তদন্তে জোর দেওয়া হচ্ছে ফ্লিনের বিদেশ সফর ও ব্যবসায়িক সম্পর্ককে
মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ
ইত্তেফাক ডেস্ক২১ জুন, ২০১৭ ইং
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের তদন্তে সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনের ব্যবসায়িক সম্পর্ক এবং বিদেশ সফরকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। কাউকে কোনো সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার জন্য তিনি কোনো আর্থিক সুবিধা নিয়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। উল্লেখ্য, রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক থাকার অভিযোগে তাকে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার পদ থেকে সরিয়ে দেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। খবর সিএনএন ও রয়টার্সের।

একটি সূত্র জানিয়েছে, ফ্লিনের সাবেক ব্যবসায়িক অংশিদার প্রতিষ্ঠান বাইজান কিয়ানের ভূমিকাকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে অকার্যকর ফ্লিন ইন্টেল কর্পোরেশনকে রাশিয়ার তিনটি কোম্পানি এবং নেদারল্যান্ডস ভিত্তিক কোম্পানি ইনোভোকে কোনো সুবিধা দিয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ইনোভো কোম্পানির মালিক তুরস্কের ব্যবসায়ী একিম আল্পটেকিন। কাজ পাইয়ে দেওয়ার জন্য ফ্লিনের পরামর্শক ফার্ম কিয়ানকে ৫ লাখ ৩০ হাজার ডলার দিয়েছিল ইনোভো। এছাড়া শীর্ষ ডেমোক্র্যাটরা তদন্ত করে দেখছেন যে, ফ্লিন মধ্যপ্রাচ্যের দুটি দেশ সফরে নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের ভুল বুঝিয়েছেন কিনা। কারণ ওই সফরে তিনি রাশিয়ার নিউক্লিয়ার পাওয়ার এজিন্সির সহায়তায় ১০০ বিলিয়ন ডলারের নিউক্লিয়ার এনার্জি প্ল্যান্ট তৈরির কাজে সহায়তা করেছিলেন। কিয়ান কিংবা ফ্লিনের ব্যক্তিগত আইনজীবী কোনো মন্তব্য করেননি।   

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২১ জুন, ২০১৮ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১২:০০
আসর৪:৪০
মাগরিব৬:৫১
এশা৮:১৬
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৬
পড়ুন