সাইবার অপরাধ দমনে ক্র্যাফ
মোস্তাফিজুর রহমান২৩ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
সাইবার অপরাধ দমনে ক্র্যাফ

সাইবার অপরাধ বর্তমান সময়ের আলোচিত সমস্যা। আর এই সমস্যা সমাধানে সহায়তা করছে ক্রাইম রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস ফাউন্ডেশন (ক্র্যাফ)। কিছু বিপথগামী মানুষ প্রযুক্তির অপব্যবহার করে অপরাধ করলেও প্রযুক্তির ছোঁয়াতেই তা শনাক্ত করা যায়। এই কাজটিই করছে ক্র্যাফ। ক্র্যাফের সভাপতি জেনিফার আলম জানান, ফেসবুকের মাধ্যমে অনেক মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ তৈরি হয় তার। প্রায় সময়ই ফ্রেন্ডলিস্টের মেয়েদেরকে সাইবার ক্রাইমের শিকার হতে দেখতেন তিনি। এরকম বেশকিছু ঘটনা দেখার পর তার ভাবনা ছিল এ নিয়ে কিছু করার। ২০১৬ সালের নভেম্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্র্যাফ যাত্রা শুরু করে। তানভীর জোহা সংগঠনটির সাইবার নিরাপত্তা উপদেষ্টা। সভাপতি জেনিফার, সাধারণ সম্পাদক মিনহাজউদ্দীন ছাড়াও নির্বাহী সদস্য হিসেবে আরও আছেন রিসাদ সিদ্দিকী, ইশতিয়াক এম জেনাস, জান্নাতুল ফেরদৌস, আফরিন নিশাত ও শুভ পাল। এছাড়াও মূল কমিটিতে মোট ২১ জন কাজ করছেন। মাঠপর্যায়ে আছেন আরও ১৩২ জন। ক্র্যাফের যাত্রা শুরুর পর থেকে প্রতিদিনই তারা অসংখ্য অভিযোগ গ্রহণ করেছেন ও সমাধানের জন্য কাজ করছেন।  অধিকাংশ অভিযোগ সাইবার ক্রাইম সংক্রান্ত। এরমধ্যে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক, অশ্লীল ছবি পোস্ট, ব্ল্যাকমেইলিং, সাইবার বুলিং এসব বিষয় নিয়ে। জানা গেল, এই কাজগুলো ক্র্যাফ করছে বিনামূল্যে। নিজেরাই ব্যয় মেটাচ্ছেন। স্থাপন করা হয়েছে ল্যাবও। পরিকল্পনা করা হচ্ছে হেল্প ডেস্ক স্থাপনের। মেয়েদেরকে সাইবার নিরাপত্তা সম্পর্কে সচেতন করতেও তারা পদক্ষেপ নিয়েছেন। সম্প্রতি আত্মহত্যা প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে এজন্য ক্র্যাপ বিশ্ববিদ্যালয়ে পর্যায়ে শিক্ষার্থী কাউন্সেলিং করছে।  ফেসবুকে ক্র্যাফের লিংক www.facebook.com/groups/ CrimeResearchandAnalysisFoundation। এই গ্রুপটিতে গিয়ে সাইবার ক্রাইম সংক্রান্ত কোনো সমস্যার ব্যাপারে পোস্ট করলে সহায়তা করেন ক্র্যাফের সদস্যরা।

 

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৩ অক্টোবর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:৪৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৯
মাগরিব৫:২৯
এশা৬:৪২
সূর্যোদয় - ৫:৫৯সূর্যাস্ত - ০৫:২৪
পড়ুন