৪৫ ভাগ ভোট যারা পাবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার তাদেরই
বিশ্লেষকদের অভিমত
পশ্চিমবঙ্গে ৪৫ শতাংশ ভোট যারা পাবে সরকার গড়বে তারাই। তা সে মমতা ব্যানার্জির তৃণমূল কংগ্রেস হোক আর সিপিএম-জাতীয় কংগ্রেস জোটই হোক। ভোটগ্রহণ পর্ব শেষে প্রাক ফলাফল বিশ্লেষণে এমনই মত দিয়েছেন ভোট বিশ্লেষকরা।

২০১১ সালে কংগ্রেস, এসইউসির মত দলগুলোর সঙ্গে জোট গড়ে দুই-তৃতীয়াংশেরও বেশি আসন পেয়ে সরকার গড়েছিল তৃণমূল। সেবার এই জোট ভোট পেয়েছিল ৪৮.৮৩ শতাংশ। এর মধ্যে তৃণমূল পেয়েছিল ৩৮.৯৩ শতাংশ। ৩ বছর পর তৃণমূল কংগ্রেস লোকসভায় পশ্চিমবঙ্গে ৪২ আসনের মধ্যে ৩৪টি আসন পেলেও ভোট পেয়েছিল ৩৯.৭৯ শতাংশ। অর্থাত্ ভোট বেড়েছিল মাত্র ১ শতাংশের কাছাকাছি। তারপরও তৃণমূল দারুণ সফল হয়েছিল কংগ্রেস ও এসইউসি আলাদাভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায়। বিরোধী ভোট সিপিএম, কংগ্রেস, বিজেপি এবং এসইউসি- এই ৪ ভাগে ভাগ হলেও মমতার তৃণমূল কংগ্রেস বেশি আসন পায়।

এবার পরিস্থিতি একেবারে আলাদা। সিপিএম নেতৃত্বাধীন বামফ্রন্ট এবং জাতীয় কংগ্রেস জোট বেঁধে ভোট লড়াই করছে। ২০১১ সালে বামফ্রন্ট পেয়েছিল ৪১.০৫ শতাংশ ভোট। আর তৃণমূলের জোট শরিক জাতীয় কংগ্রেস ৯.০৯ শতাংশ। বিজেপি ৪.০৬ শতাংশ। ২০১৪ সালে বিজেপি মোদী হাওয়ায় ১৭.০২ শতাংশ ভোট পায়। বামফ্রন্ট পায় ২৯.৯৪ শতাংশ। আর জাতীয় কংগ্রেস পায় ৯.৬৯ শতাংশ। জোট হওয়ার পর সিপিএম নেতৃত্বাধীন বামফ্রন্ট আর কংগ্রেসের ভোট যোগ করলে হয় ৩৯.৬৩ শতাংশ। যা তৃণমূলের প্রাপ্ত ভোটের চেয়ে মাত্র ০.১৬ শতাংশ কম।

এবার মোদী হাওয়া নেই মেনেই নিয়েছে বিজেপি। ২০১৪ সালে লোকসভার সময় দার্জিলিংয়ে বিজেপি গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সমর্থন নিয়ে প্রার্থী দিয়ে জিতেছিল। গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার পক্ষে ভোট রয়েছে ১ শতাংশ। এবার বিধানসভা নির্বাচনে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা অন্যবারের মতোই আলাদাভাবে লড়ছে। বিজেপির মতে এবার তাদের প্রাপ্ত ভোট কমে ৮ শতাংশ হতে পারে। স্বাভাবিকভাবেই বিজেপির কমে যাওয়া ভোটই পশ্চিমবঙ্গে এবারের বিধানসভা নির্বাচনে শাসকদল তৃণমূল কিংবা বিরোধী শিবির সিপিএম-কংগ্রেস জোটের সাফল্যের চাবিকাঠি। লোকসভা ভোটের নিরিখে দু’পক্ষই ৪০ শতাংশের আশপাশে ভোট পেয়েছিল। বেশ কয়েক দফা বিশ্লেষণের পর তৃণমূল এবং সিপিএম-কংগ্রেস জোট একটা বিষয়ে নিশ্চিত যে সরকার গড়তে হলে ৪৫ শতাংশ ভোট পেতেই হবে। তবেই প্রতিদ্বন্দ্বী দলের বিরুদ্ধে কিছুটা বেশি ভোটে হলেও এগিয়ে থাকা যাবে। স্বাভাবিকভাবেই যে পক্ষ এই পরিমাণ ভোট পাবে পশ্চিমবঙ্গে তাদেরই সরকার হবে ।

তবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলছেন, বিজেপি থেকে ছেড়ে আসা ভোট পেয়ে পশ্চিমবঙ্গে ফের সরকার গড়বে তৃণমূল। আর সিপিএম-কংগ্রেস শিবির বলছে, সারদা থেকে নারদ- সব কেলেঙ্কারি দেখেছে মানুষ। বিরোধী ভোট এক হয়ে তার জবাব দেবে এবার।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১২ মে, ২০১৮ ইং
ফজর৩:৫৪
যোহর১১:৫৫
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:৩৫
এশা৭:৫৫
সূর্যোদয় - ৫:১৭সূর্যাস্ত - ০৬:৩০
পড়ুন