেছে আলী ইমামের ‘বুক অব নলেজ পাস’, অন্যধারা এনেছে আসলাম সানির ‘পাখি হবার স্বপ্ন’, মওলা এনেছে পিয়াস মজিদের ‘মনীষার মুখরেখা’, ন্যাশনাল পাবলিকেশন্স এনেছে ড. আনু মাহমুদ ‘দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ’, কথা প্রকাশ এনেছে ইমদাদুল হক মিলনের ‘মা মেয়ের উপাখ্যান’, গ্রন্থ কুটির এনেছে অপরেশ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘হাজার কুইজের আসর’, শিক্ষা তথ্য পাবলিকেশন্স এনেছে সাংবাদিক এম এ বাসেরের ‘স্মৃতির কাছে’ প্রভৃতি।

আজকের অনুষ্ঠান

আজ শনিবার সকালে অমর একুশে উদ্যাপন উপলক্ষে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে শিশু-কিশোর সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব। বিকেলে মেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে ‘নব্বই দশকের কবিতা’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন কবি মোস্তাক আহমদ দীন।

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ইং
ফজর৫:১৩
যোহর১২:১৩
আসর৪:১৯
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪
পড়ুন