ভালো পুঁজি চান স্পিনাররা
স্পোর্টস রিপোর্টার৩০ অক্টোবর, ২০১৬ ইং
দারুণ এক সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে মিরপুর টেস্ট, যেখানে ম্যাচের ভাগ্য নিয়ন্তা হয়ে উঠতে পারে বাংলাদেশ দল।

গতকাল শনিবার দ্বিতীয় দিন শেষে ১২৮ রানে এগিয়ে আছে স্বাগতিকরা। আজ তৃতীয় দিনে এই ব্যবধান যত বড় হবে খেলাটিতে বাংলাদেশের অবস্থানও ততটাই সুসংহত হবে। বাংলাদেশ অবশ্য মিরপুরের স্পিন সহায়ক উইকেটে বড় ব্যবধান গড়তে ব্যাটসম্যানদের দিকে তাকিয়ে আছে। গতকালকের খেলা স্বাগতিকদের পক্ষে সবচেয়ে বেশি ঔজ্জ্বল্য ছড়ানো মেহেদী হাসান মিরাজ বলেছেন, বাংলাদেশের চেষ্টা থাকবে যত বেশি সম্ভব রান করা। কারণ ভালো পুঁজি হলে স্পিনারদের জন্য কাজটা সহজ হবে। স্পিন আক্রমণে বাংলাদেশের ভরসা সাকিব, তাইজুল ও মিরাজ নিজেই।

প্রথম ইনিংসে এগিয়ে যাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও তা হাতছাড়া করে বাংলাদেশ দল। কেননা ১৪৪ রানে ইংল্যান্ডের ৮ উইকেট ফেলে দিয়েছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু ৯ম উইকেটে ওকস-আদিল রশিদের ৯৯ রানের জুটি হতাশা বয়ে আনে স্বাগতিকদের জন্য। কেননা এতে উল্টো ২৪ রানে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড।

স্বাগতিকদের দ্বিতীয় ইনিংসে তামিম-ইমরুলের ওপেনিং জুটিতে আসে ৬৫ রান। তামিম ৪০ রান করেন। মুমিনুল (১) দ্রুত ফিরলেও ইমরুল-মাহমুদউল্লাহর তৃতীয় উইকেট জুটি আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছিলেন। দিনটা তারাই শেষ করে আসতে পারতেন। সেটি হয়নি দিনের শেষ বলে মাহমুদউল্লাহর আনাড়িপনায়। জাফর আনসারির বলে বোল্ড হয়ে ইংল্যান্ডকে মানসিক স্বস্তি উপহার দেন ৪৭ রান করা মাহমুদউল্লাহ। ফলে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩১ ওভারে তিন উইকেটে ১৫৩ রান। রান রেট ৪.৯০। ব্যাটিংয়ে আক্রমণাত্মক ছবিটা এখানেই স্পষ্ট। এরই প্রেক্ষিতে ব্যাটসম্যানদের কাছে দায়িত্বশীল ইনিংস আশা করছেন কালকের সেরা পারফরমার মেহেদী হাসান মিরাজ। তিনি বলেন, ‘আমাদের ব্যাটসম্যানরা ভালো ব্যাটিং করছে। ভালো একটা জুটি হয়েছিল। সামনে যে ব্যাটসম্যানরা আছে আশা করি তারা দায়িত্ব নিয়ে খেলবে। সবাই মিলে চেষ্টা করবো স্কোরটা যেন বড় হয়। যে স্কোরটাই হোক না কেন আমরা সেটা নিয়েই লড়াই করবো।’

অফস্পিনারটি আরো বলেন,‘আমরা আমাদের শক্তির দিকটা জানি। সাকিব ভাই তাইজুল ভাই দারুণ বোলিং করেছে। আমরা চেষ্টা করবো যতটা বেশি রান করা যায়। আমরা যদি ভালো ব্যাটিং করি তাহলে স্পিনারদের জন্য সহজ হয়ে যাবে।’ ব্যাটসম্যানদের জন্য দুর্ভেদ্য হয়ে পড়ছে উইকেট। মিরাজ অবশ্য আগামী দিনগুলোতে উইকেট আরো খারাপ হবে বলে মনে করছেন না। তিনি বলেন, ‘উইকেটটা যে খারাপ হচ্ছে তেমন কিছু না। আমাদের ব্যাটসম্যানরা আজকে (গতকাল) ভালো ব্যাটিং করেছে খুব ভালোভাবেই সামাল দিয়েছে পরিস্থিতি। আমার কাছে মনে হয় না বল খুব বেশি টার্ন করছে! যদি একটু ফোকাস রাখা যায় তাহলে আশা করা যায় ভালো কিছু করা যাবে।’

দিনের শেষ বলে মাহমুদউল্লাহর ছেলেমানুষি দৃষ্টিকটু ঠেকেছে সবার কাছেই। মিরাজ বিষয়টাকে স্বাভাবিকভাবেই দেখছেন। তিনি বলেন, ‘ব্যাটসম্যানরা যে কোনো বলেই আউট হতে পারে। ব্যাটসম্যানদের সুযোগ কিন্তু একটাই।  বোলাররা সুযোগ অনেক বেশি পায়। ব্যাটিং করার সময় সিদ্ধান্ত একটু এদিক-সেদিক হলেই আউট হয়ে যায়। আমাদের সবকিছুই ঠিক ছিল কিন্তু আউটাতেই। আউট হতেই পারে ব্যাটসম্যান।’

অগ্রজ মাহমুদউল্লাহর পাশেই থাকলেন মিরাজ। তারপরও পরেরদিকে সিনিয়রদের মধ্যে সাকিব, মুশফিক, শুভাগতদের কাছে ভালো রান আশা করছেন এই তরুণ। ৯ম উইকেটে ইংল্যান্ডের জুটিটা বাংলাদেশকে অনেক ভুগিয়েছে। এই প্রসঙ্গে মিরাজ বলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটে জুটি হবেই। আবার উইকেট পড়বেই। ওদের কিন্তু একটা সেশনে ২-৩-৪টা করে উইকেট পড়ছিল। দুইঘন্টায় আবার উইকেট পড়ছে না। একটা সেশনে ওরা জুটি গড়েছে। আসলে এটাই টেস্ট খেলার নিয়ম। এখানে এমন নয় যে জুটি হবে না। এখানে ১০-১১ নম্বর পর্যন্ত জুটি হতে পারে। ওই সময় আমাদের বোলাররা ভালো বোলিং করেছে। কিন্তু ওরাও ওই সময় ভালো ব্যাটিং করেছে।’

স্কো  র  কা  র্ড

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস                     রান    বল    ৪     ৬

কুক এলবিডব্লিউ ব মিরাজ            ১৪     ১২     ৩    ০

ডাকেট ক মুশফিক ব সাকিব        ৭       ৫      ০    ১      

রুট এলবিডব্লিউ ব তাইজুল          ৫৬    ১২২   ৪     ০

ব্যালেন্স ক মুশফিক ব মিরাজ       ৯       ১৮    ২     ০

মঈন ব মিরাজ                           ১০     ১৭    ১     ০      

স্টোকস ক মুমিনুল ব তাইজুল        ০       ৪       ০    ০      

বেয়ারস্টো এলবিডব্লিউ ব মিরাজ    ২৪     ৪৮    ০    ০      

আনসারি ক শুভাগত ব মিরাজ       ১৩     ৩১    ১     ০

ওকস ক শুভাগত ব মিরাজ           ৪৬     ১২২   ৪     ০

রশিদ অপরাজিত                        ৪৪     ১০৭  ২     ০

ফিন ক মুশফিক ব তাইজুল          ০       ৪       ০    ০

অতিরিক্ত (বাই ১৩, লেগবাই ৭, নোবল ১)       ২১

মোট (অলআউট; ৮১.৩ ওভার)    ২৪৪

উইকেট পতন:১/১০ (ডাকেট), ২/২৪ (কুকু), ৩/৪২ (ব্যালেন্স), ৪/৬৪ (মঈন), ৫/৬৯ (স্টোকস), ৬/১১৪ (বেয়ারস্টো), ৭/১৪০ (আনসারি), ৮/১৪৪ (রুট), ৯/২৪৩ (ওকস), ১০/২৪৪ (ফিন)।

বোলিং: মিরাজ ২৮-২-৮২-৬, সাকিব ১৬-৫-৪১-১, তাইজুল ২৫.৩-৩-৬৫-৩, রাব্বি ৩-০-১৬-০, শুভাগত ৪-০-৮-০, সাব্বির ৫-০-১২-০।

বাংলাদেশ ২য় ইনিংস                  রান   বল    ৪     ৬

তামিম ক কুক ব আনসারি            ৪০     ৪৭    ৭    ০

ইমরুল অপরাজিত                      ৫৯     ৮১    ৮    ০

মুমিনুল ক কুক ব স্টোকস             ১       ২       ০    ০

মাহমুদুল্লাহ ব আনসারি                 ৪৭     ৫৭    ৫    ০

অতিরিক্ত (বাই ১, লেগবাই ২, ওয়াইড ১, নোবল ১) ৫

মোট (৩ উইকেট; ৩১ ওভার)      ১৫২

উইকেট পতন: ১/৬৫ (তামিম), ২/৬৬ (মুমিনুল), ৩/১৫২ (মাহমুদুল্লাহ)। 

বোলিং:ফিন ৩-০-১৮-০, মঈন ৮-০-৩৪-০, আনসারি ৮-০-৩৩-২, স্টোকস ৫-১-২০-১, রশিদ ৫-০-৩০-০, ওকস ২-০-১৪-০।

n ১ম দিন- ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস ৫০/৩ (রুট ১৫*, মঈন ২*)।

n ২য় দিন-বাংলাদেশ ২য় ইনিংস ১৫২/৩ (ইমরুল ৫৯*)।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৩০ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
ফজর৪:৪৭
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৪৪
মাগরিব৫:২৪
এশা৬:৩৮
সূর্যোদয় - ৬:০৪সূর্যাস্ত - ০৫:১৯
পড়ুন