ই-কমার্সের জন্য অভ্যন্তরীণ স্বার্থ সুরক্ষায় নীতি প্রণয়নের দাবী
ইত্তেফাক রিপোর্ট০১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং

বাংলাদেশে ই-কমার্স বা ইন্টারনেট-ভিত্তিক বাণিজ্য চালু করার ক্ষেত্রে অভ্যন্তরীন বা রাষ্টী্রয় স্বার্থ সুরক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য নীতিমালা প্রণয়নের দাবি জানিয়েছেন অধিকারভিত্তিক নাগরিক সমাজ। আগামী ২০-১৩ ডিসেম্বর আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সম্মেলন উপলক্ষে গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত ‘ই-কমার্স ও অভ্যন্তরীন সুরক্ষা: বাংলাদেশ পরিপ্রেক্ষিত’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এ কথা বলেন। ইক্যুইটিবিডি’র সৈয়দ আমিনুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বরকত উল্লাহ মারুফ। এতে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন এফবিসিসিআই’র পরিচালক আবু নাসের, ডিসিসিআই’র পরিচালক ফজলুল করিম, জাতীয় শ্রমিক জোটের ড. মেজবাহ উদ্দিন, লেবার মুভমেন্ট ফোরামের আবুল হোসেন, বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের বদরুল আলম প্রমূখ।

বরকত উল্লাহ মারুফ উল্লেখ করেন, ই কমার্স বিষয়ে আলোচনার সুযোগ ছিল ১৯৯৮ সালের একটি বিধানে, কিন্ত ধনী দেশগুলো, বিশেষ করে গুগল, এ্যাপল, ফেসবুক, এ্যামাজন, মাইক্রোসফট-এর মতো দৈত্যাকার কোম্পানিগুলো এবং যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, কানাডা, ইউরোপীয় ইউনিয়ন চায় আলোচনার সুযোগ বন্ধ করে দিয়ে দ্বিপাক্ষিক সমঝোতা ও আইনী বাধ্যবাধকতা প্রতিষ্ঠা করতে। তারা চায় এক্ষেত্রে কর, শুল্কসহ সরকারি নিয়ন্ত্রণ না থাকুক। আফ্রিকা এবং স্বল্পোন্নত দেশগুলো এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করছে কারণ এই  ধরনের আয়োজন বিশ্ব জুড়ে ভোক্তাদের স্বার্থ ক্ষুণ্ন করবে এবং তাদের ব্যক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তা হুমকির মুখে পড়বে। বিভিন্ন দেশগুলোর মধ্যে অর্থনৈতিক অসমতা বাড়বে, যা এসডিজি’র ১০ নাম্বার লক্ষ্যের পরিপন্থি। তাই বাংলাদেশ সরকারকে দেশের স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়ে দেশের ছোট ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা নিশ্চিত করতে হবে।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
ফজর৫:০৪
যোহর১১:৪৮
আসর৩:৩৫
মাগরিব৫:১৪
এশা৬:৩১
সূর্যোদয় - ৬:২৪সূর্যাস্ত - ০৫:০৯
পড়ুন