চট্টগ্রাম আবাহনীর টানা চতুর্থ জয়
স্পোর্টস রিপোর্টার১৩ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
চট্টগ্রাম আবাহনীর টানা চতুর্থ জয়
প্রিমিয়ার ফুটবলে টানা চতুর্থ জয় তুলে নিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে চট্টগ্রাম আবাহনী ৩-১ গোলে শেখ রাসেলকে হারিয়েছে। খেলার চার গোলই করেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। শেখ রাসেল যে গোলটি পেয়েছে সেটিও চট্টগ্রাম আবাহনীরই করা গোল। নিজেরা বল ঠেকাতে গিয়ে বল জালে ফেলে দেন। চার খেলায় চট্টগ্রাম আবাহনীর ১২ পয়েন্ট। শেখ রাসেল ৪ খেলায় ৪ পয়েন্ট নিয়ে ঘরে ফিরল।

চট্টগ্রাম আবাহনীর কোচ সাইফুল বারী টিটুর কাছে জয়টা গুরুত্বপূর্ণই বটে। কারণ এই মাঠে জয় পাওয়া কঠিন। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের কাদা মাঠে ভালো উপহার দেয়ার সুযোগ কম। টিটুও আফসোস করলেন মাঠ নিয়ে। বললেন, ‘ভেজা মাঠে এক খেলায় দুই খেলার শক্তি খরচা করতে হয়।’ টানা চার খেলায় জিতে চট্টগ্রাম আবাহনীর কোচ খুশি না। কারণ টিটু প্রতিটা খেলা চ্যাম্পিয়ন ম্যাচ হিসাব করে লড়াই করছেন। টিটু খেলা শেষে বললেন, ‘আমি ম্যাচ বাই ম্যাচ হিসাব করেছি। প্রত্যেক খেলা আমার কাছে চ্যাম্পিয়নের খেলা।’

ম্যাচের ৭০ মিনিট শেখ রাসেলের পক্ষেই ছিল খেলা। ১২ মিনিটে চট্টগ্রাম আবাহনীর নাইজেরিয়ান আফিজ ওলাওয়ালে ওলাদিনো গোল করেন ১-০। আফিজের তিন গোল হলো। ৫১ মিনিটে শেখ রাসেলের ক্রসের বল চট্টগ্রাম আবাহনীর নাইজেরিয়ান ডিফেন্ডার উদুকা আলিসন হেড করে গোলকিপার রানার হাতে নামিয়ে দেন।

কিন্তু গোলকিপার রানা গ্যালারী শো করে বল ধরতে গেলে বল জালে গড়িয়ে যায় ১-১। ৭৩ আবার সেই আফিজা ওলাওয়ালে ওলাদিনো এবং ৮১ মিনিটে সবুজ গোল করেন ৩-১। মানিকের কষ্টটা এখানেই। দুই গোল হজম করার আগে ৭০ মিনিট তার দল ডমিনেট করেছে। কেন ৯ মিনিট ব্যবধানে দুই গোল হজম করবে। খেলোয়াড়রা যেভাবে দুই গোল হজম করেছে এটা মেনে নেয়ার মতো না। মানিকের কষ্টটা এই দুই গোল হজম করা নিয়ে। কোচ টিটু মানিকের সঙ্গে হাত মিলিয়ে চলে গেলেন। আর মানিক অনেকটা সময় ধরে ডাগআউটে বসে থাকলেন মুখকালো করে। খেলোয়াড়রা বাজেভাবে গোল খাবে আর দোষ পড়বে কোচের। সবুজ চার খেলায় চার গোল করে তালিকায় এগিয়ে থাকলেন।

আজকের খেলা ঃ

শেখ জামাল ও রহমতগঞ্জ (৬টা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম)।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ আগষ্ট, ২০১৭ ইং
ফজর৪:১৩
যোহর১২:০৪
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৩৭
এশা৭:৫৪
সূর্যোদয় - ৫:৩৩সূর্যাস্ত - ০৬:৩২
পড়ুন