নূর হোসেনের ২২টি যাত্রীবাহী বাস নিয়ে গেল ইফাদ অটোজ
১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
g  সিদ্ধিরগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা

নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনের এবিএস পরিবহনের ২২টি যাত্রীবাহী বাস নিয়ে গেছে ইফাদ অটোজ কোম্পানি কর্তৃপক্ষ। বকেয়া পরিশোধ না করায় বাসগুলো নিয়ে যায় কোম্পানি। নূর হোসেন কিস্তিতে ২৪টি বাস ক্রয় করেছিলেন। কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হওয়ায় আদালতের নির্দেশে ইফাদ অটোজ সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইলে নূর হোসেনের বাড়ির পাশের বালুর মাঠে থাকা ২২টি যাত্রীবাহী বাস বুঝে নিয়েছে। ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা থাকায় দুইটি বাস নিতে পারেনি।

জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত প্রধান আসামি নূর হোসেন ছয় বছর আগে ঢাকার ইফাদ অটোজ লিমিটেড কোম্পানির কাছ থেকে কিস্তিতে ২৪টি যাত্রীবাহী বাস ক্রয় করেছিলেন। এবিএস পরিবহন নামে ২৪টি বাস শিমরাইল-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচল করত। ২০১৪ সালে সাত খুনের মামলার পর নূর হোসেন পালিয়ে গেলে বাসগুলোর চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দীর্ঘদিন কিস্তি পরিশোধ না করায় ইফাদ অটোজ লিমিটেড কোম্পানির পক্ষে ডেপুটি ম্যানেজার ফজলুল হক সরকার ঢাকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে নূর হোসেনের স্ত্রী রুমা হোসেনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই মামলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাসগুলো ইফাদ অটোজ লিমিটেড কোম্পানিকে বুঝিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিলে কোম্পানী গত চারদিনে ২২টি বাস নিজস্ব হেফাজতে নিয়ে যায়।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৬ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৫:১২
যোহর১১:৫৪
আসর৩:৩৯
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩৫
সূর্যোদয় - ৬:৩৩সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পড়ুন