ইতিহাস গড়তে চায় পাকিস্তান
শারজাহ টেস্ট শুরু আজ
স্পোর্টস ডেস্ক৩০ অক্টোবর, ২০১৬ ইং
ইতিহাস গড়তে চায় পাকিস্তান
পাকিস্তান আজ রবিবার শুরু হতে যাওয়া তৃতীয় ও শেষ টেস্টটি জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৯-০ ব্যবধানে হারানোর রেকর্ড গড়তে চায়। সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজায় আজ শুরু হবে টেস্টটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে কেউ আগে কখনো এই ব্যবধানে হারায়নি। স্বাগতিক পাকিস্তান ইতোমধ্যে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি উভয় সিরিজেই ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে রেখেছে। এরপর দুবাইয়ে দিনরাত্রির টেস্ট ও আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয়টিতে যথাক্রমে ৫৬ ও ১৩৩ রানে জয়ী হয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে আছে। ক্রিকেট ইতিহাসে এখনো কোনো দল এক সফরে নয়টি ম্যাচে জয়ী হতে পারেনি। আর সেই সুযোগের হাতছানি এখন পাকিস্তানের সামনে। পাকিস্তানের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন-আপ, লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ’র দুর্দান্ত ফর্ম ইতোমধ্যেই অনভিজ্ঞ ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য যথেষ্ট হিসেবে প্রমাণিত হয়েছে। সিরিজের আগেই কোচ ফিল সিমন্সের বরখাস্তের তিক্ততা দিয়ে শুরু করতে হয়েছিল ক্যারিবীয়দের। সীমিত ওভারের খেলাগুলোয় তাদের মনে হয়েছিল দিশাহীন। এরপর প্রথম দুই টেস্টে অবশ্য ব্যাটিং দিয়ে পঞ্চম দিন পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে গেছে তারা। এখন টেস্ট সিরিজেও হোয়াইটওয়াশ এড়াতে হলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অতি মানবীয় কিছু করে দেখাতে হবে।

পাকিস্তান কোচ মিকি আর্থার অবশ্য কোনো ছাড় দিতে নারাজ। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমরা রূঢ় হতে চাই।’ সংযুক্ত আরব আমিরাতের তিনটি টেস্টের পরে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় আরো পাঁচটি টেস্ট রয়েছে। এই আটটি টেস্টকে ঘিরে নিজেদের পরিকল্পনার কথাও জানান আর্থার। তিনি বলেন,‘এর মধ্যে মাত্র দুটি শেষ হয়েছে। প্রতিটি টেস্টই ভিন্ন ভিন্ন চ্যালেঞ্জ সামনে নিয়ে আসবে।’

শারজাহ থেকেই নিউজিল্যান্ডে উড়ে যাবে পাকিস্তান দল। সেখানে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট আগামী ১৭ নভেম্বর ক্রাইস্টচার্চে শুরু হবে। এর পরপরই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে রয়েছে তিনটি টেস্ট। আর্থার জানিয়েছেন ফলাফল ছাড়াও আচ অনুমানহীন পাকিস্তানের কাছ থেকে তিনি ধারাবাহিক উন্নতি চান। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এই কোচ বলেন, ‘ভাল ফলাফল পাওয়ার চাইতেও আরো গভীরে যেতে চাই আমি। আমি চাই আমরা ভাল ক্রিকেট খেলি এবং খেলোয়াড়রা তাদের ভূমিকা পালন করুক। মূলত এ বিষয়গুলোই আমি গুরুত্ব দিতে চাই এবং যেভাবে আমরা এগুচ্ছি তা সত্যিই অবিশ্বাস্য। প্রত্যেকেই উন্নতি ঘটাচ্ছে।’

তৃতীয় টেস্টে জয়ের লক্ষ্য থাকলেও প্রথম দুই টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের লড়াইয়ের মানসিকতার প্রশংসা করেছেন আর্থার। তার মতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে মোটেই খাটো করে দেখলে চলবে না। ভবিষ্যতের কথা মাথায় রেখেই তারা তরুণ দল নিয়ে খেলতে এসেছে। পাকিস্তানী দলে বাঁহাতি পেসার ওয়াহাব রিয়াজের অন্তর্ভুক্তির ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। অথবা ডানহাতি ফার্স্ট বোলার ইমরান খানকেও দেখা যেতে পারে। এছাড়া মোহাম্মদ আমির তো রয়েছেই। তবে শারজাহর ফ্ল্যাট উইকেটের কথা বিবেচনা করে দুই বাঁহাতি স্পিনার জুলফিকার বাবর ও মোহাম্মদ নাওয়াজকে দলে রেখে দেয়া হতে পারে। পাকিস্তান অধিনায়ক মিসবাহ উল হক আশাবাদী- তারা পরিচিত কন্ডিশন কাজে লাগাতে পারবেন। এদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে মিগুয়েল কামিন্সের পরিবর্তে ফার্স্ট বোলার হিসেবে আলজারি জোসেফকে দেখা যেতে পারে। পুরো সিরিজে পরাজয় সত্ত্বেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার বলেছেন প্রথম দুই টেস্ট থেকে দল কিছু ইতিবাচক দিক পেয়েছে। তবে বড় দলের সাথে ক্যারিবীয়দের মূল পার্থক্যই হলো অভিজ্ঞতা।

পাকিস্তান দল : মিসবাহ-উল-হক (অধিনায়ক), আজহার আলী, সামি আসলাম, আসাদ শফিক, ইউনিস খান, বাবর আজম, সারফরাজ আহমেদ, মোহাম্মদ নাওয়াজ, মোহাম্মদ আমির, ওয়াহাব রিয়াজ, ইয়াসির শাহ, জুলফিকার বাবর, রাহাত আলী, সোহেল খান, ইমরান খান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ : জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, দেবেন্দ্র বিশু, জার্মেই ব্ল্যাকউড, কার্লোস ব্র্যাথওয়েট, ড্যারেন ব্র্যাভো, রোস্টোন চেস, মিগুয়েল কামিন্স, শেন ডরউইচ, শ্যানন গ্র্যাব্রিয়েল, শাই হোপ, লিও জনসন, আলজারি জোসেফ, মারলন স্যামুয়েলস, জোমেল ওয়ারিকান।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩০ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
ফজর৪:৪৭
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৪
মাগরিব৫:২৪
এশা৬:৩৮
সূর্যোদয় - ৬:০৪সূর্যাস্ত - ০৫:১৯
পড়ুন