মোবাইল ফোন ও ৬৩৫ টাকার জন্য খুন করা হয় শুভ্রকে
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
গ্রেফতারকৃত ৪ খুনির স্বীকারোক্তি

g নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

ফতুল্লায় কলেজ ছাত্র শাহরিয়ার মাহমুদ শুভ্র হত্যাকাণ্ডের রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। ভোররাতে সিএনজি দিয়ে যাত্রাবাড়ী যাওয়ার সময় ছিনতাইকারীদের খপ্পরে পড়ে শুভ্র। ছিনতাইকারীরা তার মোবাইল ফোন ও ছয়শ টাকা ছিনিয়ে নেয়। এ সময় বাধা দেওয়ায় তাকে ছিনতাইকারীরা খুন করে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

বুধবার দুপুরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক মফিজুল ইসলাম।

তিনি জানান, গত মঙ্গলবার রাত আড়াইটার দিকে যাত্রাবাড়ী থানার শনির আখড়া এলাকা থেকে ইয়ামিন ওরফে আল আমিন, জালাল, জুয়েল ও রবিন নামের চার ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়। শুভ্রর কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা ছিনতাইয়ের পর তাকে হাত পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে খাদে ফেলে দিয়েছে বলে গ্রেফতারকৃতরা স্বীকার করেছে। 

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে সিএনজি চালক ফতুল্লার ভূঁইগড় এলাকার বেলায়েত হোসেনের ছেলে ইয়ামিন ওরফে আল আমিন (২৩), ঢাকার শনির আখড়ার কেসমত আলীর ছেলে মোঃ জালাল (৩০), সিদ্ধিরগঞ্জের নিমাইকাশারী এলাকার আলম মিয়ার ছেলে জুয়েল (২২) এবং একই এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে রবিন ওরফে রিকশা রবিন (২৮)। 

এ সময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহূত সিএনজি অটো রিকশা, দুইটি ছুরি ও চারটি মোবাইল ফোন, শুভ্রর ব্যবহূত মোবাইল ফোনের সিমকার্ড পাওয়া যায়।

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:২৯
যোহর১১:৫৫
আসর৪:২০
মাগরিব৬:০৭
এশা৭:২০
সূর্যোদয় - ৫:৪৪সূর্যাস্ত - ০৬:০২
পড়ুন