চিতলমারীতে সদ্য আবিষ্কৃত বধ্যভূমি সংরক্ষণের উদ্যোগ
১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
চিতলমারী (বাগেরহাট) সংবাদদাতা

উপজেলার খড়মখালী গ্রামে স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর একটি বধ্যভূমির সন্ধান মিলেছে। ৭১ সালে পাকবাহিনীর হত্যাযজ্ঞের অনেক কাহিনী উঠে এসেছে এখান থেকে। অসংখ্য নিরীহ লোককে সেদিন হত্যা করা হয়েছিল এখানে। এ হত্যাকাণ্ডের ইতিহাস এতোদিন অনেকের কাছে অজানা ছিল। সদ্য আবিষ্কৃত এ বধ্যভূমিটি সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে সংশ্লি­ষ্ট কর্তৃপক্ষ। 

স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ১৯৭১ সালের ৫ আষাঢ় সকাল ১১টার দিকে পাকবাহিনী ও তাদের দোসররা মিলে এ এলাকায় হামলা চালায়। বলেশ্বর নদী দিয়ে গানবোটযোগে ও বাগেরহাট থেকে স্থল পথে তারা প্রবেশ করার পথে নির্বিচারে গুলি চালায়। এ সময় গুলির আওয়াজে লোকজন প্রাণভয়ে এদিক-ওদিক পালাতে থাকে। আশ-পাশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আশ্রয় নিতে আসা লোকজন এবং অনেক গ্রামবাসী উপজেলার চরবানিয়ারী ইউনিয়নের খলিশাখালী ও পূর্বখড়মখালী গ্রামের একটি মাঠের মধ্যে হোগলা ও পাটক্ষেতে আত্মরক্ষার জন্য আশ্রয় নেয়। এ সময় পাকবাহিনী তাদের দেখতে পেয়ে নির্বিচারে গুলি চালিয়ে অসংখ্য নিরীহ লোকজনকে এ স্থানে তারা হত্যা করে। এখানে সেদিন যাদের হত্যা করা হয়েছিল তাদের অনেকের নাম-পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহত অনেকের বাড়ি পিরোজপুর, নাজিরপুর, উজিরপুর ও কচুয়াসহ আশ-পাশের এলাকায় বলে জানা গেছে। স্বাধীনতার ৪৬ বছর পর এ বধ্যভূমিটি সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। ঢাকা থেকে একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে এটিকে যথাযথভাবে সংরক্ষণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

উপজেলার পূর্ব খড়মখালী গ্রামের প্রবীণ গৌর চন্দ্র মজুমদার সেদিনের নৃশংস হত্যাযজ্ঞের কথা তুলে ধরে জানান, সেদিন বলেশ্বর নদী দিয়ে পাকবাহিনী ও তাদের দোসররা আক্রমণ চালায়। গুলির শব্দে চারদিক কেঁপে ওঠে। অনেকে খলিশাখালী ও পূর্বখড়মখালী গ্রামের একটি মাঠের মধ্যে গিয়ে লুকিয়ে থাকে। এ সময় পাকবাহিনী তাদের দেখে ফেলায় গুলি চালিয়ে খড়মখালী গ্রামের বিমল কান্তি হীরা, ভদ্র কান্তি হীরা, রাজদেব হীরা, যোগেন্দ্র নাথ মজুমদার, মহেন্দ্র নাথ মণ্ডল, আদিত্য মজুমদার, নীল কমল মণ্ডল, জিতেন মজুমদার, খগেন মণ্ডল (খোকা), অমীয় চৌকিদারের ভাইসহ আশ-পাশের এলাকা থেকে আশ্রয় নেওয়া বহু লোককে সেখানে হত্যা করা হয়।

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৫:১২
যোহর১১:৫৪
আসর৩:৩৯
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩৫
সূর্যোদয় - ৬:৩৩সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পড়ুন