প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু
অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধিদের অপেক্ষায় বিসিবি
স্পোর্টস রিপোর্টার১৩ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধিদের অপেক্ষায় বিসিবি
অস্ট্রেলিয়ার দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচের মূল ভেন্যু ফতুল্লাহর খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে জলাবদ্ধতা। পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি হলেও সেখানে ম্যাচ আয়োজন এখনও অনিশ্চিত। বিকল্প হিসেবে রয়েছে বিকেএসপি, সিলেট। স্টিভেন স্মিথদের আগে ১৫ আগস্ট ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার দুই সদস্যের নিরাপত্তা প্রতিনিধি দল ঢাকায় আসবে। তাদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমেই ঠিক করা হবে অস্ট্রেলিয়ার প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু। বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস গতকাল সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ১৮ আগস্ট ঢাকায় আসবে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেই মূল সিরিজে খেলতে নামবে সফরকারীরা। প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় আছে বিসিবি। অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনা শেষেই ভেন্যু চূড়ান্ত করা হবে।

মিরপুর শেরেবাংরা স্টেডিয়ামে গতকাল জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘বৃষ্টি প্রতিদিনই হচ্ছে। তাতে সম্ভাবনা কমছে। এই অবস্থায় আমরা অন্য ভেন্যু যেমন বিকেএসপি হাতে রেখেছি। যদি বিকেএসপিতে সম্ভব না হয় আমরা সেটা অন্য কোথায়ও করবো। আমার মনে হয়, অস্ট্রেলিয়ার একটা দল আগামী ১৫ আগস্ট ঢাকায় আসবে। তাদের সাথে কথা বলে এটা ঠিক করা হবে। যদি ফতুল্লাহয় সম্ভব না হয়, সেক্ষেত্রে আমরা অন্য কোথাও চেষ্টা করবো।’

বিসিবি বিকেএসপির কথা চিন্তা করলেও সেখানে রয়েছে যাতায়াতের সমস্যা। বিসিবির এ পরিচালক বলেন, ‘একটা সম্ভাবনা আছে যদি আমরা তাদের বিকেএসপিতে নিরাপত্তা দিয়ে নিয়ে যেতে পারি। এটা নির্ভর করছে ওদের নিরাপত্তা দলের সঙ্গে আলোচনার পর। তখন আমরা একটা সমাধান পাব।’

বিকেএসপি যেতে এক ঘণ্টার বেশি সময় লাগে। যেটি কমিয়ে আনতে পারলে প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজনের সম্ভাবনা বাড়বে। বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান বলেন, ‘বিকেএসপিতে যাওয়া একটা সমস্যা হবে। কারণ সেখানে যেতে এক ঘণ্টা সময় লাগে। যদি আমরা এক ঘণ্টায় যেতে পারি তাহলে একটা সম্ভবনা আছে। কিন্তু আমরা এটা এখনো নিশ্চিত করিনি তাদের। আমাদের সাথে তাদের নিরাপত্তা দলের আলোচনার পর এটা ঠিক হবে।’

ফতুল্লাহয় প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজনের চেষ্টা করে যাচ্ছে বিসিবি। পাম্প লাগিয়ে পানি নিষ্কাশন হচ্ছে। বাঁধ দিয়ে পানি আসার পথ বন্ধ করা হয়েছে। জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমরা এখনও ফতুল্লাহয় চেষ্টা করে যাচ্ছি। যে পানি জমে ছিল তা পাম্প দিয়ে সরানো হয়েছে। আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি কারণ এখানে প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু ঘোষণা করা হয়েছে এক বছর আগে যখন আমরা সূচি করি।’

আগামী ২২-২৩ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে প্রস্তুতি ম্যাচ। সেক্ষেত্রে সিলেটে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে ফিরে দুদিন পরই টেস্ট খেলবে ঢাকায়। অস্ট্রেলিয়া রাজি হলে সিলেটেও ম্যাচ আয়োজন করতে প্রস্তুত বিসিবি।

সিরিজের প্রথম টেস্টের ভেন্যু মিরপুর স্টেডিয়াম। সেখানে প্রস্তুতি ম্যাচ আয়োজন করা হবে না। জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘সাধারণত প্রস্তুতি ম্যাচ মূল ভেন্যুতে দেয়া হয় না। এছাড়া মিরপুরের উইকেট প্রস্তুত করার বিষয় আছে। ২২ আগস্ট প্রস্তুতি ম্যাচ হলে ২৭ আগস্ট টেস্টের জন্য উইকেট তৈরি কঠিন হবে। কারণ উইকেট তৈরিতে সময় লাগে। আমরা মিরপুরের বাইরে অন্য ভেন্যুর চিন্তা করছি।’

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
ফজর৪:১৩
যোহর১২:০৪
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৩৭
এশা৭:৫৪
সূর্যোদয় - ৫:৩৩সূর্যাস্ত - ০৬:৩২
পড়ুন