ওএমএসের চাল পাচারকারীদের তালিকা দুদকে দিলো র্যাব ২৩ জন শনাক্ত
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং

ইত্তেফাক রিপোর্ট

ওএমএসের ২১৫ টন চাল পাচারকালে আটকের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পত্তির ব্যাপারে অনুসন্ধানে দুদকে চিঠি দিয়েছে র্যাব। গতকাল বুধবার র?্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম দুদকে গিয়ে এ সংক্রান্ত চিঠি দেন এবং তিনি দুদক চেয়ারম্যানের সঙ্গে দেখা করে চাল পাচারকারীদের তালিকা ও তাদের ব্যাপারে র্যাবের প্রতিবেদন প্রদান করেন। উল্লেখ্য, র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত গত শনি ও রবিবার তেজগাঁও সিএসডি গোডাউন ও মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটে অভিযান চালিয়ে ২১৫ মেট্রিক টন ওএমএসের চাল জব্দ করে। এ অভিযানে সিএসডি গোডাউনের কয়েকজন কর্মকর্তাসহ ২৩ জনকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানায় র্যাব বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করে।

মামলায় যাদের নাম রয়েছে তারা হলেন, তেজগাঁও সিএসডির চেকপোস্ট ইনচার্জ সুমন, প্রধান দারোয়ান হারেজ, দারোয়ান বাবুল, স্টক শাখার ইনচার্জ শুকুর আলী হালদার, গেট শাখার ইনচার্জ ইউনুছ আলী মণ্ডল, ডিও শাখার ইনচার্জ কাজী মাহমুদ, শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা আলমগীর সৈকত, সভাপতি দুদু মিয়া, সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আলমগীর, ঢাকার কদমতলীর মো. নজরুল ইসলাম ও পোস্তগোলার মো. জাকির হোসেন।

এছাড়াও চোরাই চাল বেচাকেনায় জড়িত মোহাম্মদপুর কৃষি মার্কেটের জামি রাইস এজেন্সির মো. ইকবাল হোসেন, ছালেক এজেন্সির মো. সালাউদ্দিন, এশিয়ান ট্রেডার্সের মো. মিসকাতুর রহমান, বন্ধু রাইস এজেন্সির মো. নজরুল ইসলাম, রাহমানিয়া রাইস এজেন্সির মো. বিল্লাল হোসেন, কর্ণফুলী রাইস এজেন্সির মো. গোলাম কিবরিয়া, সুগন্ধা ট্রেডিংয়ের মো. গোলাম মোস্তফা, মহানগর এন্টারপ্রাইজের মো. তৈয়বুর রহমান, এপি সুগন্ধার হাজী মো. হান্নান, জননী এন্টারপ্রাইজের মো. শাহ আলম ও সূর্য এন্টারপ্রাইজের মো. কবির হোসেনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

গতকাল দুদক কার্যালয়ে র?্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম সাংবাদিকদের বলেন, ওএমএসের ২১৫ টন চাল পাচারে ২৩ জন জড়িত বলে নিশ্চিত হয়েছি।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৪:২৮
যোহর১১:৫৫
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০৮
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৫:৪৪সূর্যাস্ত - ০৬:০৩
পড়ুন